corona virus btn
corona virus btn
Loading

এক হাত দূরে কনটেইনমেন্ট জোন, রাস্তায় ভিড় করে মৃত্যুর সঙ্গে খেলছেন ওঁরা

এক হাত দূরে কনটেইনমেন্ট জোন, রাস্তায় ভিড় করে মৃত্যুর সঙ্গে খেলছেন ওঁরা
এই ছবিটাই ধরা পড়ল বাগুইহাটিতে।

এই ছবি দেখে মনে প্রশ্ন উঠতেই পারে, লকডাউন কি বাগুইহাটির বাজারে নেই? অথচ বাগুইহাটি সংলগ্ন রঘুনাথপুর, কৈখালি সবই কন্টেইনমেন্ট জোনের অন্তর্গত।

  • Share this:

কলকাতা: দেশ শুরু হয়েছে তৃতীয় দফার লকডাউন পর্ব। দীর্ঘ দিনের বন্দিদশায় নাভিশ্বাস উঠছে অনেকেরই। তবুও করোনা ভাইরাসকে হারাতে ঘরে থাকাই একমাত্র পথ, তা বারবারই স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। কিন্তু নিষেধই সার। আজ লকডাউনের মধ্যেই যে ভাবে পথে নামলেন বাগুইহাটির মানুষ, তাতে প্রশ্ন উঠছে, ওঁরা জানেন তো যে লকডাউন শেষ হয়নি, বরং দু'সপ্তাহের মেয়াদ বৃদ্ধি হয়েছে।

লকডাউনের প্রতিটা দিন খাবারের যাতে অভাব না হয়, তার জন্য বাজারের বেশ কিছু নিয়ম তৈরি করেছে রাজ্য সরকার। বেশ কিছু বাজার বন্ধ করে অন্যত্র সরিয়েও দেওয়া হয়েছে আপৎকালীন তৎপরতায়। বারবার আবেদন করা হচ্ছে, বাজারে প্রয়োজন মত গেলেও অযথা সময় নষ্ট না করতে। বলা হচ্ছে, বাজারের মধ্যে সামাজিক দুরত্ব বজায় রাখতে, কোনও জমায়েত বা ভিড় না করতে। সব কিছু জানা থাকলেও মঙ্গলবার এই শহরে ফের দেখা মিলল এক ব্যাতিক্রম ছবি বাগুইহাটি বাজার এলাকায়। সকাল এগারোটায় গিয়ে দেখা যায় রাস্তায় দাঁড়িয়ে সার সার লোক। রাস্তায় প্রচুর গাড়ির ভিড়, চার চাকার যানবাহন ছাড়াও টোটো রিক্সা থেকে ভ্যান সবই রয়েছে রাস্তায়। এই ছবি দেখে মনে প্রশ্ন উঠতেই পারে, লকডাউন কি বাগুইহাটির বাজারে নেই? অথচ বাগুইহাটি সংলগ্ন রঘুনাথপুর, কৈখালি সবই কন্টেইনমেন্ট জোনের অন্তর্গত।

অনেকেই জানালেন, লকডাউন সম্পর্কে সবাই সবই জানেন, মানেন না কেউ। বাসিন্দাদের তরফেই জানা গেল মঙ্গলবারই যে এত লোকের সমাগম বাজারে তা নয়, প্রতিদিনই এখানে কালো মাথার ভিড় দেখা যাবেই। করোনা ভাইরাস ঠেকাতে নিজেকে গৃহবন্দি একমাত্র পথ, সেকথা বিভিন্ন মাধ্যমে প্রতিদিন বারবার জানানো হলেও শহরের মধ্যেই এই ছবি অনেকটাই চিন্তা বাড়িয়ে দিলো চিকিৎসকদের তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না।

Published by: Arka Deb
First published: May 5, 2020, 7:46 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर