হোম /খবর /দক্ষিণবঙ্গ /
Coronavirus: আজ থেকেই এই শহরে বন্ধ পাইকারি বাজার, মাছ সবজির দাম বাড়ার আশঙ্কা

Coronavirus: আজ থেকেই এই শহরে বন্ধ পাইকারি বাজার, মাছ সবজির দাম বাড়ার আশঙ্কা

বাজারে ভিড় বাড়ছে। তাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব হচ্ছে না। তাই করোনা ভাইরাস থেকে দূরে থাকতে পাইকারি বাজার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

  • Last Updated :
  • Share this:
#বর্ধমান: আজ অর্থাৎ বুধবার থেকে বর্ধমানে বন্ধ হয়ে গেল মাছ ও সবজির পাইকারি বাজার। করোনা পরিস্থিতি ও লক ডাউনের জেরে এদিন থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য মাছ ও সবজির পাইকারি বাজার বন্ধ থাকবে বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। এর ফলে শহরে মাছ ও সবজিতে টান পড়বে বলেই মনে করছেন বাসিন্দারা। এমনিতেই খন্ডঘোষে করোনা আক্রান্তের হদিশ মেলার পর রায়না খন্ডঘোষ থেকে বর্ধমান শহরে মাছ ও সবজির যোগান কমে গিয়েছে। এরপর পাইকারি বাজারও বন্ধ হয়ে গেলে মাছের দেখা মিলবে না বলেই আশঙ্কা করছেন বাসিন্দারা। পাইকারি ব্যবসায়ীদের এই সিদ্ধান্তের জেরে গতকাল থেকেই শহরে মাছ ও সবজির দাম চড়তে শুরু করেছে।পূর্ব বর্ধমান চেম্বার অফ ট্রেডার্সের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বুধবার অর্থাৎ ২২ এপ্রিল থেকে বর্ধমানের রানিগঞ্জ বাজার ও তেঁতুল তলা বাজারের সব পাইকারি ফল, সবজি ও মাছ বাজার বন্ধ থাকবে। পাইকারি ব্যবসায়ীদের বক্তব্য, এমনিতেই করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের আশঙ্কায় বেশ কিছু বাজার অন্যত্র সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। কিছু বাজার বন্ধও হয়ে গিয়েছে। তার ফলে রানিগঞ্জ বাজার ও তেঁতুল তলা বাজারে ভিড় বাড়ছে। তাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা সম্ভব হচ্ছে না। তাই করোনা ভাইরাস থেকে দূরে থাকতে পাইকারি বাজার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।পূর্ব বর্ধমান চেম্বার অফ ট্রেডার্সের সাধারণ সম্পাদক চন্দ্র বিজয় যাদব বলেন, নদীয়া, মুর্শিদাবাদ, মেদিনীপুর থেকে প্রচুর সবজি চলে আসছে। অথচ ক্রেতা না থাকায় তার দাম নেই। অনেক সামগ্রী অবিক্রিত থেকে যাচ্ছে। অনেকেই দাম মেটাতে পারছেন না। তার ওপর দিনের পর দিন ভিড় বাড়ছে। অনেকেই কাজ হারিয়ে সবজি বা মাছ বিক্রি করছেন। শেষ রাত থেকে হাজারে হাজারে মানুষ ভিড় করছেন। কে কোথা থেকে আসছেন, তাঁর দেহে করোনার সংক্রমণ আছে কিনা কিছুই বুঝতে পারছি না। তাই ঝুঁকি না নিয়ে বুধবার থেকে সব ধরনের পাইকারি বাজার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিচ্ছি আমরা।লক ডাউনের জেরে অনেকেই বাড়ির দরজায় সবজি বা মাছ বিক্রেতাদের কাছ থেকে সেসব সামগ্রী কিনছিলেন। এরপর থেকে সেসব মিলবে কিনা তা বুঝে উঠতে পারছেন না অনেকেই। কিছু কেমন সবজি মাছ মিললেও তার দাম আকাশ ছোঁয়া হতে পারে বলেও আশঙ্কা করছেন অনেকে। পাইকারি বাজার বন্ধ থাকার খবর মুখে মুখে শহরজুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে। তার জেরে দাম বেড়েছে আলু পেঁয়াজ সহ শাক সবজির। এক ধাক্কায় আলুর দাম সাত টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। আঠারো টাকা কেজির আলু বিক্রি হচ্ছে পঁচিশ টাকা কেজি দরে। পেঁয়াজের দাম কুড়ি টাকা থেকে বেড়ে তিরিশ টাকা হয়ে গিয়েছে।Saradindu Ghosh
Published by:Elina Datta
First published:

Tags: Corona, Corona outbreak, Corona state lock down, Coronavirus, COVID-19