corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনা আবহেই ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদ, হাতে ব্যানার-ফেস্টুন, টানা দেড় ঘন্টা স্কুলের সামনে অভিভাবকদের বিক্ষোভ

করোনা আবহেই ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদ, হাতে ব্যানার-ফেস্টুন, টানা দেড় ঘন্টা স্কুলের সামনে অভিভাবকদের বিক্ষোভ

রাজ্যে লকডাউন শুরু হওয়ার পরপরই রাজ্যের বেসরকারি স্কুলগুলি যাতে ফি বৃদ্ধি না করে তার জন্য আবেদন রেখেছিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা আবহেই সোমবার দক্ষিণ কলকাতার এক বেসরকারি স্কুলের অভিভাবকরা ফি বৃদ্ধির প্রসঙ্গ তুলে বিক্ষোভ দেখালেন। সামাজিক দূরত্ব বিধি মেনেই জি ডি বিড়লা স্কুলের অভিভাবকরা হাতে প্ল্যাকার্ড-ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে লকডাউন সময় কেন একাধিক ফি নেওয়া হচ্ছে তার প্রসঙ্গ তুলে বিক্ষোভ দেখান। মূলত স্কুলের পেরেন্টস অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে এদিনের বিক্ষোভ দেখানো হয় দেড় ঘণ্টা ধরে। তাদের অভিযোগ লকডাউনের সময় ও স্কুল কর্তৃপক্ষ এমন কিছু কিছু ফি নিয়েছে যেগুলি প্রাসঙ্গিক ছিল না। স্কুলের সঙ্গে অবিলম্বে সামনাসামনি বৈঠকের দাবিও রাখা হয়েছে অভিভাবকদের এই অ্যাসোসিয়েশনের তরফে। এর পাশাপাশি স্কুলকে স্যানিটাইজার এবং যাবতীয় নিরাপত্তা বিধি ও স্বাস্থ্যবিধি কার্যকর করার আশ্বাসও স্কুলের তরফে চেয়েছেন অভিভাবকদের এই অ্যাসোসিয়েশন।

রাজ্যে লকডাউন শুরু হওয়ার পরপরই রাজ্যের বেসরকারি স্কুলগুলি যাতে ফি বৃদ্ধি না করে তার জন্য আবেদন রেখেছিলেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। শিক্ষামন্ত্রীর আবেদনের বেসরকারি স্কুলগুলোতে সাড়া না পাওয়ায় স্কুল শিক্ষা দফতর কার্যত নির্দেশিকা জারি করে বেসরকারি স্কুল গুলোকে। নির্দেশিকা স্পষ্ট ভাবে জানানো হয় যাতে বেসরকারি স্কুলগুলি লকডাউন পরিস্থিতিতে কোনভাবেই ফি বৃদ্ধি না করেন। তবুও কলকাতা সহ রাজ্যের বেশ কয়েকটি বেসরকারি স্কুল ফি বৃদ্ধির সিদ্ধান্তে অনড় থাকেন। এমনকি স্কুল শিক্ষা দফতরের তরফের নির্দেশিকা জারি হওয়ার পরেও কয়েকটি বেসরকারি স্কুল তাদের ফি বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসেননি। কলকাতার একটি স্কুলের ক্ষেত্রে ফি বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়ে ইতিমধ্যেই অভিভাবকরা কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন। শুধু তাই নয় লকডাউন চলাকালীন একাধিক স্কুল বাস ভাড়া থেকে শুরু করে ল্যাবরটরি ফি সহ কিছু খাতে টাকা নিচ্ছিলেন যা নিয়েও অসন্তোষ প্রকাশ করেন অভিভাবকরা।

শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় থেকে শুরু করে স্কুল শিক্ষা সচিব একাধিক জায়গায় বিভিন্ন স্কুলের অভিভাবকরা ই-মেইল মারফত অভিযোগ পর্যন্ত জানায়। যদিও সেই অভিযোগগুলি অবশ্য এখনো কোনো সুরাহা হয়নি বলেই স্কুল শিক্ষা দফতর সূত্রে খবর। তবে রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতরের নির্দেশিকা জারির পরপরই বিভিন্ন জেলার স্কুল বিদ্যালয় পরিদর্শকরা কোন কোন খাতে এই লকডাউন চলাকালীন বাড়িয়েছে তার রিপোর্ট নেন বেসরকারি স্কুলগুলোর থেকে। শুধু তাই নয় স্কুল শিক্ষা দফতরের নির্দেশিকাকে মেনে চলার কথা ও জেলা বিদ্যালয় পরিদর্শক জেলাগুলির বিভিন্ন বেসরকারি স্কুল কর্তৃপক্ষ আবেদন হিসেবে রাখে।

তারপরেও একাধিক স্কুল ফি বৃদ্ধির সিদ্ধান্তে অনড় এবং তার সঙ্গে এই একাধিক খাতে টাকা নিয়ে যাওয়ার অটল থাকায় এবার দক্ষিণ কলকাতার এক বেসরকারি স্কুলের অভিভাবক অ্যাসোসিয়েশন বিক্ষোভ করলেন সোমবার। সোমবার সকাল সাড়ে দশটা থেকে প্রায় বারোটা পর্যন্ত হাতে ব্যানার-ফেস্টুন নিয়ে স্কুলের সামনেই সোশ্যাল ডিস্ট্যান্স মেনেই বিক্ষোভ দেখালেন এই স্কুলের কয়েকজন অভিভাবক। গত তিন মাসে একাধিক খাতে যেভাবে টাকা নেওয়া হয়েছে তা প্রত্যাহার করার আবেদনসহ অবিলম্বে স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে অভিভাবকদের আলোচনা করার কথা দাবি হিসেবে রাখেন অভিভাবকরা। যদিও অভিভাবকদের এই অবস্থান বিক্ষোভের প্রেক্ষিতে স্কুল কর্তৃপক্ষের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

Somraj Bandopadhyay

Published by: Elina Datta
First published: June 1, 2020, 8:20 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर