Coronavirus Vaccine Registration: ১৮ থেকে ৪৪-এর মধ্যে ভ্যাকসিন নিতে গেলে মানতেই হবে এই শর্ত, জানিয়ে দিল কেন্দ্র

Coronavirus Vaccine Registration: ১৮ থেকে ৪৪-এর মধ্যে ভ্যাকসিন নিতে গেলে মানতেই হবে এই শর্ত, জানিয়ে দিল কেন্দ্র

প্রতীকী ছবি৷

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণ এ দিন চিঠি লিখে বিভিন্ন রাজ্যের স্বাস্থ্য সচিবদের এই এই নির্দেশের কথা জানিয়েছেন৷

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: অনলাইন রেজিস্ট্রেশনের (Online Registration for Covid 19 Vaccine) মাধ্যমে অ্যাপয়েনমেন্ট করিয়ে তবেই ভ্যাকসিন নিতে পারবেন ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সিরা৷ এ দিন এ কথা জানিয়ে দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার৷ প্রসঙ্গত, আগামী ১ মে থেকে ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে প্রত্যেকেই ভ্যাকসিন পাবেন৷ তবে বর্তমানে ৪৫ বছরের উপরে যাঁদের ভ্যাকসিন দেওয়া হচ্ছে, তাঁরা চাইলে অনলাইন রেজিস্ট্রেশন না করিয়েও টিকাকরণ কেন্দ্রে গিয়ে ভ্যাকসিন নিতে পারছেন৷ কিন্তু ১৮ থেকে ৪৪ বছর বয়সিদের ক্ষেত্রে অনলাইন রেজিস্ট্রেশন বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে৷

    কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব রাজেশ ভূষণ এ দিন চিঠি লিখে বিভিন্ন রাজ্যের স্বাস্থ্য সচিবদের এই এই নির্দেশের কথা জানিয়েছেন৷ ১৮ বছরের ঊর্ধ্বে যাঁরা ভ্যাকসিন নিতে চান, তাঁরা ২৮ এপ্রিল থেকেই CoWin ওয়েবসাইট বা Arogya Setu অ্যাপে নিজেদের নাম নথিভুক্ত করতে পারবেন৷ এর পাশাপাশি, ৪৫ বছরের উপরে প্রত্যেক নাগরিক, স্বাস্থ্যকর্মী সহ করোনা যোদ্ধাদের টিকা দেওয়ার যে প্রক্রিয়া কেন্দ্রীয় সরকার চালাচ্ছে, তা চলবে৷

    আগামী ১ মে থেকে বেসরকারি হাসপাতালে থেকে টিকা দেওয়ার খরচও বাড়বে৷ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব নির্দেশ দিয়েছেন, বেসরকারি হাসপাতালগুলির কাছে বর্তমানে সরকারের দেওয়া ভ্যাকসিনের যে স্টক রয়েছে, তা ৩০ এপ্রিলের মধ্যে শেষ না হলে ফেরত দিয়ে দিতে হবে৷

    কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য সচিব আরও জানিয়েছেন, বেসরকারি হাসপাতালগুলি টিকা দেওয়ার জন্য কত টাকা সাধারণ মানুষের থেকে নেবে, তা কো উইন পোর্টালে তাদেরকে জানিয়ে দিতে হবে৷ যাতে অনলাইন বুকিং করার সময় খরচ দেখে নিজের পছন্দ অনুযায়ী টিকাকরণ কেন্দ্রকে বেছে নিতে পারেন ভ্যাকসিন গ্রহীতা৷

    সিরাম ইনস্টিটিউট-এর তরফে জানানো হয়েছে, তারা রাজ্য সরকারগুলিকে কোভিশিল্ড ভ্যাকসিনের প্রতিটি ডোজ বিক্রি করবে ৪০০ টাকায়৷ আর বেসরকারি হাসপাতালের থেকে নেওয়া হবে ৬০০ টাকা৷ অন্যদিকে, ভারত বায়োটেক জানিয়েছে, তারা রাজ্য সরকারগুলিকে কোভ্যাক্সিন বিক্রি করবে ৬০০ টাকা প্রতি ডোজ হিসেবে৷ আর বেসরকারি হাসপাতালের ক্ষেত্রে তা হবে ১২০০ টাকা৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: