সাতসকালে বাজারে হাজির নুসরত! প্রিয় অভিনেত্রীকে সামনে পেয়ে কী করলেন ভক্তরা

সুস্থ থাকার পাঠ দিলেন নুসরত

চেতলার সিআইটি মার্কেটের এসে সবজি কিনতে আসা ক্রেতাদের সোশ্যাল ডিসটেন্স বজায় রাখার আর্জি রাখেন অভিনেত্রী।

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা রাজ্যে বাড়ায় আতঙ্কিত কলকাতাবাসী। তারই মাঝে শনিবার সকালে অন্য ছবি ধরা পরল দক্ষিণ কলকাতার চেতলার সিআইটি মার্কেটে। শনিবার সাতসকালেই এই সিআইটি মার্কেটের হাজির অভিনেত্রী ও সাংসদ নুসরাত জাহান। সাত সকালে বাজারে অভিনেত্রীকে পেয়ে কিছুটা হতচকিয়ে যান বাজার করতে আসা ক্রেতারা।

মাস্ক, গ্লাভস পরে আসায় প্রথমে অভিনেত্রীকে চিনতে পারেননি অনেকেই। পরে অবশ্য বুঝতে পারেন, অভিনেত্রী বাজারে চলে এসেছে। বাজারে এসে দূরত্ব বজায় রাখা হচ্ছে নাকি তা খতিয়ে় দেখেন সাংসদ- অভিনেত্রী।

সবজি বিক্রেতা  থেকে শুরু করে মাংস বিক্রেতা প্রত্যেকটি দোকানেই তখন ক্রেতাদের ভিড়। বেশিরভাগ দোকানেই সোশ্যাল ডিসটেন্স বজায়় রাখা হচ্ছে না। তা দেখেই অভিনেত্রী স্বয়ং ক্রেতাদের সোশ্যাল ডিস্ট্যান্স  বজায় রাখার আর্জি জানালেন।

শুধু সোশ্যাল ডিস্ট্যান্স বজায় রাখাই নয় বিক্রেতাদের থেকে দামের  খোঁজখবরও নিয়ে নেন অভিনেত্রী সাংসদ। পরে তিনি বলেন "বাজারে এসেছি খোঁজখবর নিতে ও দেখতে সোশ্যাল ডিস্ট্যান্স বজায় রাখা হচ্ছে নাকি। যেখানেে যেখানে দেখছি ক্রেতাদের ভিড় সেখানে দূরত্ব বজায় রাখার  পরামর্শ দিয়েছি।" তবে সবকিছুর দাম ঠিকঠাকই আছে বলে জানিয়েছেন নুসরাত জাহান।

দেশে লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তেতের সংখ্যা। এরই মাঝে দেশজুড়ে় চলছে লকডাউন। এ রাজ্যে ৩১ মার্চ পর্যন্ত লকডাউন জারি করা হয়েছে। তবে লকডাউন এর এর আওতার বাইরে  রাখা হয়েছে বাজারগুলিকে। কিন্তু বাজারে যাতে একাধিক জমায়েত না হয় তার জন্য মুখ্যমন্ত্রী ইতিমধ্যেই আবেদন রেখেছেন। শুধু তাই নয় পুলিশের তরফেও সোশ্যাল ডিস্ট্যান্স বজায় রাখার জন্য চক দিয়ে দাগ কেটে নির্দিষ্ট দূরত্ব বজায় রাখার কথাও উল্লেখ করা হয়েছে। কিন্তু  দূরত্ব বজায় রাখার জন্য  চক দিয়ে দাগকাটা থাকলেও একাধিক জায়গায় তা মানা হচ্ছে না।

শনিবার সাতসকালেই তারই নজরদারিতে চলে আসেন অভিনেত্রী সংসদ নুসরাত জাহান। চেতলার সিআইটি মার্কেটের এসে সবজি কিনতে আসা ক্রেতাদের সোশ্যাল ডিসটেন্স বজায় রাখার আর্জি রাখেন অভিনেত্রী। তবে অভিনেত্রী পাশাপাশি বারবার কলকাতা কর্পোরেশনের তরফেও একাধিকবার মাইকে ঘোষণা করা হলেও সোশ্যাাল ডিস্ট্যান্স বেশিরভাগ জায়গাতেই বজায় রাখা হচ্ছে না। তাই প্রশ্ন উঠছে কবে আসবে সচেতনতা?

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়।

Published by:Arka Deb
First published: