corona virus btn
corona virus btn
Loading

নমুনা পরীক্ষায় বসলো মেশিন, সম্মতির অপেক্ষায় বর্ধমান মেডিকেল

নমুনা পরীক্ষায় বসলো মেশিন, সম্মতির অপেক্ষায় বর্ধমান মেডিকেল

মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা পরীক্ষার অনুমোদন দেবে বলে জেলা প্রশাসন আশা করছে।

  • Share this:

#বর্ধমান: করোনার  নমুনা পরীক্ষার জন্য আর এক ধাপ এগুলো বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।  বুধবার স্বাস্থ্য দপ্তরের ইঞ্জিনিয়াররা বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা পরীক্ষার পরিকাঠামো খতিয়ে দেখেন। তাঁরা বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রিয়েল টাইম আর টি পিসিআর মেশিন বসান।  এরপর তারা আইসিএমআরে কে এই সংক্রান্ত  রিপোর্ট জমা দেবে।  সেই রিপোর্টের ভিত্তিতেই আইসিএমআর বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা পরীক্ষার অনুমোদন দেবে বলে জেলা প্রশাসন আশা করছে।

এ রাজ্যে করোনার সংক্রমণ শুরু হবার পর থেকেই বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আইসিএমআর স্বীকৃত টেস্টিং ল্যাব তৈরি হবে বলে প্রশাসনিক মহলের খবর মিলেছিল। এতদিন পরও এই হাসপাতলে সেই সেই পরিকাঠামো কেন গড়ে উঠল না তা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছে দক্ষিণবঙ্গের বাসিন্দারা। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসন জানিয়েছে,  করোনা পরীক্ষার জন্য রিয়েল টাইম আর টি পিসিআর মেশিন দরকার। সেই মেশিন ছাড়া করোনা পরীক্ষা সম্ভব নয়। বর্ধমান মেডিকেল কলেজের হাতে এই মেশিন ছিল না। বাইরে থেকেও তা জোগাড় করা সম্ভব হয়নি। এরপর বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের জুলজি বিভাগ সেই মেশিন রয়েছে বলে খবর মেলে।

এরপরই জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের সঙ্গে ওই মেশিন হাতে পেতে যোগাযোগ করা হয়। বিশ্ববিদ্যালয় এই পরিস্থিতিতে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালকে ওই যন্ত্র ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে।

সেই মেশিন পাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত হতেই আইসিএমআরের সঙ্গে যোগাযোগ করে রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তর। এরপর আজ দক্ষিণ 24 পরগনা ও হুগলি থেকে ইঞ্জিনিয়াররা এসে বর্ধমান বিশ্ববিদ্যালয়ের জুলজি বিভাগ থেকে ওই মেশিন খুলে তা বর্ধমান মেডিকেলে বসান। সেই কাজ সম্পূর্ণ হয়েছে বলে ইঞ্জিনিয়াররা আইসিএমআর কে রিপোর্ট দিতে চলেছে।  এরপর  আ আইসিএমআরের  অনুমোদন পেতে আর কোনো বাধা থাকল না বলেই মনে করছে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর। ইতিমধ্যেই পরীক্ষার জন্য জেলা স্বাস্থ্য দপ্তরের হাতে 200 কিট এসে পৌঁচেছে। পরীক্ষা শুরু হলে আরও কিট আসবে বলে আশাবাদী জেলা প্রশাসন।

Saradindu Ghosh

Published by: Elina Datta
First published: April 29, 2020, 11:56 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर