করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউনে পয়লা বৈশাখে শুনসান তমলুকের মা বর্গভীমার মন্দিরও !

লকডাউনে পয়লা বৈশাখে শুনসান তমলুকের মা বর্গভীমার মন্দিরও !

যারাই আসছেন, মন্দিরে দূর থেকে কপালে হাত ঠেকিয়ে প্রনাম জানিয়ে যাচ্ছেন মা বর্গভীমাকে। কামনা জানিয়ে মা-কে বলে যাচ্ছেন - "মা গো মা, বিপদমুক্ত কর সবাইকে।"

  • Share this:

#তমলুক: আজ, মঙ্গলবার পয়লা বৈশাখের দিনে নিত্যপুজো হলেও পুণ্যার্থীদের মন্দিরে প্রবেশ নিষেধ থাকায় ৫১ সতীপীঠের অন্যতম তমলুকের বর্গভীমা মন্দিরও শুনসান চেহারায়।

ফাঁকা মন্দির চত্বর। আনাগোনা নেই ভক্তদের। যে ছবি প্রতি বছর আজকের দিনে দেখা যায়, মানুষের সেই ভিড়ভাট্টার দেখা নেই। বলা যায়, লকডাউনের কারনে পুরো শুনসান তমলুকের বর্গভীমা মন্দির চত্বর।

আসলে সতীপীঠের অন্যতম তমলুকের বর্গভীমা মন্দিরে প্রায় তিন সপ্তাহ ধরেই বন্ধ রয়েছে ভোগ ও পুষ্পাঞ্জলি। মন্দিরে তাই ভক্তদের আসা যাওয়াও বন্ধ হয়েছে অনেক দিন যাবত। তারই মধ্যে আজ নতুন বাংলা বছরের প্রথম দিন, পয়লা বৈশাখ। আজকের দিনে ভক্ত আর পূণ্যার্থীদের ভিড়ে বর্গভীমা মন্দিরে তিল ধারনের জায়গা থাকে না। কিন্তু করোনা আর লকডাউনের জেরে এবারের ছবিটা অন্যরকম হয়ে দাঁড়িয়েছে। যেখানে ভক্ত নেই, ভোগ নেই। অঞ্জলি দেওয়ারও ব্যস্ততা নেই। থাকার মধ্যে আছে নিত্য পুজোপাঠ।

পুজো করছেন পুরোহিতরা। কামনা করছেন- দ্রুত যেন খারাপ সময় কেটে যাক! শুধু তমলুক কিংবা আশপাশের অঞ্চল নয়, জেলার বিভিন্ন এলাকা এবং দুর-দুরান্ত থেকে মানুষজন আজকের এই পয়লা বৈশাখের দিনে পুজো দিতে জড়ো হন বর্গভীমা মন্দিরে। এবার সেই ছবি পুরোপুরি পাল্টে গিয়েছে। আজ নতুন বছরের প্রথম দিন পুরো ফাঁকা মন্দির চত্বর। তারই মধ্যে যারাই আসছেন, মন্দিরে দূর থেকে কপালে হাত ঠেকিয়ে প্রনাম জানিয়ে যাচ্ছেন মা বর্গভীমাকে। কামনা জানিয়ে মা-কে বলে যাচ্ছেন - "মা গো মা, বিপদমুক্ত কর সবাইকে।"

SUJIT BHOWMIK

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: April 14, 2020, 1:31 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर