• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • করোনা আতঙ্কে লাইফ জ্যাকেটে ‘না’,জ্যাকেট ব্যবহারে সংক্রমণের আশঙ্কা

করোনা আতঙ্কে লাইফ জ্যাকেটে ‘না’,জ্যাকেট ব্যবহারে সংক্রমণের আশঙ্কা

আতঙ্কের নাম করোনা। নদীর ঘাটে জ্বলজ্বল করছে, নো মাস্ক, নো পারাপার।

আতঙ্কের নাম করোনা। নদীর ঘাটে জ্বলজ্বল করছে, নো মাস্ক, নো পারাপার।

আতঙ্কের নাম করোনা। নদীর ঘাটে জ্বলজ্বল করছে, নো মাস্ক, নো পারাপার।

  • Share this:

    #খানাকুল: ভরা বর্ষায় ফুঁসছে দামোদর, রূপনারায়ণ। নদী পারাপারে লাইফ জ্যাকেট মাস্ট।কিন্তু করোনা আতঙ্কে জীবনের ঝুঁকি থাকা সত্ত্বেও অনেকেই লাইফ জ্যাকেট ছাড়াই নদী পারাপার করছেন। তাঁদের যুক্তি, একই জ্যাকেট বার বার ব্যবহারে করোনা সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা থেকে যায়। হুগলির খানাকুলের সব ফেরিঘাটেই একই ছবি।।

    আতঙ্কের নাম করোনা। নদীর ঘাটে জ্বলজ্বল করছে, নো মাস্ক, নো পারাপার। নৌকায় যাঁরা উঠছেন,সকলের মুখেই মাস্ক। কিন্তু গায়ের নেই লাইফ জ্যাকেট। খানাকুল ২ ব্লকের উপর দিয়ে বয়ে গেছে দামোদর, মুন্ডেশ্বরী ও রুপনায়াণ। কয়েকদিনের লাগাতার বৃষ্টিতে বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে জল।

    তার মধ্যেই লাইফ জ্যাকেট ছাড়াই এক প্রান্ত থেকে অন্য প্রান্তে পারাপার চলছে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে। ফেরিঘাটে লাইফ জ্যাকেটের ব্যবস্থা থাকলেও, বেশিরভাগ যাত্রীই তা নিতে নারাজ। যাত্রীদের যুক্তি, একই জ্যাকেট অনেকেই ব্যবহার করেন। ফলে করোনা সংক্রমণ ছড়ানোর আশঙ্কা থাকে। জ্যাকেট স্যানিটাইজের দাবি তুলেছেন তাঁরা।

    খানাকুলে তেরটি ফেরিঘাটের একই ছবি। ফেরিঘাট কর্তৃপক্ষ মেনে নিচ্ছেন সংক্রমণের ভয়ে অনেকেই লাইফ জ্যাকেট পরছেন না। এই পরিস্থিতিতে জ্যাকেটগুলি স্যানিটাইজ করার ব্যবস্থা করা হচ্ছে। তবে এই সিদ্ধান্ত নিতে এত দেরি কেন হল, তার উত্তর নেই কর্তৃপক্ষের কাছে। আশ্বাসে অবশ্য তেমন ভরসা নেই। করোনা আতঙ্কের জেরে লাইফ জ্যাকেট ছাড়াই খানাকুলের বিভিন্ন নদীতে ঝুঁকির পারাপার চলছেই।

    Published by:Pooja Basu
    First published: