corona virus btn
corona virus btn
Loading

উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে আর করোনা চিকিৎসা নয়, COVID-19 পজিটিভের চিকিৎসা হবে মাটিগাড়ার হাসপাতালে

উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে আর করোনা চিকিৎসা নয়, COVID-19 পজিটিভের চিকিৎসা হবে মাটিগাড়ার হাসপাতালে

শুক্রবার দুপুর ১২টা থেকে কোভিড পজিটিভ রোগী আর ভর্তি করা হবে না এখানে। পজিটিভ রোগীদের ভর্তি করা হবে কোভিড স্পেশাল হাসপাতালে।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: উত্তরবঙ্গে করোনা মোকাবিলায় নয়া উদ্যোগ রাজ্যের। আগামিকাল, শুক্রবার থেকে আর COVID-19 পজিটিভ রোগীর চিকিৎসা হবে না উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। শুক্রবার দুপুর ১২টা থেকে কোভিড পজিটিভ রোগী আর ভর্তি করা হবে না এখানে। পজিটিভ রোগীদের ভর্তি করা হবে কোভিড স্পেশাল হাসপাতালে।

মাটিগাড়ায় রয়েছে এই হাসপাতাল। এই মূহূর্তে ওই হাসপাতালে ১১ জন চিকিৎসাধীন। করোনার উপসর্গ নিয়ে আসা রোগীদের প্রথমে ভর্তি করা হবে প্রধাননগরের একটি হাসপাতালে। সেখানকার রোগীদের সোয়াবের নমুনা পাঠানো হবে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালের ল্যাবে। রিপোর্ট পজিটিভ হলে সংশ্লিষ্ট রোগীকে ভর্তি করা হবে মাটিগাড়ার কোভিড স্পেশাল হাসপাতালে। আর রিপোর্ট নেগেটিভ এলে নিয়ে আসা হবে উত্তরবঙ্গ মেডিকেলে।

কোভিড-১৯ নিয়ে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালের চিকিৎসকদের নিয়ে একটি নতুন কমিটি গঠন করা হবে। ওই কমিটির সদস্যরা কোন রোগী কোথায় ভর্তি হবে তা ঠিক করবেন। কমিটির সদস্যরা নিজেরাই হোয়াটস এপে তথ্য আদান প্রদান করবেন। মেডিক্যালে অন্যান্য অনেক রোগে আক্রান্ত রোগী চিকিৎসাধীন। তাদের মধ্যে যাতে করোনার সংক্রমণ ছড়িয়ে না পড়ে তাই এই সিদ্ধান্ত। আজ, বৃহস্পতিবার উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে পৌঁছন রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের কোভিড স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের দুই চিকিৎসক অভিজিৎ চৌধুরী এবং গোপাল কৃষ্ণ ঢালি।

মেডিকেলের পরিকাঠামো ঠিক আছে বলে জানান বিশিষ্ট চিকিৎসক অভিজিৎ চৌধুরী। তিনি জানান, আগামী দু'সপ্তাহ উত্তরবঙ্গের করোনা নিয়ে কো-অর্ডিনেটর হিসেবে কাজ করবেন চিকিৎসক গোপাল কৃষ্ণ ঢালি। মেডিক্যালের পরিকাঠামো খতিয়ে দেখার পর বৈঠকে বসেন উত্তরকণ্যায়। সেখানে উপস্থিত ছিলেন উত্তরবঙ্গের ডিভিশনাল কমিশনার, দার্জিলিংয়ের জেলাশাসক, মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক, উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালের অধ্যক্ষ, সুপার-সহ শিলিগুড়ির একাধীক চিকিৎসক। বিশিষ্ট চিকিৎসক অভিজিৎ চৌধুরী জানান, করোনা নিয়ে অহেতুক গুজব ছড়াচ্ছে। তা বন্ধ করতে হবে। এখনও এর কোনও ওষুধ বের হয়নি। এমনকী, ভেন্টিলেশনের প্রয়োজন হয় না ৮০ শতাংশ রোগীর। তবুও রাজ্যে কোভিড স্পেশাল হাসপাতাল তৈরি করা হয়েছে। এমনকী, ভেন্টিলেশনেরও ব্যবস্থা রয়েছে। তবে অযথা করোনা নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।

Partha Pratim Sarkar

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: April 9, 2020, 8:37 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर