করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

শিলিগুড়ি আক্রান্তের গ্রাফ অপরিবর্তিত, কন্টেইনমেন্ট পরিধি বাড়ল

শিলিগুড়ি আক্রান্তের গ্রাফ অপরিবর্তিত, কন্টেইনমেন্ট পরিধি বাড়ল

আরও কিছুদিন পুরসভায় কড়াভাবে লকডাউন চালু থাকলে ভালো হত বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞরা।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: শিলিগুড়ি পুরসভা ও দার্জিলিং জেলায় আক্রান্তের গ্রাফ অপরিবর্তিত। টানা ১৪ দিনেক লকডাউনেও গ্রাফ নিম্নমুখী হয়নি। হবেই বা কী উপায়ে! রাজ্যজুড়ে লকডাউন মেনেছে শহরবাসী।

কিন্তু পুরসভায় জেলা প্রশাসনের ডাকা লকডাউনে দিব্যি রাস্তায় ভিড় লক্ষ্য করা গিয়েছে। অনেকেই অহেতুক বাড়ির বাইরে ঘোরাফেরা করেছেন। আর তাই জন্যেই গ্রাফ অপরিবর্তিত। গতকালও নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৬ জন। গত ২ দিনের তুলনায় গ্রাফ কিছুটা নেমেছে। এর মধ্যে পুরসভা এলাকায় আক্রান্ত ২৭ জন, বাকিটা গ্রামীন এলাকায়।

আক্রান্তের তালিকায় রয়েছেন পুরসভার প্রশাসক মণ্ডলীর সদস্য শঙ্কর ঘোষও। তিনি পুরসভার স্বাস্থ্য বিভাগের প্রাক্তন মেয়র পারিষদ সদস্য। প্রথম সারির যোদ্ধা। প্রথম দিন থেকেই করোনার বিরুদ্ধে লড়েছেন। এর আগে প্রশাসক মণদলীর চেয়ারম্যান সহ আরো দুই সদস্য আক্রান্ত হন। এখন তাঁরা সুস্থ হয়ে ঘিরে ফিরেছেন। এই তালিকায় গতকাল যুক্ত হয়েছে আরো দুই পুলিশ কর্মীও। ওঁরাও প্রথম সারির যোদ্ধা।

লকডাউন এখন আর নেই পুরসভা এলাকায়। তবে কনটেইনমেন্ট জোন চিহ্নিত করেছে জেলা প্রশাসন। পুরসভার ৬টি ওয়ার্ডকে কন্টেইনমেন্ট জোন হিসেবে ঘোষণা করা হয়েছে। পুরসভার ৪, ৫, ৭, ৮, ৯ এবং ২৪ নং ওয়ার্ডের একাংশ কনটেইনমেন্ট জোন করা হয়েছে। এই এলাকাগুলোয় কড়াকড়ি করা হবে বলে জানিয়েছেন দার্জিলিংয়ের জেলাশাসক এস পুন্নমবালাম। সেইসঙ্গে মাটিগাড়া ১ নং গ্রাম পঞ্চায়েত এলাকাকেও কনটেইনমেন্ট জোন করা হয়েছে। জেলায় এখোনো পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ২১০০-এর কিছু বেশী। এর মধ্যে শিলিগুড়িতেই সংখ্যাটা ১৭০০ ছুঁইছুঁই! মৃত্যুর সংখ্যাও থামানো যাচ্ছে না। গতকাল ৫ আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে। এর মধ্যে ২ জন পুরসভার বাসিন্দা। স্বাভাবিকভাবেই উদ্বেগ বাড়ছে শহরাঞ্চলে। আর আজ থেকে আনলক ৩ শুরু হল। আরও বেশ কিছু পরিষেবা চালু হল। ভিড়ও বাড়বে।

তাই এই অবস্থায় আরও কিছুদিন পুরসভায় কড়াভাবে লকডাউন চালু থাকলে ভালো হত বলে মনে করছে বিশেষজ্ঞরা।

Published by: Arka Deb
First published: August 1, 2020, 5:45 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर