বর্ধমানে একদিনে আক্রান্ত ছাব্বিশ! জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯ হাজার ছাড়াল

বর্ধমানে একদিনে আক্রান্ত ছাব্বিশ! জেলায় আক্রান্তের সংখ্যা ৯ হাজার ছাড়াল

দীপাবলির পর সংক্রমণ বাড়তে থাকায় উদ্বেগ বাড়ছে শহরের বাসিন্দাদের মধ্যে। প্রতিদিনই করোনা আক্রান্তের হদিশ মেলায় চিন্তা বাড়ছে।

দীপাবলির পর সংক্রমণ বাড়তে থাকায় উদ্বেগ বাড়ছে শহরের বাসিন্দাদের মধ্যে। প্রতিদিনই করোনা আক্রান্তের হদিশ মেলায় চিন্তা বাড়ছে।

  • Share this:

#বর্ধমান: করোনার প্রকোপ কি কমবে না! এমনই প্রশ্ন তুলছেন বর্ধমান শহরের বাসিন্দারা। নতুন করে বর্ধমান শহরে গত চব্বিশ ঘন্টায় আরও ছাব্বিশ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। দীপাবলির পর সংক্রমণ বাড়তে থাকায় উদ্বেগ বাড়ছে শহরের বাসিন্দাদের মধ্যে। প্রতিদিনই করোনা আক্রান্তের হদিশ মেলায় চিন্তা বাড়ছে। বাসিন্দারা বলছেন, শহরে সেভাবে করোনার নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে না। তারপরও আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকাযটি সত্যিই উদ্বেগের। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ধীরে ধীরে ঠান্ডা পড়ছে। এই সময় এমনিতেই জ্বর সর্দিতে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থাকে। এই আবহাওয়ায় সংক্রমণ বাড়তে পারে। তাই বাসিন্দাদের স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলা উচিত।সেইসঙ্গে খুব প্রয়োজন ছাড়া বাড়ির বাইরে না বেরোনোই ভালো। জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হতে হলে মাস্কে মুখ ঢাকা বাধ্যতামূলক। সেই সঙ্গে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলা জরুরি।

পূর্ব বর্ধমান জেলায় করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ন হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। এদিন পর্যন্ত এই জেলায়  ৯১০১ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন।তার মধ্যে ৮৪০৩ জন চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে উঠেছেন। বর্তমানে ৫৫৯ জন করোনা আক্রান্ত রয়েছেন। করোনা আক্রান্ত রয়েছেন এমন বাসিন্দাদের বর্ধমানের করোনা হাসপাতাল, কৃষি ভবনে রেখে চিকিৎসা চালানো হচ্ছে। সেই সঙ্গে অনেকে হোম আইসোলেশনেও রয়েছেন। এ দিন পর্যন্ত এই জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ১৩৯জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছে জেলা প্রশাসন।

গত চব্বিশ ঘণ্টায় পূর্ব বর্ধমান জেলায় নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন ৭৮ জন।তাদের মধ্যে ২৬ জনই বর্ধমান শহর এলাকার বাসিন্দা। এছাড়াও কালনা পৌরসভা এলাকায় তিনজন আক্রান্ত হয়েছেন। আউশগ্রাম এক নম্বর ব্লক ও আউশগ্রাম দু'নম্বর ব্লকে তিনজন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। বর্ধমান এক নম্বর ব্লকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন পাঁচ জন। বর্ধমান দু'নম্বর ব্লকে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ছ'জন। জামালপুর ব্লকে একজন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। কালনা এক নম্বর ব্লকে দু'জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। কালনা দু নম্বর ব্লকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন তিনজন। কাটোয়া দু'নম্বর ব্লক একজন আক্রান্ত হয়েছেন। কেতুগ্রাম এক নম্বর ব্লকের আক্রান্ত হয়েছেন দু'জন। খণ্ডঘোষ ব্লকে একজন আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। মন্তেশ্বর ব্লকে আক্রান্ত হয়েছেন তিনজন। মেমারি এক নম্বর ব্লকে চারজন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। মেমারি দু নম্বর ব্লকে দুজন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। মঙ্গলকোট ব্লক নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন তিনজন।

Published by:Arka Deb
First published: