Bizarre: 'সেক্সের জন্য বাড়ি থেকে বেরোতে হবে', কড়া লকডাউনে যুবকের অদ্ভূত দাবি! যা করল পুলিশ...

প্রতীকী ছবি।

'সঙ্গমের (Sex) জন্য বিকেলে বাড়ির বাইরে যেতে হবে। দয়া করে অনুমতি দিন।' লকডাউন (Lockdown) চলায় সম্প্রতি বাড়ি থেকে বাইরে যাওয়ার জন্য এমনই অদ্ভূত এক অনুরোধ আসে পুলিশের কাছে।

  • Share this:

    #কান্নুরঃ 'সঙ্গমের (Sex) জন্য বিকেলে বাড়ির বাইরে যেতে হবে। দয়া করে অনুমতি দিন।' কেরলে (Kerala) লকডাউন (Lockdown) চলায় সম্প্রতি বাড়ি থেকে বাইরে যাওয়ার জন্য এমনই অদ্ভূত এক অনুরোধ আসে পুলিশের (Kerala Police) কাছে। মেসেজ পাওয়ার পরেই ঘটনার তদন্তে নামে পুলিশ। কিছুক্ষণের মধ্যেই খুঁজে বার করা হয় মেসেজের প্রেরককে। এরপর যে ঘটনা সামনে উঠে এসেছে, তাতে পাঠকের চোখ কপালে উঠতে বাধ্য।

    করোনা সংক্রমণে রাশ (COVID-19 restrictions)) টানতে কেরলে লকডাউন জারি করেছে পিনারাই বিজয়ন সরকার। আগামী ২৩ মে পর্যন্ত রাজ্যে লকডাউন চলবে। এমতাবস্থায় বাড়ি থেকে বেরোতে গেলে স্থানীয় থানা থেকে ই-পাস (e-pass) চাইতে হচ্ছে বাইরে যাওয়ার কারণ জানিয়ে। সেইসব কারণ জেনে পুলিশ বিবেচনা করছেন, কাদের বাইরে যেতে দেওয়া একান্ত প্রয়োজন, কাদের প্রয়োজন নেই। সম্প্রতি কেরলের কান্নুরের কান্নাপুরমের ইরিনাভার বাসিন্দা এক যুবক বাইরে যাওয়ার প্রয়োজন ছিল। স্বাভাবিকভাবেই তিনি স্থানীয় থানায় বাইরে যাওয়ার কারণ জানিয়ে ই-পাস দেওয়ার অনুরোধ জানান। সেখানেই বাধে গোল।  যুবক আবেদন জানানোর সময় লিখেছিলেন, তাঁকে 'সেক্স'-র জন্য বাড়ির বাইরে যেতে হবে

    Kerala Kamudi-র রিপোর্টে প্রকাশিত, ভালাপাত্তানাম থানার পুলিশ জানিয়েছে, যুবকের অদ্ভূত আবেদন দেখে তৎক্ষণাৎ তা জানানো হয় অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার অব পুলিশকে (Assistant Commissioner of Police)। তিনি ঘটনাটি খতিয়ে দেখার অনুমতি দেন। কিছুক্ষণের মধ্যেই খোঁজ মেলে মেসেজের প্রেরকের। তাঁকে থানায় নিয়ে যাওয়া হয়। তখন তিনি জানান, সন্ধ্যা ৬টা নাগাদ তাঁর কাজ ছিল, সেটাই তিনি লিখতে গিয়েছিলেন। কিন্তু ভুল করে 'সিক্স'-এর জায়গায় 'সেক্স' শব্দটি লিখে ফেলেছে।  তাড়াতাড়িতে বানান ভুল চোখেও পড়েনি। তাই তিনি যে এত বড় একটা ভুল করে ফেলেছেন, তা বুঝতেও পারেননি। এরপর অবশ্য ওই যুবক তাঁর অনিচ্ছাকৃত ভুলের জন্য ক্ষমা চেয়ে নেন।

    উল্লেখ্য, সম্প্রতি মুখে এবং কপালে ব্রন (Acne Pimples) হওয়ায় এক তরুনী থানায় ই-পাসের জন্য আবেদন জানিয়েছিলেন। সেই  ই-পাসের ছবি ভাইরাল হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: