corona virus btn
corona virus btn
Loading

চাইলেই এড়ানো যেত ১৬ শ্রমিকের মৃত্যু, মহারাষ্ট্র সরকারকে নোটিশ মানবাধিকার কমিশনের

চাইলেই এড়ানো যেত ১৬ শ্রমিকের মৃত্যু, মহারাষ্ট্র সরকারকে নোটিশ মানবাধিকার কমিশনের
দুর্ঘটনাস্থলে পড়ে রয়েছে মৃত শ্রমিকদের সঙ্গে থাকা রুটি৷ PHOTO- FILE

মানবাধিকার কমিশন মনে করিয়ে দিয়েছে, লকডাউনের সময়ে দুঃস্থ এবং অসহায় মানুষের প্রতি আরও সংবেদনশীল হওয়ার জন্য সাম্প্রতিক বেশ কয়েকটি ঘটনায় তারা নির্দেশ দিয়েছে৷

  • Share this:
 

#মহারাষ্ট্র: আগে থেকে পরিযায়ী শ্রমিকদের আশ্রয় এবং দেখভালের ব্যবস্থা করলে ঔরঙ্গাবাদের ঘটনা এড়ানো সম্ভব হতো৷ এমনই মনে করছে জাতীয় মানবাধিকার সংগঠন৷ মহারাষ্ট্রের ঔরঙ্গাবাদের কাছে শুক্রবার সকালে ১৬ জন শ্রমিকের ট্রেনে কাটা পড়ে মৃত্যু হয়{ এই ঘটনায় স্বতঃপ্রণোদিত ব্যবস্থা নিয়ে শুক্রবারই মহারাষ্ট্রের মুখ্যসচিব এবং ঔরঙ্গাবাদের জেলাশাসককে নোটিস পাঠিয়েছে তারা৷ পরিযায়ী শ্রমিক এবং দরিদ্র মানুষের জন্য লকডাউনের সময়ে খাবার, থাকার জায়গা সহ কী কী ব্যবস্থা করা হয়েছে, চার সপ্তাহের মধ্যে সেই তথ্য সহ জবাব তলব করেছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন৷

জাতীয় মানবাধিকার কমিশন মনে করছে, প্রাথমিকভাবে এটি একটি রেল দুর্ঘটনা৷ কারণ যেভাবে রেল লাইনের উপরে শ্রমিকরা শুয়েছিলেন, তা স্বাভাবিক নয়৷

যদিও মানবাধিকার কমিশনের রিপোর্টে স্পষ্ট বলা হয়েছে, যেভাবে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে তা একেবারেই প্রত্যাশিত নয়৷ নোটিসে স্পষ্টই লেখা হয়েছে, যেহেতু ওই শ্রমিকরা বাড়ি ফেরার জন্য কোনও যানবাহন না পেয়েই দীর্ঘ পথ হেঁটে ফেরার সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছিলেন৷ পাশাপাশি, শ্রমিকদের দেখভালের জন্য কোনও ব্যবস্থা না করায় জেলা প্রশাসনের বিরুদ্ধেও গাফিলতির অভিযোগ তোলা হয়েছে৷

মানবাধিকার কমিশন মনে করিয়ে দিয়েছে, লকডাউনের সময়ে দুঃস্থ এবং অসহায় মানুষের প্রতি আরও সংবেদনশীল হওয়ার জন্য সাম্প্রতিক বেশ কয়েকটি ঘটনায় তারা নির্দেশ দিয়েছে৷ তার পরেও এমন দুর্ঘটনায় পরিযায়ী শ্রমিকদের মৃত্যু অত্যন্ত যন্ত্রণাদায়ক বলেই মনে মন্তব্য করেছে মানবাধিকার কমিশন৷

শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেন ধরার জন্য মহারাষ্ট্রের জেলনা থেকে দেড়শো কিলোমিটার পথ পেরিয়ে ভূষাওয়ালের উদ্দেশে হেঁটেই যাচ্ছিল শ্রমিকদের একটি দল৷ মাঝপথে ক্লান্ত হয়ে গিয়ে ঔরঙ্গাবাদের কাছে রেল লাইনের উপরেই ঘুমিয়ে পড়েন তাঁরা৷ শুক্রবার ভোরে একটি মালগাড়ির চাকায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু হয় তাঁদের৷

Published by: Bangla Editor
First published: May 9, 2020, 8:50 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर