• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • চাইলেই এড়ানো যেত ১৬ শ্রমিকের মৃত্যু, মহারাষ্ট্র সরকারকে নোটিশ মানবাধিকার কমিশনের

চাইলেই এড়ানো যেত ১৬ শ্রমিকের মৃত্যু, মহারাষ্ট্র সরকারকে নোটিশ মানবাধিকার কমিশনের

দুর্ঘটনাস্থলে পড়ে রয়েছে মৃত শ্রমিকদের সঙ্গে থাকা রুটি৷ PHOTO- FILE

দুর্ঘটনাস্থলে পড়ে রয়েছে মৃত শ্রমিকদের সঙ্গে থাকা রুটি৷ PHOTO- FILE

মানবাধিকার কমিশন মনে করিয়ে দিয়েছে, লকডাউনের সময়ে দুঃস্থ এবং অসহায় মানুষের প্রতি আরও সংবেদনশীল হওয়ার জন্য সাম্প্রতিক বেশ কয়েকটি ঘটনায় তারা নির্দেশ দিয়েছে৷

  • Share this:

    #মহারাষ্ট্র: আগে থেকে পরিযায়ী শ্রমিকদের আশ্রয় এবং দেখভালের ব্যবস্থা করলে ঔরঙ্গাবাদের ঘটনা এড়ানো সম্ভব হতো৷ এমনই মনে করছে জাতীয় মানবাধিকার সংগঠন৷ মহারাষ্ট্রের ঔরঙ্গাবাদের কাছে শুক্রবার সকালে ১৬ জন শ্রমিকের ট্রেনে কাটা পড়ে মৃত্যু হয়{ এই ঘটনায় স্বতঃপ্রণোদিত ব্যবস্থা নিয়ে শুক্রবারই মহারাষ্ট্রের মুখ্যসচিব এবং ঔরঙ্গাবাদের জেলাশাসককে নোটিস পাঠিয়েছে তারা৷ পরিযায়ী শ্রমিক এবং দরিদ্র মানুষের জন্য লকডাউনের সময়ে খাবার, থাকার জায়গা সহ কী কী ব্যবস্থা করা হয়েছে, চার সপ্তাহের মধ্যে সেই তথ্য সহ জবাব তলব করেছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশন৷

    জাতীয় মানবাধিকার কমিশন মনে করছে, প্রাথমিকভাবে এটি একটি রেল দুর্ঘটনা৷ কারণ যেভাবে রেল লাইনের উপরে শ্রমিকরা শুয়েছিলেন, তা স্বাভাবিক নয়৷

    যদিও মানবাধিকার কমিশনের রিপোর্টে স্পষ্ট বলা হয়েছে, যেভাবে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে তা একেবারেই প্রত্যাশিত নয়৷ নোটিসে স্পষ্টই লেখা হয়েছে, যেহেতু ওই শ্রমিকরা বাড়ি ফেরার জন্য কোনও যানবাহন না পেয়েই দীর্ঘ পথ হেঁটে ফেরার সিদ্ধান্ত নিতে বাধ্য হয়েছিলেন৷ পাশাপাশি, শ্রমিকদের দেখভালের জন্য কোনও ব্যবস্থা না করায় জেলা প্রশাসনের বিরুদ্ধেও গাফিলতির অভিযোগ তোলা হয়েছে৷

    মানবাধিকার কমিশন মনে করিয়ে দিয়েছে, লকডাউনের সময়ে দুঃস্থ এবং অসহায় মানুষের প্রতি আরও সংবেদনশীল হওয়ার জন্য সাম্প্রতিক বেশ কয়েকটি ঘটনায় তারা নির্দেশ দিয়েছে৷ তার পরেও এমন দুর্ঘটনায় পরিযায়ী শ্রমিকদের মৃত্যু অত্যন্ত যন্ত্রণাদায়ক বলেই মনে মন্তব্য করেছে মানবাধিকার কমিশন৷

    শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেন ধরার জন্য মহারাষ্ট্রের জেলনা থেকে দেড়শো কিলোমিটার পথ পেরিয়ে ভূষাওয়ালের উদ্দেশে হেঁটেই যাচ্ছিল শ্রমিকদের একটি দল৷ মাঝপথে ক্লান্ত হয়ে গিয়ে ঔরঙ্গাবাদের কাছে রেল লাইনের উপরেই ঘুমিয়ে পড়েন তাঁরা৷ শুক্রবার ভোরে একটি মালগাড়ির চাকায় পিষ্ট হয়ে মৃত্যু হয় তাঁদের৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: