শুভ পরিণয়ে বাধা এখন করোনা ! বিয়ে পিছিয়ে যাচ্ছে অধিকাংশেরই

শুভ পরিণয়ে বাধা এখন করোনা ! বিয়ে পিছিয়ে যাচ্ছে অধিকাংশেরই

করোনার জেরে শুভ পরিণয়ে বাধা শৌনক-সুমনার।

  • Share this:

#কলকাতা: শৌনক আর সুমনার মধ্যে দুরত্ব তৈরি করে দিল করোনা। বৈশাখের ৫ তারিখ দু'হাত এক হওয়ার কথা ছিল দু'জনের। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে শুভ পরিণয়ে বাধা হয়ে গেছে ভাইরাস করোনা। মুষড়ে পরেছেন হবু দম্পতি। হাজারো চেষ্টা করেও বিয়ের অনুষ্ঠান সম্ভব হবে নাই বলে ধরে নিচ্ছেন দুই পরিবার। শ্রীরামপুরের বাসিন্দা শৌনক দাস। নিজে চাকরি করেন কেন্দ্রীয় সরকারের এক সংস্থায়। তবে তার পরিচয় গুগল গাইড হিসেবেই।

আগামী ১৮ এপ্রিল শৌনকের বিয়ে ঠিক হয়েছে। বিয়ের দিন আরও স্পেশাল ছিল কারণ ওই দিন তার হবু স্ত্রী সুমনার জন্মদিন। ইতিমধ্যেই ছাপানো হয়ে গেছে নিমন্ত্রণ পত্র। আত্মীয়, বন্ধু-বান্ধবদের নিমন্ত্রণ পত্র পাঠানো হয়ে গিয়েছে। নিমন্ত্রণ পত্রে হলুদ লাগানো হয়ে গিয়েছে। বিয়ের উপাচারের জিনিস কেনা হয়ে গিয়েছে। কিন্তু আপাতত করোনা ফুলস্টপ টেনে দিয়েছে শৌনক-সুমনার বিয়েতে।

শৌনকের দাদা কৌশিক দাস। তিনিও নিজে থাকেন আমেরিকায়। আগামী ১৫ এপ্রিল অবধি তিনিও আসতে পারবেন না বাড়িতে। ফলে ভাইয়ের বিয়েতে থাকতে পারবেন না বাড়িতেও। শৌনকের কথায়, "বাড়ি ভাড়া, ক্যাটারিং সব বুকিং হয়ে গিয়েছে। অথচ বিয়ের অনুষ্ঠান করা যাবেনা বলেই মনে হচ্ছে। দাদা আসতে পারছে না। এই টেনশন আর নিতে পারা যাচ্ছেনা।" শৌনকের মামা সিডনিতে থাকেন। তিনিও আসতে পারবেন না বলে শৌনকের বাবাকে জানিয়ে দিয়েছেন।

এতো গেল আত্মীয়দের কথা। যেহেতু শৌনক গুগল গাইড হিসবে কাজ করেন তাই ইতিমধ্যেই শৌনক তার বিভিন্ন দেশের বন্ধুদের আমন্ত্রণ জানিয়ে দিয়েছেন। বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, আমেরিকা ও লন্ডন থেকে তারা আসতে পারবেন না এই বিয়েতে। কারণ বিদেশি নাগরিকদের তো আগামী ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত দেশে ঢোকাই যাবেনা। শৌনক ইতিমধ্যেই শ্রীরামপুরে বাড়ি ভাড়া করে ফেলেছে। কথা হয়ে গেছে ক্যাটারিং সংস্থার সাথে। নিমন্ত্রিত সংখ্যা প্রায় ৪০০ জন। ইতিমধ্যেই অগ্রিম টাকা দেওয়া হয়ে গিয়েছে। এত মানুষকে আমন্ত্রণ করেও তাদের না আসতে বলাটা যে কি করে সম্ভব তা নিয়ে বেজায় চিন্তায় শৌনকের বাবা দিলীপ দাস। তিনি বলেন, "ছেলের বিয়ে নিয়ে সব বাবাই উচ্ছ্বসিত থাকে। কিন্তু এই পরিণতি যে হবে তা বুঝে উঠতে পারিনি।" প্রথমে তারা ভেবেছিলেন এপ্রিল মাসের প্রথম মাসেই সমস্যা মিটে যাবে। কিন্তু ১৪ এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা হয়ে যাওয়ায় বিয়ে করা যে সম্ভব হবে না, তা তাঁরা বুঝে গিয়েছেন। ফলে করোনার জেরে শুভ পরিণয়ে বাধা শৌনক-সুমনার।

Abir Ghoshal

First published: March 26, 2020, 12:08 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर