corona virus btn
corona virus btn
Loading

শরণার্থী হয়ে ভারতে আশ্রয়, করোনা যুদ্ধে নামতে চান পাকিস্তানের হিন্দু চিকিৎসকরা

শরণার্থী হয়ে ভারতে আশ্রয়, করোনা যুদ্ধে নামতে চান পাকিস্তানের হিন্দু চিকিৎসকরা
প্রতীকী চিত্র৷ PHOTO- FILE

নিয়ম অনুযায়ী, বিদেশি কোনও নাগরিক ভারতে ডাক্তারি করতে চাইলে তাঁদের মেডিক্যাল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়ার নির্দিষ্ট পরীক্ষা পাশ করতেই হয়৷

  • Share this:
 

#যোধপুর: পাকিস্তানের বিভিন্ন মেডিক্যাল কলেজ থেকে এমবিবিএস ডিগ্রি নিয়ে ভারতে আসা শরণার্থী  হিন্দু চিকিৎসকরা এবার এ দেশের স্বাস্থ্যকর্মীদের সঙ্গে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে করোনা সংক্রমণের মোকাবিলা করতে চান৷ সেরকমই ইচ্ছেপ্রকাশ করে ভারত সরকারের কাছে আবেদন জানালেন পাকিস্তানের হিন্দু চিকিৎসকদের একটি দল৷

নিয়ম অনুযায়ী, বিদেশি কোনও নাগরিক ভারতে ডাক্তারি করতে চাইলে তাঁদের মেডিক্যাল কাউন্সিল অফ ইন্ডিয়ার নির্দিষ্ট পরীক্ষা পাশ করতেই হয়৷ সেই কারণেই ইচ্ছে থাকলেও সরকারের অনুমতি ছাড়া ওই হিন্দু চিকিৎসকরা করোনা মোকাবিলায় হাত লাগাতে পারছেন না৷

ওই চিকিৎসকদের আবেদন, বর্তমান পরিস্থিতির দিকে খেয়াল রেখে পরীক্ষায় পাশ করা সংক্রান্ত আপাতত শিথিল করে তাঁদের করোনা রোগীদের চিকিৎসার অনুমতি দেওয়া হোক৷ এম এল জাঙ্গির নামে সেরকমই এক চিকিৎসকের দাবি, কুড়ি বছর আগে তিনি পাকিস্তান থেকে ভারতে চলে এসেছিলেন৷ তিনি করাচি মেডিক্যাল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাশ করেছিলেন বলে দাবি ওই চিকিৎসকের৷ তিনি জানিয়েছেন, তাঁর মতো আরও তিনশো এরকম চিকিৎসক নিয়মের জাঁতাকলে পড়ে ভারতে প্র্যাক্টিস করতে পারছেন না৷ কারণ বিদেশ থেকে এমবিবিএস পাস আসা শুধুমাত্র ভারতীয় নাগরিকরাই মেডিক্যাল কাউন্সি অফ ইন্ডিয়ার পরীক্ষায় বসতে পারেন৷

এম এল জাঙ্গির নামে ওই চিকিৎসকের কথায়, 'যদি ভারত সরকার এই বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে বিচার করে আমাদের চিকিৎসক হিসেবে কাজ করার অনুমতি দেয় তাহলে আমরা কোভিড ১৯-এর বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সহযোগিতা করতে পারি৷'

অনিলা শারদা নামে ২০০৭ সালে ভারতে আসা এরকমই এক চিকিৎসকের দাবি, তিনি পাকিস্তানের হায়দ্রাবাদের একটি মেডিক্যাল কলেজ থেকে এমবিবিএস পাশ করেছেন৷ তিনি জানিয়েছেন, ভারতে আসার পর এ দেশের নাগরিকত্বের জন্য আবেদন করতেই প্রায় ১১ বছর কেটে গিয়েছে৷ এর পর সব শর্ত পূরণ করে তাঁদের পক্ষে এমসিআই-এর পরীক্ষায় বসাই কার্যত অসম্ভব হয়ে দাঁড়ায়৷ কারণ তাঁদের অনেকেরই পরীক্ষায় বসার বয়স পেরিয়ে যায়৷

২০০০ সালের পরে ভারতে আসা এরকমই হিন্দু শরণার্থী পরিবারের তিনশো চিকিৎসকের বিষয়ে ভেবে দেখার জন্য সরকারকে চিঠি দিয়েছে সীমান্ত লোক সংগঠন৷ সংগঠনের দাবি, গত কয়েক বছর ধরেই বিষয়টি নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক, স্বাস্থ্য মন্ত্রক এবং আইন মন্ত্রকে চিঠি দিয়েছেন তারা৷ মৌখিক ভাবে সবপক্ষেরই এই প্রস্তাবে সায় রয়েছে বলেই দাবি করেছে ওই সংগঠন, যদিও সরকারিভাবে ওই শরণার্থী চিকিৎসকদের নিয়ে এখনও কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি৷

 
First published: April 19, 2020, 1:16 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर