প্রথম গ্রাস মুখে তোলার আগেই রাজপথে পিষে দিল গাড়ি, মর্মান্তিক মৃত্যু পরিযায়ী শ্রমিকের

মৃত শ্রমিক সাগির আনসারি

গত ৫ মে সাগির-সহ সাত শ্রমিকের একটি দল দিল্লি থেকে সাইকেলে বিহারের চম্পারণে নিজেদের বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হয়। সাইকেলে পাড়ি দিয়ে পাঁচদিনের মাথায় শনিবার লখনউ এসে পৌঁছয় তাঁরা।

  • Share this:

    #লখনউঃ লকডাউনে কর্মহীন। বন্ধ রোজগার। অর্থ, খাদ্য ও বাসস্থানের অভাবে ভুগছিলেন। তাই উপায় না পেয়ে বাড়ি ফেরার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। কিন্তু মাঝ রাস্তা পর্যন্ত এসেও বাড়ি ফেরা হল না। মর্মান্তিক মৃত্যু হল পরিযায়ী শ্রমিক যুবকের। সম্প্রতি রেললাইনে ঘুমন্ত শ্রমিকদের উপর দিয়ে চলে গিয়েছিল ট্রেন। এবার দিল্লির থেকে বাড়ি ফেরার পথে রাস্তায় খেতে বসা এক শ্রমিককে পিষে দিল তীব্র গতিতে ছুটে আসা একটি গাড়ি।

    পুলিশ জানিয়েছে, মৃত ওই যুবকের নাম সাগির আনসারি (২৬)। গত ৫ মে  সাগির-সহ সাত শ্রমিকের একটি দল দিল্লি থেকে সাইকেলে বিহারের চম্পারণে নিজেদের বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হয়। সাইকেলে পাড়ি দিয়ে পাঁচদিনের মাথায় শনিবার লখনউ এসে পৌঁছয় তাঁরা। অবসন্ন শরীরে সকাল ১০টা নাগাদ রাস্তার ধারেই একটি ডিভাইডারের উপর জলখাবার খেতে বসেছিলেন তাঁরা। কিন্তু মুখে প্রথম গ্রাস তলার আগেই দ্রুত গতিতে ছুটে আসা একটি গাড়ি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পিষে দেয় সাগিরকে। তবে একটি গাছের আড়ালে থাকায় বাকিরা কোনওক্রমে প্রাণে বেঁচে যান। তাঁরাই দ্রুত সাগিরকে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যান। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি।

    সাগিরের সঙ্গীরা জানিয়েছেন, অভিযুক্ত গাড়ির চালক প্রথমে গাড়ি থেকে নেমে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কথা বললেও পরে তিনি তা দিতে অস্বীকার করেন এবং এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যান। এরপর স্থানীয় সংগঠন ও নেতাদের সাহায্যে অ্যাম্বুলেন্সে করে সাগিরের দেহ তাঁর বাড়িতে নিয়ে যাওয়া হয়। ইতিমধ্যেই ঘাতক গাড়ির চালককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। তাঁর বিরুদ্ধে মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সাগিরের বাড়িতে তাঁর স্ত্রী ছাড়াও তিন সন্তান রয়েছে।

    Published by:Shubhagata Dey
    First published: