corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভুল শুধরে সোশ্যাল ডিসটেন্স বজায় রেখে লকডাউনের মাঝে দেওয়া হল মিড ডে মিল

ভুল শুধরে সোশ্যাল ডিসটেন্স বজায় রেখে লকডাউনের মাঝে দেওয়া হল মিড ডে মিল

৩ কেজি করে ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকদের দেওয়া হল আলু ও চাল। গতবার এই লকডাউনের পরিস্থিতিতে আলু ও চাল দেওয়াকে কেন্দ্র করে নিয়ম বিধি না মানার অভিযোগ ওঠে একাধিক স্কুলে।

  • Share this:

#কলকাতা: হুড়োহুড়ি করে নয়, সোশ্যাল ডিসটেন্স বজায় রেখেই কলকাতার বেশিরভাগ স্কুলে দেওয়া হল মিড ডে মিল। কার্যত পুলিশের নজরদারিতে বেশিরভাগ স্কুলে দেওয়া হল মিড ডে মিল।সোমবার থেকে শুরু হয় আগামী ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত দেওয়া হবে ছাত্র-ছাত্রীর অভিভাবকদের মিড ডে মিল।

ইতিমধ্যেই রাজ্য স্কুল শিক্ষা দফতরের তরফে নির্দেশিকা দিয়ে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল স্কুল গুলিকে যাতে একদিনে একটি ক্লাসের অভিভাবকদেরই মিড ডে মিল দেওয়া হয়। সেই মোতাবেক কলকাতার বেশিরভাগ স্কুলে একেকটি ক্লাসের অভিভাবকদের মিড ডে মিল দেওয়া হয়েছে। শুধু তাই নয় শিক্ষা দপ্তরের তরফে জানানো হয়েছিল মিড-ডে-মিল নিতে যারা আসবেন, স্কুলে ঢোকার আগে যেন তাদের স্যানিটাইজার দেওয়া হয়। সেই মোতাবেক অভিভাবকরা ঢোকার আগেই স্কুলের তরফ স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার করে তবেই মিড ডে মিলের চাল ও আলু নিতে পেরেছেন। মিড ডে মিল দেওয়া নিয়ে যাতে বিশৃঙ্খলা বা হুড়োহুড়ি না হয় তার জন্য বেশিরভাগ স্কুলের সামনে পুলিশের তরফে চক দিয়ে দাগ কেটে নির্দিষ্টভাবে দূরত্ব বজায় রেখে অভিভাবকদের লাইনে দাঁড়াতে বলা হয়েছিল।

সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় আবারও মিড ডে মিল এর চাল আলু দেওয়া হবে বলে ঘোষণা করেছিলেন। মূলত এক মাসের জন্য এই মিড ডে মিল দেওয়া হবে। সেই মোতাবেক সোমবার থেকেই রাজ্যের স্কুলে স্কুলে দেওয়া শুরু হল মিড ডে মিল এর মাধ্যমে আলু ও চাল।৩ কেজি করে ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকদের দেওয়া হল আলু ও চাল। গতবার এই লকডাউনের পরিস্থিতিতে আলু ও চাল দেওয়াকে কেন্দ্র করে নিয়ম বিধি না মানার অভিযোগ ওঠে একাধিক স্কুলে। তার জেরে কলকাতার দুই স্কুলের প্রধান শিক্ষকদের শাস্তি মূলক পদক্ষেপ হিসেবে বদলি করা হয়।

এবার তাই মিড ডে মিল দেওয়া নিয়ে বাড়তি সতর্ক ছিল স্কুল শিক্ষা দপ্তর। তাই এক এক দিন যাতে একাধিক ক্লাসের ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকরা না আসতে পারেন তার জন্য বিশেষ নির্দেশিকা প্রত্যেকটি স্কুলকে দেওয়া হয়েছিল স্কুল শিক্ষা দপ্তরের তরফে। সোমবার গোটা কলকাতা জুড়েই বেশিরভাগ স্কুল এই কার্যত নির্বিঘ্নে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই দেওয়া হল মিড ডে মিল। তবে আগামী দিনগুলোতে সোশ্যাল ডিসটেন্স কঠোরভাবে যাতে বজায়় রাখা হয় তার জন্য বিশেষ ভাবে স্কুল গুলিকে ব্যবস্থাও নিতে বলেছে স্কুল শিক্ষা দপ্তর।

Somraj Bandopadhyay

Published by: Elina Datta
First published: April 20, 2020, 9:07 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर