corona virus btn
corona virus btn
Loading

মাস্কের পর হ্যান্ড স্যানিটাইজার ! শহরে অমিল, ইবি-র হানা

মাস্কের পর হ্যান্ড স্যানিটাইজার ! শহরে অমিল, ইবি-র হানা

শনিবারের আগে পর্যন্ত পাওয়া যাচ্ছিল স্যানিটাইজার। অনেক দিন আগেই অমিল হয় মাস্ক।

  • Share this:

#কলকাতা: শহরের বাড়ছে করোনা আতঙ্ক। এই আতঙ্কের আবহে চিকিৎসকদের পরামর্শ সব সময় মুখে মাস্ক ও হাতে স্যানিটাইজার ব্যবহার করার। পরামর্শ শুনে দোকানে গিয়ে ফিরে আসছেন অনেকেই। দোকানে কিছু দিন আগেও মিলছিল স্যানিটাইজার।

শনিবার সকালে নীল রতন সরকার হাসপাতাল চত্বরের বিভিন্ন দোকানে ঘুরেও পাওয়া গেল না স্যানিটাইজার। শনিবারের আগে পর্যন্ত পাওয়া যাচ্ছিল স্যানিটাইজার। অনেক দিন আগেই অমিল হয় মাস্ক।  দোকানে গিয়ে N-95 মাস্ক দূরের কথা। কাজ চলার মত বিভিন্ন মাস্কও এখন অমিল। সেই মাস্ক শহরের কিছু হাতে গোনা দোকানে থাকলেও অভিযোগ দাম নেওয়া হচ্ছে দ্বিগুন।

শনিবার দুপুরে মেডিক্যাল কলেজ চত্বরে বিভিন্ন দোকানে হানা দেয় কলকাতা পুলিশের ইবি। মেডিকেল কলেজের সামনেই একটি দোকানে মেলে কিছু মাস্ক। যদিও সেই মাস্ক করোনা ভাইরাসের জন্য উপযোগী না হলেও দাম নেওয়া হচ্ছে অনেক বেশি। ইবি-র অফিসার দোকানের মালিকের তরফে জানতে চান মাস্কের দাম।

দাম শুনে অবাক হবার মত, কারন যেটি হওয়ার কথা ২০ বা ৪০ টাকা সেটিই ক্রেতারা দিচ্ছেন দ্বিগুণ।এদিন ইবির তরফে দাম নিয়ে স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয় দাম যেন বেশি না হয়, কালোবাজারি হলে আইনানুসারে ব্যবস্থাও নেওয়া হবে। ইবি-র তরফে স্যানিটাইজারের খোঁজ চালানো হলেও সেই অমিল। দোকানের তরফে জানানো হয় চাহিদার তুলনায় যোগান কম কিছু করার নেই।

এদিন শহরের মেডিকেল কলেজ চত্বর ছাড়াও এসএসকেএম চত্বরেও দেখা যায় ইবিকে। স্যানিটাইজারের প্যাকেটের গায়ে লেখা দাম বেশি যেন না নেওয়া হয় সেটাই সর্তক করে ইবি। শ্রাবণী ঘোষ শনিবার এনআরএস চত্বরে মাস্ক কিনতে এসে জানান শুক্রবার বেহালা ঘুরে না পেয়ে শিয়ালদহ চলে এলাম, তাও পেলাম না। সোহম গুপ্ত শনিবার সকাল থেকেই ব্যাস্ত স্যানিটাইজারের সন্ধানে, সবশেষে তাও মিলল না। করোনা ভাইরাস আতঙ্কের জেরে আগে মাস্ক এখন স্যানিটাইজার।  অনেকেই বলছেন এই অভিজ্ঞতা তাদের জানা ছিল না।

Susovan Bhattacharya

First published: March 14, 2020, 6:53 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर