corona virus btn
corona virus btn
Loading

সরকারী নির্দেশিকা মেনে শিলিগুড়িতে খুলল বিভিন্ন মার্কেট, দেখা নেই ক্রেতার

সরকারী নির্দেশিকা মেনে শিলিগুড়িতে খুলল বিভিন্ন মার্কেট, দেখা নেই ক্রেতার

লকডাউনের জেরে কয়েকশো কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। কবে এই ক্ষতি মেটাতে পারবে ব্যবসায়ীরা? উত্তর জানা নেই।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: অবশেষে খুললো দোকানপাট। লকডাউনের মাঝেই রাজ্যের নির্দেশিকা মেনে শিলিগুড়ির বেশ কয়েকটি মার্কেট আজ থেকে খুলল। আপাতত জোড়-বিজোড় পদ্ধতি মেনেই দোকান চলবে। প্রায় দু'মাস পর খুললো বিধান মার্কেট, শেঠ শ্রীলাল মার্কেট। তবে হংকং মার্কেট খোলেনি। বন্ধ ছিল হকার্স কর্ণারও।

বিধান মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতিও নির্দিষ্ট গাইড লাইন বেধে দিয়েছে। মার্কেটে ক্রেতা ও বিক্রেতা উভয়কেই মাস্ক পড়তে হবে। বিনা মাস্কে কোনো কেনাবেচা করা যাবে না। তেমনি প্রত্যেক দোকানদারকে হ্যাণ্ড গ্লাভস বাধ্যতামূলকভাবে পড়তে হবে। সেইসঙ্গে প্রতিটি দোকানেই হ্যাণ্ড স্যানিটাইজার রাখতে হবে। এবং নিয়ম করে তার ব্যবহার করতে হবে। পাশাপাশি সামাজিক দূরত্ব মানতে হবে প্রত্যেক ক্রেতাকেই।

লকডাউনের জেরে পয়লা বৈশাখ, রামনবমী, অক্ষয় তৃতীয়ায় খোলেনি দোকানের ঝাঁপ। হয়নি পুজোও। এবারে ধীরে ধীরে দোকান খুলছে। তবে প্রথম দিনে তেমন ক্রেতার ভিড় লক্ষ্য করা যায়নি। বিধান মার্কেট ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক বাপি সাহা জানান, স্বাস্থ্য দফতরের নির্দেশিকা মেনেই মার্কেট চলবে। এদিন মার্কেটে সচেতনতামূলক প্রচারও করা হয়। গোটা বাজারেই মাইকিং করা হয়। ইতিমধ্যেই লকডাউনের জেরে কয়েকশো কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। কবে এই ক্ষতি মেটাতে পারবে ব্যবসায়ীরা? উত্তর জানা নেই। বিশাল অঙ্কের আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে হয়েছে ব্যবসায়ীদের। পরিস্থিতি কবে স্বাভাবিক হবে, তার খোঁজেই ব্যবসায়ীরা।

দোকান খুললেও হাসি নেই বিক্রেতাদের মুখে। চেনা ছন্দে কবে ফিরবে শহরের মার্কেট? বৃহত্তর শিলিগুড়ি ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক বিপ্লব রায় মহুড়ি জানান, রাজ্য সরকারের নির্দেশ মেনেই দোকান খুলবে। এক এক দিন এক এক করে দোকান খুলবে। আপাতত সন্ধ্যে ৬টা পর্যন্ত শহরের বিভিন্ন মার্কেট খোলা থাকবে। শহরের প্রতিটি মার্কেটেই সরকারী গাইড লাইন মানা হচ্ছে কি না, সেদিকেই নজর রাখবে ব্যবসায়ী সমিতির সদস্যরা। মাস দুয়েক বন্ধ ছিল দোকানপাট। কর্মচারীদের অবস্থাও সঙ্কটে পড়ে গিয়েছিল। আজ মার্কেট খোলায় কিছুটা হলেও স্বস্তি ফিরে পেল ব্যবসায়ীরা।

Partha Pratim Sarkar

Published by: Elina Datta
First published: May 21, 2020, 7:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर