corona virus btn
corona virus btn
Loading

হঠাৎ বন্ধ মদের দোকান, বর্ধমানে সুরাপ্রেমীদের মাথায় হাত!

হঠাৎ বন্ধ মদের দোকান, বর্ধমানে সুরাপ্রেমীদের মাথায় হাত!
প্রতীকী ছবি৷ PHOTO- FILE

অনেকে মদ হস্তগত করে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছিলেন। কোথাও আবার মদের দোকানের মালিককে প্রণাম করেছেন সুরাপ্রেমীরা।

  • Share this:

#বর্ধমান:  গোটা দেশের মতো বর্ধমানেও রমরমিয়ে চলছিল মদের বিক্রি।  দোকান দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে মদ কিনছিলেন সুরাপ্রেমীরা। হঠাৎ করেই শহর জুড়ে বন্ধ হয়ে গেল সব দোকান। তা দেখে হতাশ সুরাপ্রেমীদের অনেকেই। অনেকে মদ হস্তগত করে উচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছিলেন। কোথাও আবার মদের দোকানের মালিককে প্রণাম করেছেন সুরাপ্রেমীরা। তার মাঝেই তাল কাটলো। বন্ধ হয়ে গেল দোকান থেকে মদ বিক্রি। কিন্তু কেন বন্ধ হয়ে গেল শহরের অধিকাংশ মদের দোকান?

 বর্ধমান শহরে উনিশটি মদের দোকান রয়েছে। সোমবার সকাল থেকেই সেই সব দোকানের সামনে ছিল লম্বা লাইন। সোমবার বিকেলের পর এবং মঙ্গলবার প্রশাসনের বেঁধে দেওয়া সময় অনুযায়ী প্রচুর পরিমাণে মদ বিক্রি হয়েছিল। পূর্ব বর্ধমান জেলায় মদ বিক্রি হয়েছিল দেড় কোটি টাকার। কিন্তু বুধবার বন্ধ থাকল অধিকাংশ মদের দোকান। বর্ধমানের সুভাষপল্লি এলাকায় করোনা আক্রান্তের হদিশ মেলে। সেই এলাকায় কন্টেইনমেন্ট জোন হিসেবে চিহ্নিত করেছে জেলা প্রশাসন। ওই এলাকার এক কিলোমিটার পরিধির মধ্যে সব দোকান বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ প্রশাসন। কিন্তু সেই এলাকার বাইরেও বেশিরভাগ দোকান এ দিন বন্ধ ছিল।

দোকান বন্ধ থাকার কারণ হিসেবে ভিন্ন ভিন্ন মত উঠে এসেছে। কয়েকজন বিক্রেতা জানিয়েছেন, রাজ্য সরকার মদ বিক্রির জন্য অন লাইন অ্যাপ চালু করেছে। আপাতত সেই অ্যাপেই মদ বিক্রি করার কথা বলা হয়েছে। আবার কেউ কেউ বলছেন, বর্ধমান শহরের মতো ঘনবসতিপূর্ণ এলাকায় করোনার আক্রান্ত হদিশ মেলায় এই শহর রেড জোনের তালিকাভুক্ত হতে পারে। তাই মদ বিক্রি বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।

অতিরিক্ত জেলা শাসক রজত নন্দা জানান, কন্টেইনমেন্ট এলাকার মধ্যে থাকা মদের দোকান বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তার বাইরে মদের দোকান বন্ধের কোনও নির্দেশ নেই। তবে বারংবার মোবাইল ফোনে চেষ্টা করেও আবগারি সুপারিন্টেন্ডেন্ট তপনকুমার মাইতির সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি।

SARADINDU GHOSH

First published: May 6, 2020, 10:00 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर