corona virus btn
corona virus btn
Loading

বর্ধমান শহর জুড়ে গোষ্ঠী সংক্রমণ! তবু মাস্ক পরছেন না ওঁরা! আর কত মাশুল দেবে সাধারণ মানুষ

বর্ধমান শহর জুড়ে গোষ্ঠী সংক্রমণ! তবু মাস্ক পরছেন না  ওঁরা! আর কত মাশুল দেবে সাধারণ মানুষ
অক্লেশে হাসতে হাসতে রাস্তায় ঘোরাঘুরি বিনা মাস্কে।

এদিন রাস্তায় কর্তব্যরত পুলিশ কর্মী অফিসাররা এমন অনেককেই আটক করলেন যাঁরা মাস্ক বা ফেস কভার ছাড়াই বাইরে বেরিয়ে পড়েছেন।

  • Share this:

#বর্ধমান: বর্ধমান শহরের বাসিন্দাদের সচেতনতার অভাব দেখে অবাক হচ্ছেন অনেকেই। শহর জুড়ে করোনার গোষ্ঠী সংক্রমণ চলছে। তারপরও দেখা যাচ্ছে মাস্কে মুখ ঢাকার ক্ষেত্রে অনীহা রয়েছে অনেকেরই। বৃহস্পতিবার লকডাউনের দিনে বর্ধমানের প্রাণকেন্দ্র কার্জন গেট চত্বরে এমনই ছবি ধরা পড়ল। এদিন রাস্তায় কর্তব্যরত পুলিশ কর্মী অফিসাররা এমন অনেককেই আটক করলেন যাঁরা মাস্ক বা ফেস কভার ছাড়াই বাইরে বেরিয়ে পড়েছেন। তাদের মাস্কে মুখ ঢাকা নিশ্চিত করে তবেই ছাড়লেন পুলিশ কর্মীরা।

বর্ধমান শহর জুড়ে ব্যাপক ভাবে করোনার সংক্রমণ চলছে। জেলায় যেখানে দু হাজারের কাছাকাছি বাসিন্দা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন সেখানে শুধুমাত্র বর্ধমান শহরেই আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় সাড়ে পাঁচশো জন। জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে ৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। তার মধ্যে ২৫ জনই বর্ধমান শহর এলাকার বাসিন্দা। শহরের ৩৫টি ওয়ার্ডের প্রায় প্রতিটি প্রান্তে করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। শুধু তাই নয়, দীর্ঘদিন শহরের বাইরে যান নি এমন অনেকেই করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাই এই সময় বাইরে বের হলেই করোনার সংক্রমিত হওয়ার আশঙ্কা পদে পদে। তাই জরুরি প্রয়োজনে বাইরে বের হতে হলে মাস্কে মুখ ঢাকা বাধ্যতামূলক বলে নির্দেশ জারি করেছে জেলা প্রশাসন।

তারপরও দেখা যাচ্ছে অনেকেই মাস্ক বা ফেস কভারে মুখ না ঢেকেই নানান অজুহাতে বাইরে বেরিয়ে পড়েছেন। করোনার সংক্রমণের  ব্যাপারে কোনও রকম সচেতন নন তাদের অনেকেই। এদিন এমন অনেককেই আটক করল পুলিশ। অনেকে পকেটে বা ব্যাগে মাস্ক রাখলেও তা দিয়ে মুখ ঢাকছেন না। এমন অনেককেই সঙ্গে থাকা মাস্ক মুখে বাঁধতে বাধ্য করে তারপরে বাড়িতে ফেরত পাঠায় পুলিশ। এ ব্যাপারে বর্ধমানের কার্জন গেট, পারকাস রোড, বীরহাটা,কলেজ মোড়, পুলিশ লাইন বাজার সহ শহরের গুরুত্বপূর্ণ রাস্তার মোড়গুলিতে অভিযান চালায় পুলিশ। বাইরে বের হওয়া রুখতে বাসিন্দাদের সচেতন করেন তাঁরা ।

Published by: Arka Deb
First published: August 20, 2020, 3:14 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर