• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • লকডাউন জেনেই আগেভাগে খুলে গেল মানিকতলা বাজার, বিধি শিকেয় তুলে বাজার করছেন ওঁরা

লকডাউন জেনেই আগেভাগে খুলে গেল মানিকতলা বাজার, বিধি শিকেয় তুলে বাজার করছেন ওঁরা

মানিকতলা বাজার চত্বর।

মানিকতলা বাজার চত্বর।

বাজার খুলতেই করোনা ভাইরাস মোকাবিলার বিধিনিষেধকে শিকেয় তুলে হামলে পড়ল মানুষ।

  • Share this:

#কলকাতা: ঠিক ছিল টানা তিনদিন বন্ধ থাকবে বাজার। কিন্তু সোমবার রাজ্য সরকার সপ্তাহে দুদিন লকডাউন ঘোষণা করায় এক দিন আগেই খুলে দেওয়া হল মানিকতলা বাজার। আর বাজার খুলতেই করোনা ভাইরাস মোকাবিলার বিধিনিষেধকে শিকেয় তুলে  হামলে পড়ল মানুষ।

যত দিন যাচ্ছে ততই বাড়ছে রাজ্যের কোভিড আক্রান্তের সংখ্যা। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, আমাদের রাজ্যে কিছু কিছু জায়গায় শুরু হয়ে গিয়েছে গোষ্ঠী সংক্রমণ। ফলে পুনরায় লকডাউন জরুরি। তবে সিদ্ধান্ত হয় এবার সপ্তাহে দুদিন হবে লকডাউন। চলতি সপ্তাহে বৃহস্পতিবার আর শনিবারকে বেছে নেওয়া হয় লকডাউনের জন্য। কিন্তু এদিন অসচেতনতার যে ছবিটা ধরা পড়ল তা প্রকৃতই ভয়ের!

মানিকতলা বাজার কর্তৃপক্ষ করোনা পরিস্থিতির কথা ভেবে গত সপ্তাহে ঠিক করেছিল চলতি সপ্তাহের প্রথম তিন দিন অর্থাৎ সোম, মঙ্গল এবং বুধবার বাজার বন্ধ রাখা হবে। কিন্তু এর মাঝেই সরকার লকডাউন ঘোষণা করায় সিদ্ধান্ত বদলে ঠিক হয় বুধবার খোলা হবে বাজার। সেই মতোই বাজারের সাতশো দোকানের মধ্যে পাঁচশোর কাছাকাছি দোকান খোলে এদিন।

মানিকতলা বাজার কমিটির যুগ্ম সম্পাদক বিজয় সাহু বলেন, "আমরা ঠিক করেছিলাম তিন দিনই বন্ধ রাখব। কিন্তু বৃহস্পতিবার লকডাউন হলে পরপর চার দিন বাজার বন্ধ থাকবে। এরপর আবার শনিবার লকডাউন হবে। ফলে এক সপ্তাহ পাঁচ দিনে বাজার বন্ধ রাখতে হবে। এতে মানুষের যেমন অসুবিধে হবে একই ভাবে ব্যবসায়ীরাও ক্ষতির মুখে পড়বে। তাই সিদ্ধান্ত বদল করে আজ (বুধবার) বাজার খোলা হয়েছে।"

অপর যুগ্ম সম্পাদক বাবলু দাস বলেন, "সবজি, মাছ, মাংস, মুদি সহ সব মিলিয়ে ৭০০-র কাছা কাছি দোকান রয়েছে বাজারে। তার মধ্যে আজ শ'পাঁচেক দোকান খুলেছে। তবে ক্রেতার সংখ্যা অনেক কম।"

ক্রেতার সংখ্যা কম হলেও বাজারের মধ্যে কোভিড প্রটোকল মেনে চলার লক্ষণ তেমন চোখে পড়ল না। ক্রেতা বিক্রেতা উভয় পক্ষের বেশির ভাগ মানুষ মুখে মাস্ক পড়ছেন। কিন্তু সামাজিক দূরত্বের বিধি মেনে চলছে না প্রায় বেশির ভাগ মানুষ। সকলেই হামলে পড়েছেন লকডাউনের অকারণ ভয়ে বেশি করে বাজার করতে। দু'ব্যাগ ভর্তি বাজার করে রিকশায় ওঠার সময় সুকুমার ঘোষ  বাজার ফেরত ব্যক্তি বলেন, 'আগের বার একদিনের জনতা কার্ফু বলে পরের দিন থেকে আড়াই মাস লকডাউন করে দিয়েছিল। এবার সপ্তাহে দু'দিন বলে আবার কি করবে তার কোন ঠিক নেই। তাই যতটা পারলাম কিনে নিলাম।'

Published by:Arka Deb
First published: