corona virus btn
corona virus btn
Loading

'কীসের ভিত্তিতে বাংলায় কেন্দ্রীয় দল', মোদি- শাহের কাছে প্রশ্ন ক্ষুব্ধ মমতার

'কীসের ভিত্তিতে বাংলায় কেন্দ্রীয় দল', মোদি- শাহের কাছে প্রশ্ন ক্ষুব্ধ মমতার
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ PHOTO- FILE

রাজ্যের লকডাউন পরস্থিতি খতিয়ে দেখতে রাজ্যে আসছে দু'টি কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল৷ প্রতিনিধি দলে থাকবেন বিভিন্ন কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের প্রতিনিধিরা৷

  • Share this:

#কলকাতা: লকডাউন পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে রাজ্যে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল আসা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ কোন মানদণ্ডের ভিত্তিতে রাজ্যে জোড়া প্রতিনিধি দল পাঠানো হচ্ছে, টুইটারে সরাসরি প্রধানমন্ত্রী এবং কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীকে সেই প্রশ্ন করেছেন মুখ্যমন্ত্রী৷

রাজ্যের লকডাউন পরস্থিতি খতিয়ে দেখতে রাজ্যে আসছে দু'টি কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল৷ প্রতিনিধি দলে থাকবেন বিভিন্ন কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের প্রতিনিধিরা৷ রাজ্যের মোট সাতটি জেলায় ঘুরবেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা৷জানা গিয়েছে, প্রতিটি প্রতিনিধি দলে পাঁচজন করে সদস্য থাকবেন৷ রাজ্যে লকডাউন ঠিক মতো মানা হচ্ছে না, এই অভিযোগ তুলেই প্রতিনিধি দল পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক৷

টুইটারে মুখ্যমন্ত্রী লিখেছেন, 'আমরা সবসময় গঠনমূলক সমর্থন এবং পরামর্শকে স্বাগত জানাই৷ বিশেষত করোনা সঙ্কট কাটিয়ে উঠতে কেন্দ্রীয় সরকার যে পরামর্শ দেয় সেগুলিকে সর্বদা স্বাগত৷ যদিও ঠিক কীসের ভিত্তিতে কেন্দ্র পশ্চিমবঙ্গ সহ দেশের বাছাই করা কয়েকটি জেলায় বিপর্যয় মোকাবিলা আইনের অধীনে কেন্দ্রীয় দল পাঠানোর প্রস্তাব দিচ্ছে, তা অস্পষ্ট৷'

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহকে উদ্দেশ করে মুখ্যমন্ত্রী আরও লিখেছেন, 'আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদজি এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহজিকে এই কেন্দ্রীয় দল পাঠানোর মানদণ্ডগুলি জানাতে অনুরোধ করব৷ যদি তা না হয়, তাহলে আমি এটা ভেবে উদ্বিগ্ন যে ভবিষ্যতে আমরা একসঙ্গে এগিয়ে যেতে পারব না কারণ যুক্তিগ্রাহ্য কারণ ছাড়া এটা হলে তা যুক্তরাষ্ট্রীয় পরিকাঠামোর ভাবনার পরিপন্থী৷'

কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক অবশ্য বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, রাজ্য সরকারকে সহযোগিতা করার উদ্দেশ্য নিয়েই বাংলায় প্রতিনিধি দল আসছে৷ বিষয়টি সম্পর্কে অবগত করে রাজ্যের মুখ্যসচিবকেও চিঠি দেওয়া হয়েছে৷

Published by: Debamoy Ghosh
First published: April 20, 2020, 5:45 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर