• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • ১৮ হাজার বেড, দৈনিক ২৫ হাজার টেস্ট করার চেষ্টা, করোনা নিয়ে অভয় মমতার

১৮ হাজার বেড, দৈনিক ২৫ হাজার টেস্ট করার চেষ্টা, করোনা নিয়ে অভয় মমতার

২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে বিজেপি-র ভোটবৃদ্ধির হার শাসক দলকে উদ্বেগে রাখলেও নন্দীগ্রাম যথেষ্ট নিরাপদ আসনই ছিল তৃণমূলের৷ কারণ ২০১৯-এ লোকসভা ভোটের ফল অনুযায়ী নন্দীগ্রামে তৃণমূল পেয়েছিল ৬৩.১৪ শতাংশ ভোট৷ আর বিজেপি-র ভোট প্রাপ্তির হার বেড়ে হয় ৩০.০৯ শতাংশ৷

২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনের নিরিখে বিজেপি-র ভোটবৃদ্ধির হার শাসক দলকে উদ্বেগে রাখলেও নন্দীগ্রাম যথেষ্ট নিরাপদ আসনই ছিল তৃণমূলের৷ কারণ ২০১৯-এ লোকসভা ভোটের ফল অনুযায়ী নন্দীগ্রামে তৃণমূল পেয়েছিল ৬৩.১৪ শতাংশ ভোট৷ আর বিজেপি-র ভোট প্রাপ্তির হার বেড়ে হয় ৩০.০৯ শতাংশ৷

মুখ্যমন্ত্রী এ'দিন আরও দাবি করেন, রাজ্যের আক্রান্তদের মধ্যে ৮৭ শতাংশই উপসর্গহীন৷

  • Share this:

    #কলকাতা: রাজ্যে করোনা ভাইরাস আক্রান্তদের চিকিৎসার জন্য ১৮ হাজার বেড রয়েছে৷ করোনা নিয়ে ভয় পাওয়ার কিছু নেই বলেও একুশে জুলাইয়ের ভার্চুয়াল সভা থেকে ফের রাজ্যবাসীকে অভয় দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷

    করোনা প্রসঙ্গে এ'দিন মুখ্যমন্ত্রী বলেন, রাজ্যে দৈনিক টেস্ট-এর সংখ্যা বাড়ানো হচ্ছে৷ ফলে আরও বেশি করে সংক্রমিতের খোঁজ মিলছে৷ মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, বর্তমানে দৈনিক প্রায় ১৩ হাজার টেস্ট করা হচ্ছে৷ কিন্তু আগামী ১৫ অগাস্টের মধ্যে দৈনিক টেস্ট-এর সংখ্যা ২৫ হাজারে নিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করা হচ্ছে৷

    মুখ্যমন্ত্রী বলেন, 'করোনার বিরুদ্ধে ভাল করতে গেলে টেস্টিং, চেকিং এবং ট্রেসিং-এ জোর দিতে হবে৷ আগামী দিন ওষুধ বেরবে, ট্রায়াল চলছে৷ আমরা আশা করি ভাল হয়ে যাবে৷ কোভিডের জন্য এখানে ১৮ হাজার বেডের ব্যবস্থা রয়েছে৷ ১১ হাজার কোভিড হাসপাতালে এবং ৭ হাজার সেফ হোমে৷ ৩১ অগাস্টের মধ্যে এটাই ২৩ হাজার ৫০০ করা হবে৷'

    মুখ্যমন্ত্রী এ দিন আরও দাবি করেন, রাজ্যের আক্রান্তদের মধ্যে ৮৭ শতাংশই উপসর্গহীন৷ ৮ শতাংশের মধ্যে মৃদু উপসর্গ রয়েছে এবং ৫ শতাংশের অবস্থা গুরুতর৷ রাজ্যে করোনায় আক্রান্তদের মধ্যে মৃত্যু হার এই মুহূর্তে ২.৫৬ শতাংশ হলেও তা কমিয়ে ফেলার চেষ্টা চলছে৷ তবে মৃতদের মধ্যে অধিকাংশেরই কো মর্বিডিটি ছিল বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী৷

    সোমবারই রাজ্য সরকার জানিয়েছে, করোনা সংক্রমণ রুখতে রাজ্য জুড়ে সপ্তাহে দু' দিন করে পূর্ণ লকডাউন থাকবে৷ কয়েকটি জায়গায় গোষ্ঠী সংক্রমণ শুরু হয়েছে বলেও জানায় রাজ্য সরকার৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: