• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • Maldives Calling : মলদ্বীপ নাকি নতুন গোয়া, ভারতীয় পর্যটকের সংখ্যা ৫০ শতাংশ বাড়ল সৈকত নগরীতে!

Maldives Calling : মলদ্বীপ নাকি নতুন গোয়া, ভারতীয় পর্যটকের সংখ্যা ৫০ শতাংশ বাড়ল সৈকত নগরীতে!

পরিসংখ্যান বলছে, এই বছরের প্রথম দু-মাসে মলদ্বীপে ভীড় করেছেন প্রায় ৪৪ হাজার ভারতীয়। যা ২০২০ সালের প্রায় দ্বিগুণ।

পরিসংখ্যান বলছে, এই বছরের প্রথম দু-মাসে মলদ্বীপে ভীড় করেছেন প্রায় ৪৪ হাজার ভারতীয়। যা ২০২০ সালের প্রায় দ্বিগুণ।

পরিসংখ্যান বলছে, এই বছরের প্রথম দু-মাসে মলদ্বীপে ভীড় করেছেন প্রায় ৪৪ হাজার ভারতীয়। যা ২০২০ সালের প্রায় দ্বিগুণ।

  • Share this:
    করোনাকাল এবং লকডাউনের ফলে যে যে ক্ষেত্রগুলি প্রভূত ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে তাঁর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সঙ্কট নেমে এসেছে পর্যটন শিল্পে। ভয়ানকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কম বেশি প্রতিটা দেশই। এদিকে নতুন বছরের শুরু থেকেই বিশ্বজুড়ে ফের দ্বিতীয় ওয়েভ থাবা বসাতে শুরু করেছে। বাদ যাচ্ছে না ভারতও। মহারাষ্ট্রের পুনে,মুম্বই সর্বত্রই চোখ রাঙাচ্ছে মারণ ভাইরাস। অথচ এই সঙ্কটময় পরিস্থিতির মধ্যেও ভারতীয় পর্যটকদের বর্তমানে অন্যতম প্রথম গন্তব্য এই মলদ্বীপই। করোনাকাল এবং লকডাউনের ফলে যে যে ক্ষেত্রগুলি প্রভূত ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছে তাঁর মধ্যে সবচেয়ে বেশি সঙ্কট নেমে এসেছে পর্যটন শিল্পে। ভয়ানকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে কম বেশি প্রতিটা দেশই। এদিকে নতুন বছরের শুরু থেকেই বিশ্বজুড়ে ফের দ্বিতীয় ওয়েভ থাবা বসাতে শুরু করেছে। বাদ যাচ্ছে না ভারতও। মহারাষ্ট্রের পুনে,মুম্বই সর্বত্রই চোখ রাঙাচ্ছে মারণ ভাইরাস। অথচ এই সঙ্কটময় পরিস্থিতির মধ্যেও ভারতীয় পর্যটকদের বর্তমানে অন্যতম প্রথম গন্তব্য এই মলদ্বীপই। মলদ্বীপে ভারতীয় পর্যটকের সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ৫০ শতাংশ। বিশ্বজুড়ে যখন বড় বড় পর্যটন স্পটগুলো বিশাল আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে তখন করোনা আগ্রাসনকেও বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে গত বছর বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় এক ট্যুরিস্ট স্পটে পরিণত হয় মলদ্বীপ। এই বছরেও অব্যাহত সেই বিজয়রথ। সূত্রের খবর, চলতি বছরের প্রথম দুমাসে মালদ্বীপে আগত ভারতীয় পর্যটকদের সংখ্যা প্রায় ৫০ শতাংশ বেড়ে গিয়েছে। এমনকী ভারতীয়দের মালদ্বীপ প্রীতি দেখে এখন অনেকেই এই দ্বীপ রাষ্ট্রকে গোয়ার সঙ্গেও তুলনা করতে শুরু করেছেন। মলদ্বীপে ভারতীয় পর্যটকের সংখ্যা বেড়েছে প্রায় ৫০ শতাংশ। বিশ্বজুড়ে যখন বড় বড় পর্যটন স্পটগুলো বিশাল আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়েছে তখন করোনা আগ্রাসনকেও বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে গত বছর বিশ্বের শীর্ষস্থানীয় এক ট্যুরিস্ট স্পটে পরিণত হয় মলদ্বীপ। এই বছরেও অব্যাহত সেই বিজয়রথ। সূত্রের খবর, চলতি বছরের প্রথম দুমাসে মালদ্বীপে আগত ভারতীয় পর্যটকদের সংখ্যা প্রায় ৫০ শতাংশ বেড়ে গিয়েছে। এমনকী ভারতীয়দের মালদ্বীপ প্রীতি দেখে এখন অনেকেই এই দ্বীপ রাষ্ট্রকে গোয়ার সঙ্গেও তুলনা করতে শুরু করেছেন। আর ভারতীয় তারকাদের অন্যতম ফেভরিট ডেস্টিনেশন এই বালুকাবেলা। আজ সারা আলী খান, কাল দিয়া মির্জা তো পরশু ক্যাটরিনা কাইফ। যখন তখন ছুটছেন সান বাথ নিতে। আর সোশ্যাল মিডিয়ায় ভেসে উঠছে তাঁদের উষ্ণ ছবি! আর ভারতীয় তারকাদের অন্যতম ফেভরিট ডেস্টিনেশন এই বালুকাবেলা। আজ সারা আলী খান, কাল দিয়া মির্জা তো পরশু ক্যাটরিনা কাইফ। যখন তখন ছুটছেন সান বাথ নিতে। আর সোশ্যাল মিডিয়ায় ভেসে উঠছে তাঁদের উষ্ণ ছবি! পরিসংখ্যান বলছে, এই বছরের প্রথম দু-মাসে মলদ্বীপে ভীড় করেছেন প্রায় ৪৪ হাজার ভারতীয়। যা ২০২০ সালের প্রায় দ্বিগুণ। এমনকী এই দুমাসে বিভিন্ন দেশ থেকে যে পরিমাণ পর্যটক মলদ্বীপে এসেছেন তাদের মধ্যে ২৩.৩ শতাংশই ভারতীয়। এমনকী একক দেশ হিসাবেও এই পর্যটক সংখ্যায় যা সর্বোচ্চ। সম্প্রতি মালদ্বীপের পর্যচন দফতরের তরফে এই তথ্য সামে আনা হয়েছে। পরিসংখ্যান বলছে, এই বছরের প্রথম দু-মাসে মলদ্বীপে ভীড় করেছেন প্রায় ৪৪ হাজার ভারতীয়। যা ২০২০ সালের প্রায় দ্বিগুণ। এমনকী এই দুমাসে বিভিন্ন দেশ থেকে যে পরিমাণ পর্যটক মলদ্বীপে এসেছেন তাদের মধ্যে ২৩.৩ শতাংশই ভারতীয়। এমনকী একক দেশ হিসাবেও এই পর্যটক সংখ্যায় যা সর্বোচ্চ। সম্প্রতি মালদ্বীপের পর্যচন দফতরের তরফে এই তথ্য সামে আনা হয়েছে। প্রতি বছর প্রায় ২০ লক্ষ পর্যটকের সমাগম হয় এই সৈকত নগরীতে। অন্যদিকে, ভারতীয় পর্যটকদের আগমণ বাড়লেও চিন, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া থেকে পর্যটক আগমণ প্রায় ৯৮ শতাংশ কমে গিয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। এর জন্য অবশ্য করোনার লাগামছাড়া সংক্রমণকেই দায়ী করছে ওয়াকিবহাল মহল। প্রতি বছর প্রায় ২০ লক্ষ পর্যটকের সমাগম হয় এই সৈকত নগরীতে। অন্যদিকে, ভারতীয় পর্যটকদের আগমণ বাড়লেও চিন, জাপান, দক্ষিণ কোরিয়া থেকে পর্যটক আগমণ প্রায় ৯৮ শতাংশ কমে গিয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। এর জন্য অবশ্য করোনার লাগামছাড়া সংক্রমণকেই দায়ী করছে ওয়াকিবহাল মহল। নির্জন নীল সমুদ্র সৈকত ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে এই দ্বীপের জুড়ি মেলা ভার। তাই কোয়ালিটি টাইম কাটাতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নানা বয়সী ভ্রমণ পিপাসু মানুষ ছুটে যান এই দ্বীপ দেশে। পরিসংখ্যান বলছে প্রতি বছর মালদ্বীপে প্রায় ২০ লাখ পর্যটকের সমাগম হয়। পিছিয়ে থাকেন না সেলিব্রিটিরাও। ছবি-ইনস্টাগ্রাম নির্জন নীল সমুদ্র সৈকত ও প্রাকৃতিক সৌন্দর্যে এই দ্বীপের জুড়ি মেলা ভার। তাই কোয়ালিটি টাইম কাটাতে বিশ্বের বিভিন্ন দেশের নানা বয়সী ভ্রমণ পিপাসু মানুষ ছুটে যান এই দ্বীপ দেশে। পরিসংখ্যান বলছে প্রতি বছর মালদ্বীপে প্রায় ২০ লাখ পর্যটকের সমাগম হয়। পিছিয়ে থাকেন না সেলিব্রিটিরাও।
    ছবি-ইনস্টাগ্রাম
    Published by:Sanjukta Sarkar
    First published: