লকডাউন অমান্য ! পড়ুয়াদের স্কুলে ডেকে মিড ডে মিলের চাল-আলু বিলি করে বিতর্কে মালদহের স্কুল !

লকডাউন অমান্য ! পড়ুয়াদের স্কুলে ডেকে মিড ডে মিলের চাল-আলু বিলি করে বিতর্কে মালদহের স্কুল !

লকডাউনের মধ্যেই স্কুলে পড়ুয়াদের ডেকে মিড ডে মিলের চাল,আলু বিলি।

  • Share this:

#মালদহ: লকডাউনের মধ্যেই স্কুলে পড়ুয়াদের ডেকে মিড ডে মিলের চাল,আলু বিলি। বিতর্কে মালদহের রতুয়া স্কুল। শেষ পর্যন্ত পুলিশ ও বিডিও-র অভিযানে বন্ধ করে দেওয়া হয় মি ডে মিল বিলি। মঙ্গলবার ঘটনা ঘটে মালদার রতুয়া ১ ব্লকের দেবীপুর আরএল সাহা হাইস্কুলে। রতুয়ার আরও বেশ কয়েকটি স্কুলে মিড ডে মিলের চাল আলু দেওয়ার জন্য পড়ুয়াদের ডাকা হয়। সকাল থেকে খুদে পড়ুয়ারাও স্কুল ড্রেস পরে হাজির হয় স্কুলে। দীর্ঘক্ষন লাইনে দাড় করিয়ে রাখা হয় তাঁদের। পরে রতুয়া থানার পুলিশ সমস্ত স্কুলেই মিডডে মিল স্কুলের পরিবর্তে বাড়িতে পৌছানোর নির্দেশ দেওয়া হয়।

রাজ্যের অন্যান্য এলাকার সঙ্গে মালদার রতুয়াতেও এদিন ছিল সরকারি লকডাউন। সকাল থেকে এনিয়ে বিভিন্ন এলাকায় মাইকিং ও শুরু করে পুলিশ। কিন্তু সকাল দশটা নাগাদ পড়ুয়াদের স্কুল পোশাক পরে স্কুল মুখি হতে দেখে সতর্ক হয় পুলিশ। ইতিমধ্যে আরএল সাহা স্কুলে কর্তৃপক্ষ চাল ও আলু বিলি শুরু করে দেয়।  রতুয়ার বিডিও সারোয়ার আলি এবং রতুয়া থানার ওসি কুনাল দাস ওই স্কুলে হানা দেন। বন্ধ করে দেওয়া হয় স্কুল থেকে মিড ডে  মিল বিলি। পরে অন্যান্য  স্কুলেও একই নির্দেশ দেয় পুলিশ। স্কুল কর্তৃপক্ষ জানায় লকডাউনের পরিস্থিতিতে পড়ুয়ারা আর স্কুলে আসতে পারবে না ভেবে এদিন স্কুল থেকে মিড ডে মিল দেওয়া শুরু হয়েছিল। পরে পুলিশি নির্দেশ পেয়ে মিড ডে মিল বাবদ খাবার বিলি বন্ধ করা হয়। পুলিশ জানিয়েছে লকডাউনের পরিস্থিতিতে সাধার‍ণ ভাবে কারোরই বাড়ি থেকে বের হওয়া ঠিক নয়। শিশুদের ক্ষেত্রে করোনা সংক্রমণের ভয় অনেকটাই বেশি। তাই কোনও অবস্থাতেই পড়ুয়াদের স্কুলে ডেকে পাঠানো যাবে না।

সেবক দেবশর্মা

First published: March 24, 2020, 9:37 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर