Coronavirus: করোনার কোপে কর্মী বাড়ন্ত, মারণ ভাইরাসের নমুনা নিলেন হাসপাতালের মালি!

Coronavirus: করোনার কোপে কর্মী বাড়ন্ত, মারণ ভাইরাসের নমুনা নিলেন হাসপাতালের মালি!

কোভিডের নমুনা নিচ্ছেন মালি।

রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী উপনির্বাচনের প্রচারে ব্যস্ত। অথচ সরকারি হাসপাতালে কোভিডের নমুনা সংগ্রহ করছেন হাসপাতালের মালি। এই ঘটনা দেখে চমকে উঠছেন সাধারণ মানুষ।

  • Share this:

    #ভোপাল: করোনাভাইরাসের (Coronavirus) দ্বিতীয় ঢেউয়ে বেসামাল মধ্যপ্রদেশ। পরিস্থিতি এমন যে স্বাস্থ্যকর্মীদের অভাবে হাসপাতালের মালি কোভিড ১৯ (Covid-19) পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহ করছেন। মধ্যপ্রদেশে প্রতিদিনের করোনা (Corona) সংক্রমণের হার ছাড়িয়ে গিয়েছে প্রায় ৬ হাজার। ফলে স্বাস্থ্যকর্মীরাও ঢুকে পড়েছেন সেই তালিকায়। সাঁচি সরকারি হাসপাতালের ভয়াবহ পরিস্থিতি এই সময় প্রকাশ্যে এসেছে। রাজ্যের স্বাস্থ্যমন্ত্রী উপনির্বাচনের প্রচারে ব্যস্ত। অথচ সরকারি হাসপাতালে কোভিডের নমুনা সংগ্রহ করছেন হাসপাতালের মালি। এই ঘটনা দেখে চমকে উঠছেন সাধারণ মানুষ। গাফলতির অভিযোগ তুলেছেন তাঁরা।

    গত কাল মধ্যপ্রদেশে প্রথমবার একদিনে করোনা রোগী ধরা পড়েছেন ৬,৪৮৯ জন। সাতদিন ধরে লাগাতার ৪ হাজারের উপরে একেক দিনে করোনা রোগী ধরা পড়ছেন। সোমবারও ভয়ঙ্কর হারে করোনা রোগী ধরা পড়েছেন রাজ্যে। এই মুহূর্তে মধ্যপ্রদেশে মোট করোনা রোগীর সংখ্যা ৪৬ হাজার ৫৭৭ জন। প্রায় ১১ দিন ধরে লাগাতার ভয়ানক হারে করোনা বাড়ছে রাজ্যে।

    সোশ্যাল মিডিয়ায় সাঁচি সরকারি হাসপাতালের এক মালিকে করোনার নমুনা সংগ্রহ করার ভিডিও দেখা গিয়েছে। ইন্দোরে হাসপাতালের গেটে অসংখ্য করোনা রোগী ভিড় করে বসে রয়েছেন ভর্তি হওয়ার জন্য। তবে হাসপাতালে বেড না থাকায় এভাবেই বাইরে অপেক্ষা করছেন তাঁরা। হালকে রাম নামের ওই মালি বলেছেন, 'আমি পেশায় মালি। হাসপাতালের কোনও পারমানেন্ট কর্মীও নই আমি। কিন্তু আমিই এই মুহূর্তে করোনার নমুনা নিচ্ছি, কারণ হাসপাতালের বাকিরা করোনায় আক্রান্ত।'

    ওই এলাকার ব্লক মেডিক্যাল অফিসার রাজশ্রী তিড়কে এই ঘটনায় জানিয়েছেন, ওই মালিকে নমুনা সংগ্রহের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। তাঁর কথায়, 'আমরা কী করব? হাসপাতালের অন্য স্বাস্থ্যকর্মীরা প্রত্যেকে করোনা পজিটিভ। জরুরি ভিত্তিতে এভাবেই আমাদের কাজ সামলাতে হচ্ছে। আমরা মালি-সহ অনেককেই নমুনা সংগ্রহের তালিম দিচ্ছি।' সাঁচি এলাকার স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডক্টর প্রভুরাম চৌধুরী আসন্ন উপনির্বাচন নিয়ে এই মুহূর্তে ব্যস্ত রয়েছেন বলে জানা গিয়েছে।

    Published by:Raima Chakraborty
    First published: