corona virus btn
corona virus btn
Loading

কোথায় মাস্ক! নেই সামাজিক দূরত্বের বালাই, পুরীতে জগন্নাথ দেবের স্নানযাত্রায় সামিল সেবায়েতরা

কোথায় মাস্ক! নেই সামাজিক দূরত্বের বালাই, পুরীতে জগন্নাথ দেবের স্নানযাত্রায় সামিল সেবায়েতরা

স্নানযাত্রা যে ছবি সামনে এসেছে, তাতে সেবায়েতদের কারও মুখে মাস্ক ছিল না । এমনকি তাঁদের মধ্যে কোনও সামাজিক দূরত্ব নজরে পড়েনি ।

  • Share this:

#পুরী: ইতিহাসে প্রথম । ভক্তদের উপস্থিতি ছাড়াই অনুষ্ঠিত হল জগন্নাথ দেবের স্নানযাত্রা । বৃহস্পতিবার রাতে পুরীর জগন্নাথ মন্দিরের দলপতিরা মন্দিরের ভেতর প্রবেশ করেন এবং তারপর সারা রাত তাঁরা মন্দিরের ভিতরেই ছিলেন । ভোররাতে জগন্নাথ দেব , বলরাম এবং সুভদ্রাকে মূল মন্দির থেকে স্নানের বেদিতে নিয়ে আসা হয় প্রধান পুরোহিতদের তত্বাবধানে । এরপর তিথি মেনে শুরু হয় স্নানযাত্রা পর্ব । পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখে প্রশাসন বৃহস্পতিবার রাত দশটা থেকে শনিবার বেলা দুটো পর্যন্ত ১৪৪ ধারা জারি করেছে ।

তবে আগে থেকেই জানানো হয়েছিল, এদিনের স্নানযাত্রা পর্ব পুরোটাই সরাসরি সম্প্রচারের ব্যবস্থা করা হবে । ফলে ভক্তরা সেই স্নানযাত্রা সরাসরি দেখতে পেয়েছেন । তবে এদিন স্নানযাত্রার যে ছবি সামনে এসেছে, তাতে সেবায়েতদের কারও মুখে মাস্ক ছিল না । এমনকি তাঁদের মধ্যে কোনও সামাজিক দূরত্ব নজরে পড়েনি । একেবারে পাশাপাশি বা ঘেঁষাঘেঁষি করে গোটা স্নানযাত্রা পর্বে অংশগ্রহণ করেছিলেন সেবায়েতরা । করোনা রুখতে যেখানে এত প্রচেষ্টা সেখানে সেবায়েতরা কেন এমন করলেন, কেন মাস্ক পরলেন না তাঁরা? কেনই বা সামাজিক দূরত্ব মানলেন না! তা নিয়েই প্রশ্ন উঠছে।

যদিও করোনা সংক্রমণ এড়াতে নির্দিষ্ট পরীক্ষার পরেই সেবায়েতরা পুণ্য স্নানযাত্রায় অংশগ্রহণ করেছিলেন বলে জানিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন । রথযাত্রার প্রথম অংশই হল স্নানযাত্রা৷ যা প্রতিবারই খুব ধুমধাম করে পালন করা হয় ৷ স্নানযাত্রা উৎসবে ১০৮ ঘড়া পুণ্য জল ঢালা হয় জগন্নাথ, বলরাম ও সুভদ্রার মাথায় ৷ সোনা কুয়ো থেকে এই জল তোলার সময় মুখে কাপড় দিয়ে ঢেকে রাখা হয় , যাতে জলে  নিঃশ্বাস পর্যন্ত না পড়ে ৷ সেই জল  একে একে জগন্নাথ দেবের মাথায় ৩৫ ঘড়া , বলরামের মাথায় ৩৩ ঘড়া , দেবী সুভদ্রার মাথায় ২২ ঘড়া এবং সুদর্শন দেবের মাথায় ১৮ ঘড়া জল ঢালা হয় ।

Published by: Shubhagata Dey
First published: June 5, 2020, 4:57 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर