হটস্পটে জারি থাকবে লকডাউন, অর্থনীতির অবস্থা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীদের আশ্বস্ত করলেন মোদি

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷

বৈঠকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ছাড়াও উপস্থিত রয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ এবং স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং৷

  • Share this:

    হটস্পটগুলিত ৩ মে-র পরও জারি থাকবে লকডাউন৷ সূত্রের খবর, এ দিন মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠকে সেরকমই জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি৷ তবে দেশের বাকি অংশেও লকডাউন জারি থাকবে কিনা, সেই সিদ্ধান্ত ৩ মে-র পরই নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী৷ একই সঙ্গে মুখ্যমন্ত্রীদের আশ্বস্ত করে তিনি জানিয়েছেন, অর্থনীতি নিয়ে উদ্বেগের কোনও কারণ নেই৷

    সূত্রের খবর, প্রধানমন্ত্রী ইঙ্গিত দিয়েছেন, প্রতি রাজ্যেই জেলাওয়াড়ি পরিস্থিতি খতিয়ে দেখে লকডাউন শিথিল করার বিষয়ে ছাড় দেওয়ার কথা ভাবা হবে৷ যেখানে পরিস্থিতি ভাল থাকবে, সেখানে লকডাউন তুলে নেওয়া হতে পারে৷

    প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এদিন সব মুখ্যমন্ত্রীদেরই দেশের অর্থনৈতিক অবস্থা নিয়ে আশ্বস্ত করেছেন বলে খবর৷ অর্থনীতৈক কার্যকলাপ চালু করার প্রয়োজনীয়তার কথা স্বীকার করে নিলেও তার জন্য যে কোনওভাবেই করোনা সংক্রমণ রোখার বিষয়টিতে আপোস করা হবে না, তা স্পষ্ট করে দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী৷

    কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহও বলেন, ধীরে ধীরে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ড শুরু করতে হবে ঠিকই৷ কিন্তু মাস্ক পরা বা সামাজিক দূরত্ব মেনে চলার মতো নিয়মগুলি শহরে তো বটেই, গ্রামীণ এলাকাতেও মানুষের দৈনন্দিন জীবনের অংশ হয়ে যাবে৷

    সূত্রের খবর, অর্থনীতিকে চাঙ্গা করতে খুব শিগগিরই আরও বেশ কয়েকটি বড় ঘোষণা করতে পারে কেন্দ্রীয় সরকার৷ অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামণের সঙ্গে বৈঠকে বসার কথা রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর৷

    মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েকের সঙ্গে বৈঠকে অংশ নেওয়াব ওড়িশার মন্ত্রী নব দাস জানিয়েছেন, তাঁরা আরও একমাস রাজ্যে লকডাউন বৃদ্ধির দাবি জানিয়েছেন৷ আবার বিহারের মুখ্যমন্ত্রী নীতীশ কুমার, পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফেরাতে কেন্দ্রকে পদক্ষেপ করার অনুরোধ করেছেন৷ পুদুচেরির মুখ্যমন্ত্রী ভি নারায়ণস্বামী বৈঠকের শেষে দাবি করেছেন, দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়তে থাকায় অধিকাংশ মুখ্যমন্ত্রীই সতর্কতার সঙ্গে এগনোর জন্য কেন্দ্রকে পরামর্শ দিয়েছেন৷ বিজেপি শাসিত অধিকাংশ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী লকডাউন চালিয়ে যাওয়ার পক্ষে সায় দিয়েছেন বলে দাবি করেছেন নারায়ণস্বামী৷

    Published by:Debamoy Ghosh
    First published: