শুধু করোনা থেকে বাঁচাই নয়, লকডাউনের আরও সুফল রয়েছে, পড়ুন

আগামী কয়েকদিনে পরিবেশের এই বদল আরও ত্বরান্বিত হবে বলে মনে করা হচ্ছে। লকডাউনে বাতাসে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ কমছে, বাড়ছে অক্সিজেনের মাত্রা।

আগামী কয়েকদিনে পরিবেশের এই বদল আরও ত্বরান্বিত হবে বলে মনে করা হচ্ছে। লকডাউনে বাতাসে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ কমছে, বাড়ছে অক্সিজেনের মাত্রা।

  • Share this:

#মালদহ: লকডাউনের  পর কেটে গেল প্রায় এক সপ্তাহ। নানা অসুবিধার মধ্যেও কার্যত ঘরবন্দি সিংহভাগ মানুষ । রাস্তা থেকে উধাও যানবাহন । শহরের অধিকাংশ রাস্তা ফাঁকা,  শুনসান। এরমধ্যেই বদলে যাচ্ছে মালদা শহরের চেনা ছবি। কারণ, ক্রমশ সবুজ হচ্ছে মালদা। রাস্তায় যানবাহন না থাকায় উধাও হয়েছে দূষণ। এর ফলে অলি -গলি থেকে রাজপথ সর্বত্রই সবুজ আর সতেজ হচ্ছে গাছপালা । এখানেই শেষ নয়, দূষণ না থাকায় বাড়ছে দৃশ্যমানতা । খালি চোখে আগের তুলনায় অনেক দূর পর্যন্ত দৃষ্টি যাচ্ছে । অনেক দূরের লক্ষ্যবস্তুকে পরিষ্কার দেখতে পাচ্ছেন মানুষজন। সবটাই সম্ভব হয়েছে লকডাউন জনিত দূষণ রোধের কারণেই ।

পরিবেশবিদদের মতে, লকডাউনে  এ মানুষের হাজারো সমস্যা হলেও কিছু সুফল হচ্ছে। তারই প্রমাণ মিলছে মালদা শহরেও । গত কয়েকদিনে মালদা শহরের বিভিন্ন আইল্যান্ড গুলিতে চেনা ছবি পরিবর্তন হয়েছে। সারাবছর শহরের অধিকাংশ গাছপালা থাকে ধুলোয় ভরা। একইভাবে শহরের আইল্যান্ড গুলি সবসময় অপরিচ্ছন্ন অবস্থায় দেখা যায়। কিন্তু গত কয়েক দিনে রাস্তায় সেভাবে লোকজন নেই, যানবাহনও প্রায় চলছেন না বললেই চলে। এর ফলে দূষণ কমছে অনেকটাই।

আগামী কয়েকদিনে পরিবেশের এই বদল আরও ত্বরান্বিত হবে বলে মনে করা হচ্ছে। লকডাউনে বাতাসে কার্বন ডাই অক্সাইডের পরিমাণ কমছে, বাড়ছে অক্সিজেনের মাত্রা। এরফলে শ্বাস নিতে সুবিধা হচ্ছে মানুষের। লকডাউন পরিস্থিতিতে জেলা শহরের পরিবেশের বদল নিয়ে নানা মহলে চর্চা চলছে। বিশেষ করে যাঁরা জরুরী প্রয়োজনে রাস্তাঘাটে বের হচ্ছেন, সহজেই চোখে ধরা দিচ্ছে এই গুরুত্বপূর্ণ বদল । আগামী 14 এপ্রিল পর্যন্ত লকডাউন থাকার কথা । এভাবে চললে আগামী কয়েক দিনে অনুকূল হবে পরিবেশ।

মালদহ দূষণ নিয়ন্ত্রণ প্রতিরোধ কমিটির সম্পাদক নারায়ণচন্দ্র সাহা বলেন, লকডাউনে যেভাবে দ্রুত পরিবেশ বদল হচ্ছে তা অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। পরিবেশ দূষণের সিংহভাগ হয় বিভিন্ন যানবাহন থেকে । এখন লোকজন বেরোচ্ছেন কম। যানবাহন নেই। ফলে পরিবেশের পক্ষে এই পরিস্থিতি অত্যন্ত লাভদায়ক হচ্ছে। ভবিষ্যতের পরিবেশের ক্ষেত্রেও লকডাউনের সুফল মিলবে।

Published by:Pooja Basu
First published: