corona virus btn
corona virus btn
Loading

লকডাউনে ধৃতের সংখ্যা কমলেও উদ্বেগ কমল না পুলিশের, অত্যাবশকীয় পরিষেবার সঙ্গে যুক্তদের জন্য চালু হেল্পলাইন     

লকডাউনে ধৃতের সংখ্যা কমলেও উদ্বেগ কমল না পুলিশের, অত্যাবশকীয় পরিষেবার সঙ্গে যুক্তদের জন্য চালু হেল্পলাইন     

অত্যাবশকীয় পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত কেউ যদি কাজ করতে গিয়ে সমস্যায় পড়েন তাদের জন্য দুটি নম্বরের ব্যবস্থা আছে।

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা না কলকাতা পুলিশ?  শহরবাসীরা এখন অনেকেই প্রশ্নই তুলছেন। করোনা ভাইরাসের মোকাবিলায় গোটা দেশ ঘরবন্দি৷ সেই বন্দি দশাতে নিজেদের অভ্যস্ত করতে সরকার থেকে স্থানীয় প্রশাসনের আবেদন, একটু ঘরে থাকুন নিজের জন্য। এই বার্তা ঘরের বাইরে মাইকে বা টিভি পর্দায় বিজ্ঞাপনে বারবার মনে করিয়ে দিলেও শহরের একাংশ থোড়াই কেয়ার।

লকডাউনের সময় ঘরের বাইরে পুলিশ দেখেও একটু অজুহাত,  আমাকে ছেড়ে দিন, সামনেই যাবো। শহরের বুকে এই ধরনের অজুহাত হাজারো। যারা সঠিক কারন দেখিয়ে বাড়ির বাইরে উর্দি ধারিকে সন্তুষ্ট করতে পাররেন তারা গেলেন।  আর যারা পারলেন না তারা খেলেন মার। তবে সেই অজুহাত দিয়ে ঘরের বাইরের সংখ্যাটা কম নয়, সব মিলিয়ে ৮৭১ জন ধৃত। কলকাতা পুলিশের ৯ টি ডিভিশনের মধ্যে সবচেয়ে বেশি লকডাউন অমান্য করতে দেখা যায় সাউথ ইস্ট ডিভিশনে। তারপরেই থাকছে ইস্ট সাবরবান ডিভিশন।

অন্য সব ডিভিশনের সংখ্যা দুটির তুলনায় কম। যদিও উদ্বেগ বাড়ে প্রথম দিনের সংখ্যাটার সঙ্গে তুলনা টানলে। প্রথম দিন এক হাজার ধৃত হলেও দ্বিতীয় দিন ৮৭১। তবুও এত লোকের লকডাউনকে বুড়ো আঙুল দেখানোর স্পর্ধাটা যথেষ্টই চিন্তার। চিকিৎসকদের মত করোনার মত মারন ভাইরাসকে বিনাশ করতে একমাত্র প্রয়োজন জনজীবন স্তব্ধ করা, সবার সঙ্গে দুরত্ব বজায় রাখা। তবে লকডাউনের দ্বিতীয় দিনেও যে সংখ্যা রাস্তায় দেখা মিলল তাতে অনেকটাই উদ্বেগের থেকে দুশ্চিন্তারও বটে। বুধবারই কলকাতা পুলিশের ট্যুইটার অ্যাকাউন্টে জানানো হয়, অত্যাবশকীয় পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত কেউ যদি কাজ করতে গিয়ে সমস্যায় পড়েন তাদের জন্য দুটি নম্বরের ব্যবস্থা আছে। নম্বর গুলি হল- 9432610446, 9874903465

Susovan Bhattacharjee

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: March 25, 2020, 11:20 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर