Home /News /coronavirus-latest-news /
বিনামূল্যে অনলাইনেই পাওয়া যাবে বিখ্যাত চিকিৎসকের সাড়া! করোনাকালে সেরা চমক পুরসভার

বিনামূল্যে অনলাইনেই পাওয়া যাবে বিখ্যাত চিকিৎসকের সাড়া! করোনাকালে সেরা চমক পুরসভার

তবে যা-ই করুন না কেন, সবার আগে কোনও চিকিৎসক বা ডায়েট বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন। তিনি-ই বলে দিতে পারবেন, কোন ভিটামিন নিয়ম করে কতটা গ্রহণ করা উচিত আপনার!

তবে যা-ই করুন না কেন, সবার আগে কোনও চিকিৎসক বা ডায়েট বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিন। তিনি-ই বলে দিতে পারবেন, কোন ভিটামিন নিয়ম করে কতটা গ্রহণ করা উচিত আপনার!

অতিমারীর পরিস্থিতিতে অনেক ডাক্তারবাবু চেম্বারে বসতে চাইছেন না। অনেক রোগীও ভয়ে চেম্বারে আসতেও চাইছেন না। দুই পক্ষের সমস্যার সমাধানে এবার খুব কার্যকরী হবে কলকাতা পুরসভা এবং আই এম এ রাজ্য শাখার যৌথ উদ্যোগে তৈরি এই পোর্টাল।

  • Share this:

#কলকাতা: পোশাকি নাম 'ডাক্তারবাবু'। লিঙ্ক- kmc.janupchaar.com.।  করোনা আবহে অনলাইনে রোগী দেখার জন্য নতুন ওয়েব পোর্টাল চালু হল রাজ্যে।

অতিমারীর পরিস্থিতিতে অনেক ডাক্তারবাবু চেম্বারে বসতে চাইছেন না। অনেক রোগীও ভয়ে চেম্বারে আসতেও চাইছেন না। দুই পক্ষের সমস্যার সমাধানে এবার খুব কার্যকরী হবে কলকাতা পুরসভা এবং আই এম এ রাজ্য শাখার যৌথ উদ্যোগে তৈরি এই পোর্টাল।

বিশ্বের যে কোন প্রান্ত থেকে শহরের ৩৫ জন খ্যাতনামা ডাক্তারবাবুর সঙ্গে সরাসরি ভার্চুয়াল চেম্বারে ভিজিট করতে পারবেন রোগীরা। পরে ধাপে ধাপে ডাক্তারের সংখ্যা বাড়িয়ে ১০০ করা হবে। সপ্তাহের যে কোনো এক দিন টানা এক ঘন্টা ভার্চুয়াল চেম্বারে রোগী দেখবেন তাঁরা। রোগীদের আগে পোর্টালে গিয়ে দেখে নিতে হবে কোন ডাক্তার কবে ভার্চুয়াল চেম্বারে বসছেন। সেই মতো নাম লেখাতে হবে। অর্থাৎ ই-রেজিস্ট্রেশন করতে হবে। ভিজিটের আগেই আপলোড করে দিতে হবে তার সমস্ত শারীরিক পরীক্ষা-নিরীক্ষার নথির স্ক্যান কপি। ডাক্তারবাবুও তাঁকে ই প্রেসক্রিপশন দেবেন। গোটা ব্যাপারে নেট ছাড়া আর কোনও খরচ নেই। সবটাই সম্পূর্ণ ফ্রি।

শনিবার এই বিশেষ পোর্টাল এর উদ্বোধন করেন কলকাতা পুরসভার অ্যাডমিনিস্ট্রেটর ফিরহাদ হাকিম।  তিনি বলেন, "কলকাতার মানুষদের অনেকেই কোভিডের জন্য হাসপাতালে যাচ্ছেন না । কলকাতা পুরসভা ও আইএমএ-র এই উদ্যোগ মানুষ উপকৃত হবে।"  পাশাপাশি আইএমএ-এর পক্ষে চিকিৎসক শান্তনু সেন বলেন, "ফ্রি হলেও সব বিশিষ্ট চিকিৎসকরাই থাকবেন এই প্ল্যাটফর্মে । রোগীরা প্রেসক্রিপশন ডাউনলোড ও করতে পারবেন। টেস্ট রিপোর্ট ও দেখাতে পারবেন।"

কেএমসি কর্তৃপক্ষের আশা, টক টু কেএমসির মতোই এই ডাক্তারবাবু পোর্টালটি ও জনপ্রিয় হবে মানুষের মধ্যে ।।

Published by:Arka Deb
First published:

Tags: Coronavirus, COVID19

পরবর্তী খবর