• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • করোনার চিকিৎসায় এবারে কোভিড কেয়ার কোচ তৈরি, উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলও কোভিড মোকাবিলায় প্রস্তুত 

করোনার চিকিৎসায় এবারে কোভিড কেয়ার কোচ তৈরি, উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলও কোভিড মোকাবিলায় প্রস্তুত 

যেভাবে ছড়াচ্ছে মারণ করোনা, তাতে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে বেড পাওয়া মুশকিল হয়ে দাঁড়াতে পারে। আর তাই এই কোভিড কেয়ার ইউনিট তৈরি করছে ভারতীয় রেল।

যেভাবে ছড়াচ্ছে মারণ করোনা, তাতে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে বেড পাওয়া মুশকিল হয়ে দাঁড়াতে পারে। আর তাই এই কোভিড কেয়ার ইউনিট তৈরি করছে ভারতীয় রেল।

যেভাবে ছড়াচ্ছে মারণ করোনা, তাতে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে বেড পাওয়া মুশকিল হয়ে দাঁড়াতে পারে। আর তাই এই কোভিড কেয়ার ইউনিট তৈরি করছে ভারতীয় রেল।

  • Share this:

#শিলিগুড়ি: বাড়ছে সংক্রমণ। প্রতিনিয়ত আক্রান্তের গ্রাফ এগিয়ে চলছে। তার মোকাবিলায় ইতিমধ্যেই বেশ কয়েকটি রাজ্যে নতুন করে লকডাউন শুরু করেছে। অসম, বিহারেও চলছে লকডাউন। রাজ্যের বেশ কয়েকটি জেলাতেও লকডাউন জারি করা হয়েছে। বাড়ানো হয়েছে কন্টেইনমেন্ট জোনের সংখ্যা। যে হারে সংক্রমণ বাড়ছে তাতে উদ্বিগ্ন দেশবাসী।

প্রতিদিনই ছাপিয়ে যাচ্ছে আক্রান্তের রেকর্ড! আগামীদিনে কোথায় গিয়ে থামবে এই মারণ ভাইরাস? তার কোনও উত্তর নেই। কোভিড মোকাবিলায় এগিয়ে এসছে ভারতীয় রেল। যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচল এখনও পুরো স্বাভাবিক হয়নি। তবুও রেল কর্তারা এর মোকাবিলায় তৈরি। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের পরামর্শে এবারে তৈরি কোভিড কেয়ার কোচ। এর আগে আইসোলেশন কোচ তৈরি করেছিল ভারতীয় রেল। শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনও চালিয়েছিল। কিন্তু যেভাবে ছড়াচ্ছে মারণ করোনা, তাতে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে বেড পাওয়া মুশকিল হয়ে দাঁড়াতে পারে। আর তাই এই কোভিড কেয়ার ইউনিট তৈরি করছে ভারতীয় রেল।

উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলও করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নেমে পড়েছে। ইতিমধ্যেই ৩১৫টি কোভিড কেয়ার কোচ তৈরি হয়ে গিয়েছে। উত্তর-পূর্ব ভারতের যে রাজ্য থেকে কোচের চাহিদা আসবে, সেইমতো পৌঁছে যাবে নির্দিষ্ট স্টেশনে। বিহারের কাটিহার জংশনে পৌঁছে গিয়েছে ২০টি কোচ। জংশনের ৮ নং প্ল্যাটফর্মে দাঁড়িয়ে গিয়েছে কোভিড কেয়ার কোচ। কি থাকছে এই কোচে? অক্সিজেন সিলিন্ডার, অগ্নি নির্বাপন ব্যবস্থায় ফায়ার ইস্টিংগ্যুইশার, মশারি, প্লাস্টিকের চেয়ার, ডাস্টবিন, মগ, সাবান জল-সহ করোনা প্রতিরোধক স্বাস্থ্য সরঞ্জাম। সংশ্লিষ্ট রাজ্যই চিকিৎসার ব্যবস্থা করবে। নিয়োগ করবে চিকিৎসক, নার্স-সহ স্বাস্থ্য কর্মীদের। রাজ্যের সরকারি এবং বেসরকারি হাসপাতালে বেড অপ্রতুল হলেই আক্রান্তদের ভর্তি করানো হবে কোভিড কেয়ার কোচে। সেখানেই হবে এর চিকিৎসা। উত্তর-পূর্ব সীমান্ত রেলের মুখ্য জন সংযোগ আধিকারিক শুভানন চন্দ জানান, রাজ্যের চাহিদা মতোই কোচ পাঠানো হবে সংশ্লিষ্ট স্টেশনে। ৩১৫টি কোভিড কেয়ার কোচ তৈরি করা হয়েছে।

পার্থ প্রতিম সরকার

Published by:Siddhartha Sarkar
First published: