corona virus btn
corona virus btn
Loading

মে মাসেই অবস্থার উন্নতি, ২৬ জুলাইয়ের মধ্যে ভারত থেকে বিদায় নেবে করোনা, দাবি গবেষকদের

মে মাসেই অবস্থার উন্নতি, ২৬ জুলাইয়ের মধ্যে ভারত থেকে বিদায় নেবে করোনা, দাবি গবেষকদের

সিঙ্গাপুরের ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজি অ্যান্ড ডিজাইনের গবেষণায় আশার আলো ৷ অন্তত ভারতের জন্য তো বটেই ৷

  • Share this:

#কলকাতা: গোটা বিশ্বে এখন আতঙ্কের একটাই নাম, করোনাভাইরাস ৷ কবে এই মারণ ভাইরাস থেকে মুক্তি ? সবার মনেই এখন এই একটাই প্রশ্ন ৷ বিভিন্ন দেশের গবেষকরাই এই কাজে নেমে পড়েছেন বেশ অনেকদিন ধরেই ৷ ভ্যাকসিন তৈরিতেও অনেক দেশই এখনও পর্যন্ত বেশ কিছু সাফল্য পেয়েছে ৷ তবে এবার সিঙ্গাপুরের ইউনিভার্সিটি অফ টেকনোলজি অ্যান্ড ডিজাইনের রিপোর্টে মিলল কিছুটা স্বস্তির খবর ৷ অন্তত ভারতের জন্য তো বটেই ৷

দেশজুড়ে লকডাউনের মধ্যেও ৩০ হাজার ছোঁয়ার পথে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। মৃতের সংখ্যাও লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। আগামী ৩ মে-র পরেও গ্রিন জোন বাদে সর্বত্র যে লকডাউন থাকছে, তা একপ্রকার নিশ্চিত। এই পরিস্থিতিতে সকলের একটাই প্রশ্ন। করোনার হাত থেকে কবে মুক্তি পাওয়া যাবে? সিঙ্গাপুরের বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণা অনুযায়ী, ভারতে মে মাসেই নিয়ন্ত্রণে আসবে করোনা ৷ ২১-২২ মে-র মধ্যেই পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণে আসতে পারে করোনা ৷ ভারতে ৯৭% পর্যন্ত কমতে পারে করোনা সংক্রমণ ৷ ১ জুনের মধ্যে ৯৯% করোনা আক্রান্তই সুস্থ হয়ে উঠতে পারেন ৷ আর ২৬ জুলাইয়ের মধ্যে পুরোপুরি করোনা মুক্ত হতে পারে ভারত ৷ ডিসেম্বরে করোনা থেকে মুক্ত হতে পারে গোটা বিশ্বও ৷

সিঙ্গাপুর বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষণার সঙ্গে মিলে যাচ্ছে ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চের পূর্বাভাসও। ICMR-এর পূর্বাভাস অনুযায়ী, মে মাসের প্রথম সপ্তাহে দেশে আক্রান্তের সংখ্যা শীর্ষে পৌঁছতে পারে। এরপর মে-র দ্বিতীয়ার্ধ থেকে কমতে পারে আক্রান্তের সংখ্যা ৷ চিনের করোনা পরিস্থিতির উপর ভিত্তি করে একটি গাণিতিক মডেল তৈরি করেছেন সিঙ্গাপুরের গবেষকরা ৷ গবেষণায় চিনের মডেলের উপর ভিত্তি করে বিভিন্ন দেশের ক্ষেত্রে পূর্বাভাস দেওয়া হয়েছে ৷

তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই গবেষণার সঙ্গে বাস্তব-চিত্র মেলার সম্ভাবনা কম। কারণ সিঙ্গাপুরের গবেষণাটি করা হয়েছে মূলত ধারণা ও পরিস্থিতির উপর ভিত্তি করে। আর চিনের সঙ্গে ভারত বা অন্য কোনও দেশের পরিস্থিতি মিলবে, তার কোনও বাস্তব ভিত্তি নেই। তাই এই গবেষণাকে গুরুত্ব দিতে নারাজ অনেকেই।

First published: April 28, 2020, 3:03 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर