corona virus btn
corona virus btn
Loading

আর ১টাকাও 'ফালতু' টেস্ট কিটের জন্য খরচ নয়, চিনের ত্রুটিপূর্ণ কিটে ইতি টানল ভারত

আর ১টাকাও 'ফালতু' টেস্ট কিটের জন্য খরচ নয়, চিনের ত্রুটিপূর্ণ কিটে ইতি টানল ভারত

চিন থেকে আমদানি কিটের জন্য দ্বিগুণ দাম দিতে হয়েছে ভারত সরকারকে৷ এই মর্মে দিল্লি হাইকোর্টে একটি মামলাও দায়ের হয়েছে৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: চিন থেকে আসা অধিকাংশ করোনা টেস্ট কিটে রয়েছে সমস্যা৷ তাই এবার এই সংক্রান্ত অর্ডার বাতিল করছে ভারত৷ প্রাথমিকভাবে চিনের বিভিন্ন সংস্থা থেকে আসা এই সব টেস্ট কিট অনুমোদন করে সেন্ট্রাল ড্রাগ স্যান্ডার্ড কন্ট্রোল অর্গানাইজেশন (CDSCO)৷

সূত্রের খবর, চিন থেকে আসা টেস্ট কিট নিয়ে সমস্যায় পড়ে ভারত সরকার৷ এরপরই বেশ কিছু চিনা সংস্থার ওপর বিধি নিষেধ আরোপ করা হয়৷ আইসিএমআরের পক্ষ থেকেও এদের গুণগত মান নিয়ে প্রশ্ন তোলা হয়৷

আরও পড়ুন বদলে চলেছে করোনার উপসর্গ, এবার গা শিরশির বা ঠোঁট নীলচে হলেই বিপদের আশঙ্কা

বিরোধিরাও সরব হয়েছিলেন এই সব ত্রুটিপূর্ণ কিটের বিরুদ্ধে৷ এই পরিস্থিতিতে দাঁড়িয়ে অবশেষে চিনা টেস্ট কিটকে বাতিল করল ভারত৷ আর এই সমস্ত কিট দিয়ে নমুনা পরীক্ষা হবে না বলেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছে৷ তবে এই আমদানি কিট বাতিল করার ফলে কোনও আর্থিক সমস্যা হবে না ভারতের৷ ১ টাকাও নষ্ট হবে না বলেই দাবি করেছে আইসিএমআর৷ এখনও চিনা সংস্থাকে এই কিটের জন্য কোনও টাকা দেওয়া হয়নি বলেই জানানো হয়েছে৷

দ্রুত পরীক্ষার জন্য পদক্ষেপ নিয়েছিল ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অব মেডিক্যাল কাউন্সিল৷ সে কারণে বিপুল পরিমাণে টেস্টের পক্ষে সওয়াল করে চিনের দুটি সংস্থা ওয়ান্ডফো বায়োটেক ও লিভজন ডায়াগনস্টিকের সঙ্গে চুক্তি করা হয়েছিল৷ প্রায় ৫ লক্ষ রেপিড অ্যান্টিবডি টেস্ট কিট আনানো হয়েছিল সেখান থেকে৷ কিন্তু তারপর অনেক ক্ষেত্রেই তা ঠিক মত কাজ করেনি৷ তাই আপাতত এই সব কিট দিয়ে পরীক্ষা বন্ধ রাখা হয়েছে৷

চিন থেকে আমদানি কিটের জন্য দ্বিগুণ দাম দিতে হয়েছে ভারত সরকারকে৷ এই মর্মে দিল্লি হাইকোর্টে একটি মামলাও দায়ের হয়েছে৷ তবে সরকারের পক্ষ থেকে আইসিএমআর জানিয়ে দিয়েছে যে এই গলদ হওয়া টেস্ট কিটের জন্য সরকারের ১ টাকাও খরচ হবে না৷ অর্থাৎ ভুল এই কিটের জন্য সরকারি টাকা নষ্ট হওয়ার যে অভিযোগ উঠছিল তা একপ্রকার খারিজ করা হল৷

First published: April 27, 2020, 7:37 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर