করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

ব্রিটেনের সঙ্গে বিমান যোগাযোগে আগামী ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত স্থগিতাদেশ জারি করল ভারত

ব্রিটেনের সঙ্গে বিমান যোগাযোগে আগামী ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত স্থগিতাদেশ জারি করল ভারত

ব্রিটেনে করোনা ভাইরাসের নতুন স্ট্রেন আসার পর, ২৩ থেকে ৩১ ডিসেম্বর বন্ধ রাখা হয়েছিল বিমানের উড়ান। এবার এই স্থগিতাদেশ বাড়িয়ে দেওয়া হল ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত।

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: বুধবার ভারত সরকারের তরফে, ব্রিটেনের বিমান আপাতত স্থগিত রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ব্রিটেনে করোনা ভাইরাসের নতুন স্ট্রেন আসার পর, ২৩ থেকে ৩১ ডিসেম্বর বন্ধ রাখা হয়েছিল বিমানের উড়ান। এবার এই স্থগিতাদেশ বাড়িয়ে দেওয়া হল ৭ জানুয়ারি পর্যন্ত। বিমানমন্ত্রী হরদীপ সিং পুরী জানিয়েছেন, “আগামী ৭ জানুয়ারী, ২০২১ পর্যন্ত উড়ান বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এরপর পুনরায় যাতায়াত শুরু হবে নিয়ন্ত্রিত ভাবে। কি ভাবে ফের শুরু হবে উড়ান, সে বিষয়ে বিশদে ঘোষণা করা হবে খুব তাড়াতাড়ি।”

স্বাস্থ্য মন্ত্রকের তথ্য অনুযায়ী, ব্রিটেন থেকে ফেরা ২০ জনের শরীরে মিলেছে ব্রিটেনের নতুন করোনা স্ট্রেন সার্স-কোভ-২। এই ২০ জনের মধ্যে ৬ জনের কোভিড পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে এই মঙ্গলবার। প্রয়োজনীয় সব রকম স্বাস্থ্য পরিষেবা দিয়ে তাঁদের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। এই ছয় ব্যক্তির সংস্পর্শে আসা সকলকেই রাখা হয়েছে কোয়ারেন্টাইনে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছে, “এই কোভিড পজিটিভ ব্যক্তিদের সংস্পর্শে কারা এসেছিলেন, তা অনুসন্ধান করে বের করা হয়েছে। অন্য যে সব যাত্রীদের কোভিড টেস্ট করা হয়েছে, তাঁদের স্যাম্পল রাখা হয়েছে নতুন স্ট্রেনে আক্রান্ত কিনা, তা পরীক্ষা করে দেখার জন্য। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রাখতে, সতর্ক নজরদারি চলছে। রাজ্যগুলিকেও নিয়মিত পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে মতো টেস্ট করানোর।”

এই নতুন স্ট্রেন সম্পর্কে এখনও খুব বেশি জানা সম্ভব হয়নি। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এই স্ট্রেনের বিরুদ্ধে কার্যকরী হতে পারে করোনা ভ্যাকসিন। গত সেপ্টেম্বর মাসে প্রথম মিউট্যান্ট ভাইরাসের অস্তিত্ব পাওয়া গিয়েছিল দক্ষিণ-পূর্ব ইংল্যান্ডে। এরপর, খুব অল্প সম্যের মধ্যেই ব্রিটেনে ছড়িয়ে পড়ে ভাইরাসের এই নতুন স্ট্রেন। শুধু ইংল্যান্ডেই নয়, ইতিমধ্যেই এই ভাইরাস স্ট্রেনের সংক্রমণ ছড়িয়েছে ডেনমার্ক, নেদারল্যান্ডস, ইতালি, সুইডেন, ফ্রান্স, স্পেন, জার্মানি, কানাডা এবং আরও বেশ কয়েকটি দেশে।

ভারতে গত নভেম্বর ২৫ থেকে ডিসেম্বর ২৩-এর মধ্যে ব্রিটেন থেকে মোট ৩৩,০০০ বিমান যাত্রী এসেছেন । প্রত্যেক যাত্রীর খোঁজ করে, চলছে তাঁদের আরটি-পিসিআর টেস্ট।

Published by: Antara Dey
First published: December 30, 2020, 4:13 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर