কামাল করে দেখাল বিহার, ‘গরুর’ অ্যাপেই তাঁরা জয় করছে করোনাকে

ভারত নেপাল সীমান্তে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সশস্ত্র সীমা বল বা এসএসবি-র পক্ষ থেকে চিঠি লিখে এই বিষয়ে নেপাল সীমান্ত লাগোয়া চম্পারন জেলার পুলিশ সুপার এবং জেলা শাসককে ইতিমধ্যেই এ বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছে৷ চিঠিতে দাবি করা হয়েছে, এই চক্রান্ত কার্যকর করতে নেপাল থেকে একটি চক্র কাজ করছে৷ PHOTO- FILE

  • Share this:

    #পটনা: সারা বিশ্ব এখন কাবু ছোট্ট এক মারণ ভাইরাসের ভয়ে । এক ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র ভাইরাস প্রায় স্তব্ধ করে দিয়েছ গোটা পৃথিবীকে। এ দেশেও সংক্রমণ সাড়ে ৫ হাজার ছাড়িয়েছে । করোনায় মৃত বেড়ে ১৬৬ । তার মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৪৭৩ জন । ভারতে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত মহারাষ্ট্রে । মহারাষ্ট্রে করোনা আক্রান্ত ১১৩৫ জন । সংক্রমণ ঠেকাতে ২১ দিনের লকডাউন ঘোষণা করেছে কেন্দ্রীয় সরকার । রাজনৈতিক মহলের মতে আরও বাড়বে এই লকডাউন । কারণ করোনা সংক্রমণ রুখতে এছাড়া আর কোনও পথ নেই । কিন্তু যেখানে সারা দেশ এই ভাইরাস মোকাবিলায় হিমশিম খাচ্ছে, সেখানে কামাল করে দেখাল বিহার। বিহারের বিপর্যয় মোকাবিলা দফতর তৈরি করেছে একটি বিশেষ অ্যাপ । ‘গরুর’ নামের সেই অ্যাপেই করোনাকে রুখে দিয়েছে বিহার। কারণ এই অ্যাপের মাধ্যমে করোনা আক্রান্তদের সহজেই শনাক্ত করা সম্ভব হচ্ছে । এই অ্যাপের মাধ্যমে প্রথমে ভ্রমণর ইতিহাস রয়েছে এমন ব্যক্তিদের শনাক্ত করা হয়েছে । এরকম ২ লাখ ব্যক্তিকে খুঁজে পাওয়া গিয়েছে । তাঁদের সকলকে হোম-কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের প্রিন্সিপাল সেকরেটরি প্রত্যয় অমৃত বলছেন, এই অ্যাপের মাধ্যমে আমরা ১.৭৭ লাখ বাড়ি সার্ভে করেছি । তার মধ্যে ২ লাখ ৭৮ হাজার ৭১৮ জনকে চিহ্নিত করা হয়েছে যাঁরা বাইরে থেকে বিহারে এসেছেন । এর মধ্যে আবার ৩৬১ জনকে চিহ্নিত করে আইসোলেশনে পাঠানো হয়েছে । রাজ্যের সমস্ত স্কুল ও পঞ্চায়েতগুলিকে কোযারেন্টাইন সেন্টারে রূপান্তরিত করা হয়েছে । যাতে প্রায় ৩১১৯২ জন রয়েছেন । আর এই অ্যাপের জোরেই এখন বিহারে আক্রান্তের সংখ্যা অনেক নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব হয়েছে ।

    Published by:Simli Raha
    First published: