corona virus btn
corona virus btn
Loading

'মেয়েটাকে দূর থেকে দেখি, কোলে নিতে পারি না!', লকডাউনে কর্তব্যরত পুলিশের করুণ কাহিনি

'মেয়েটাকে দূর থেকে দেখি, কোলে নিতে পারি না!', লকডাউনে কর্তব্যরত পুলিশের করুণ কাহিনি

লকডাউনে মানুষ গৃহবন্দি, কিন্তু দিন-রাত এক করে রাস্তা-ঘাটে পরিশ্রম করে যাচ্ছেন পুলিশ কর্মীরা, যাতে আমরা ভাল থাকি! বাড়ির বাইরে, তাই পরিবারে ফিরে তাঁদের কাছের মানুষদের থেকে দূরে থাকতে হচ্ছে

  • Share this:

#ভোপাল: করোনা মোকাবিলায় গোটা দেশে লকডাউন। গৃহবন্দি মানুষজন। কিন্তু এই ভয়াবহ পরিস্থিতিতেও সচল রয়েছেন সেই সব পেশার মানুষ, যাঁরা অত্যাবশ্যক পরিষেবার সঙ্গে জড়িত, যেমন স্বাস্থ্য কর্মী, পুলিশ কর্মী। দিন-রাত এক করে পুলিশ কর্মীরা পরিশ্রম করে যাচ্ছেন লকডাউনকে সফল করতে। রাস্তায় নেমে পড়া জনগণদের বাড়ি পাঠাচ্ছেন, গরিবদের পৌঁছে দিচ্ছেন খাবার-জল, এমনকী মানুষকে করোনা নিয়ে সচেতন করতে কখনও গান ধরছেন, কখনও বা ছবি আঁকছেন রাস্তাজুড়ে।

কিন্তু একটা কথা ভেবে দেখুন তো, পুলিশ কর্মীরা নিজে সারাদিন-রাত রাস্তা-ঘাটে রয়েছেন। তাঁরা যথাযথ সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিচ্ছেন ঠিকই, কিন্তু গৃহবন্দি তো নয়! সেক্ষেত্রে নিজের পরিবারের মধ্যে তাঁদের সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে হচ্ছে! কাছের মানুষগুলোকে দূর থেকেই দেখতে হচ্ছে! এমনই চোখে জল আনা এক পরিস্থিতির কথা একটি সংবাদমাধ্যমে জানালেন ভোপালের পুলিশ অফিসার নির্মল কুমার শ্রীবাস । তিনি জানান, '' বাড়িতে গিয়ে মেয়েটাকে কোলে পর্যন্ত নিতে পারি না। দূর থেকে ও আমার দিকে ফ্যালফ্যাল চোখে তাকিয়ে থাকে। আমি বাড়িতেও আইসোলেশনে থাকি, আলাদা খাই। ও তো ছোট, এতকিছু বোধহয় বুঝে উঠতে পারে না, খালি দূর থেকে আমায় দেখতে থাকে!''

পুলিশ ইন্সপেক্টরের এই ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার হতেই ভাইরাল হয়। ছবিতে দেখা যাচ্ছে বাড়ির দাওয়ায় বসে ইন্সপেক্টর খাবার খাচ্ছেন। উলটানো একটা বালতিকে টেবিল বানিয়েছেন, সেখানেই রাখা খাবারের প্লেট। তাঁর ছোট্ট মেয়ে দূরে দরজার পাশে দাঁড়িয়ে ছলছলে চোখে বাবাকে দেখছে!

First published: April 7, 2020, 3:09 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर