রিপোর্ট আসতে ৪৮ ঘণ্টা, বিনা চিকিৎসাতেই মারা গেলেন মূর্শিদাবাদের স্বাস্থ্যকর্মী

পরিবারের অভিযোগ, শুক্রবার লালা রস পরীক্ষা করা হলেও রিপোর্ট আসে সোমবার। রিপোর্ট দেরিতে আসার জন্যই চিকিৎসার সুযোগ পাওয়া যায়নি।

পরিবারের অভিযোগ, শুক্রবার লালা রস পরীক্ষা করা হলেও রিপোর্ট আসে সোমবার। রিপোর্ট দেরিতে আসার জন্যই চিকিৎসার সুযোগ পাওয়া যায়নি।

  • Share this:

    Pranab Kumar Banerjee

    #সালার: করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেলেন এক স্বাস্থ্যকর্মী। সালারের প্রসাদপুরে বাড়ি। মৃতের নাম শর্বরী ঘোষ। সালার ব্লক স্বাস্থ্য কেন্দ্রের স্বাস্থ্য কর্মী ছিলেন ওই মহিলা। সোমবার তার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে তাঁর। এরপরই তাঁকে মূর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজের কোভিড হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। মঙ্গলবার সকালে মারা যান ওই স্বাস্থ্যকর্মী। পরিবারের অভিযোগ, শুক্রবার লালা রস পরীক্ষা করা হলেও রিপোর্ট আসে সোমবার। রিপোর্ট দেরিতে আসার জন্যই চিকিৎসার সুযোগ পাওয়া যায়নি।

    জেলার স্বাস্থ্য আধিকারিক প্রশান্ত বিশ্বাস বলেন, স্বাস্থ্যকর্মী মারা গিয়েছেন এটা খুব দুঃখজনক ঘটনা। তবে আজ সারা ভারতবর্ষে রিপোর্ট পেতে ৪৮ ঘন্টা অপেক্ষা করতে হয়। এ ক্ষেত্রেও তাই হয়েছে। তবে ওই স্বাস্থ্যকর্মীর মৃতদেহ কোথায় দাহ করা হবে তা নিয়ে সমস্যা তৈরি হয়। এ ব্যাপারে জেলা স্বাস্থ্য আধিকারিক বলেন, পরিবারের লোকেরা যেখানে চাইবেন সেখানেই আমরা ব্যবস্থা করে দেব। পুলিশ প্রশাসনের সঙ্গে এই বিষয় নিয়ে কথা হয়েছে। মূর্শিদাবাদে ৪৯ জন আক্রান্ত হয়েছেন।

    Published by:Simli Raha
    First published: