• Home
  • »
  • News
  • »
  • coronavirus-latest-news
  • »
  • গুজরাত সরকারের দাবি, আয়ুর্বেদ আর হোমিওপ্যাথিতে করোনা প্রতিরোধ ক্ষমতা বেড়েছে

গুজরাত সরকারের দাবি, আয়ুর্বেদ আর হোমিওপ্যাথিতে করোনা প্রতিরোধ ক্ষমতা বেড়েছে

কোয়ারেন্টাইনে থাকা ৩৫৮৫ জনকে আয়ুর্বেদের ওষুধ ও ২৬২৫ জনকে হোমিওপ্যাথি ওষুধ দেওয়া হয়েছিল। এদের মধ্যে মাত্র ১১ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে।

কোয়ারেন্টাইনে থাকা ৩৫৮৫ জনকে আয়ুর্বেদের ওষুধ ও ২৬২৫ জনকে হোমিওপ্যাথি ওষুধ দেওয়া হয়েছিল। এদের মধ্যে মাত্র ১১ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে।

কোয়ারেন্টাইনে থাকা ৩৫৮৫ জনকে আয়ুর্বেদের ওষুধ ও ২৬২৫ জনকে হোমিওপ্যাথি ওষুধ দেওয়া হয়েছিল। এদের মধ্যে মাত্র ১১ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে।

  • Share this:

    #আহমেদাবাদ:‌ করোনা প্রতিরোধে সাহায্য করছে আয়ুর্বেদ ও হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা, সম্প্রতি গুজরাত সরকারের পক্ষ থেকে এই দাবি করা হয়েছে। গুজরাত সরকারের পক্ষ থেকে এই বিষয়ে বিস্তারিত রিপোর্ট কেন্দ্রীয় আয়ুষ মন্ত্রকের কাছে পাঠিয়েও দেওয়া হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, যে ব্যক্তিরা করোনার কারণে কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন, তাঁদের হোমিওপ্যাথি ও আয়ুর্দেব চিকিৎসা করার পর দেখা গিয়েছে তাঁদের বেশিরভাগেরই করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।

    গুজরাতের স্বাস্থ্য দফতরের প্রিন্সিপ্যাল সেক্রেটারি জয়ন্তী রবি জানিয়েছেন, কোয়ারেন্টাইনে থাকা ৩৫৮৫ জনকে আয়ুর্বেদের ওষুধ ও ২৬২৫ জনকে হোমিওপ্যাথি ওষুধ দেওয়া হয়েছিল। এদের মধ্যে মাত্র ১১ জনের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। তিনি বলেছেন, ‘‌এই ঘটনাই প্রমাণ করে আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা ও হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা করোনা মোকাবিলায় রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।’‌

    ট্যুইটারে ডিডি নিউজ গুজরাটির পক্ষ থেকে একটি ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে, সেখানে গুজরাত সরকারের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘‌কেন্দ্রীয় আয়ুষ মন্ত্রকের কাছে গুজরাত সরকারের পক্ষ থেকে একটি তথ্য ভাগ করে নেওয়া হয়েছে। সেখানে বলা হয়েছে, কোয়ারেন্টিনে থাকা ছ’‌হাজার মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা আয়ুর্বেদিক পথ্য ও হোমিওপ্যাথিতে বৃদ্ধি পেয়েছে। যাঁরা কোয়ারেন্টাইনে থেকে নিয়ম মেনে আয়ুর্বেদের ওষুধ খেয়েছেন, তাঁদের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।’‌

    Published by:Uddalak Bhattacharya
    First published: