করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

নিরপেক্ষ নজরদারি চালান অফিসাররা, রেশন দুর্নীতি ফের রাজ্যকে খোঁচা ধনখড়ের

নিরপেক্ষ নজরদারি চালান অফিসাররা, রেশন দুর্নীতি ফের রাজ্যকে খোঁচা ধনখড়ের
ফের রাজ্যকে খোঁচা দিলেন রাজ্যপাল৷ PHOTO- FILE

বিভিন্ন জায়গায় রেশন দেওয়া নিয়ে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যেই রাজ্যজুড়ে বেশ কয়েকজন রেশন ডিলারকে সাসপেন্ড করা হয়েছে।

  • Share this:

#কলকাতা: এবার রাজ্যের রেশন ব্যবস্থা নিয়ে অরাজনৈতিক নজরদারির পক্ষে সওয়াল করলেন রাজ্যপাল  জগদীপ ধনখর। রবিবার ভিডিওবার্তা মারফত রাজ্যের রেশন ব্যবস্থা কে সঙ্কটজনক বলে মন্তব্য করেছিলেন। সোমবার আরো এক পা এগিয়ে রাজ্যে রেশন ব্যবস্থা নিয়ে যে হিংসা ছড়াচ্ছে তা মোকাবিলা করতে অরাজনৈতিকভাবে অফিসারদের নজরদারি  চালানো উচিত বলে ট্যুইট করলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। এ দিন তিনি ট্যুইট করে তিনি বলেন, 'রেশন বিলি নিয়ে আন্দোলন হচ্ছে। অনেক জায়গায় হিংসাও ছড়াচ্ছে। অরাজনৈতিক নজরদারি চলুক। এই নজরদারি চালান অফিসাররা। ফুড কর্পোরেশন অফ ইন্ডিয়া থেকে চাল তুলেছে রাজ্য। ৩.৩৮ লক্ষ টন চাল তুলেছে রাজ্য সরকার। আমার হস্তক্ষেপে চার সপ্তাহ পর রাজ্য সরকার এই পদক্ষেপ করেছে।'

রবিবার ট্যুইট করে ভিডিওবার্তার মাধ্যমে রাজ্যের রেশন ব্যবস্থা নিয়ে কার্যত কড়া আক্রমণ করেন রাজ্যপাল। রাজ্যের রেশন ব্যবস্থা কে সঙ্কটজনক বলে মন্তব্য করেন রাজ্যপাল। কেন্দ্রের পাঠানো রেশন ব্যবস্থা নিয়ে যাতে কালোবাজারি না হয় তার জন্য প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার আর্জি রাখেন রাজ্যপাল। রবিবার ট্যুইট করে ভিডিও বার্তার মাধ্যমে তিনি তৃতীয় পর্যায়ের লকডাউনকে সফল করার জন্য আবেদনও রাখেন। ভিডিও বার্তা দিয়ে রবিবার তিনি বলেন 'রাজ্যের রেশন ব্যবস্থা অত্যন্ত সঙ্কটজনক অবস্থায় রয়েছে। কেন্দ্রের রেশন ব্যবস্থায় রাজনৈতিক হস্তক্ষেপ নেই। কেন্দ্রের পাঠানো রেশনে নিয়ে কোনও দুর্নীতি হয় না। কেন্দ্রের পাঠানো রেশন গরিবদের দিন। রেশন ব্যবস্থা চাল নিয়ে যাতে কোনো কালোবাজারি না হয় সেদিকে নজর রাখুন মুখ্যমন্ত্রী।'

বিভিন্ন জায়গায় রেশন দেওয়া নিয়ে বিক্ষোভ শুরু হয়েছে। ইতিমধ্যেই রাজ্যজুড়ে বেশ কয়েকজন রেশন ডিলারকে সাসপেন্ড করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, লাইসেন্স বাতিল করা হয়েছে অনেক রেশন ডিলারের। তবুও রবিবার রাজ্যের কয়েকটি জায়গায় রেশন নিয়ে বিক্ষোভ করেছেন সাধারণ মানুষ।

রবিবার তাই ট্যুইট করে আবারও রাজ্যের রেশন ব্যবস্থা নিয়ে সরব হয়েছিলেন রাজ্যপাল। সোমবার আরো এক দফা এগিয়ে গিয়ে এবার অরাজনৈতিক নজরদারির পক্ষেই সওয়াল করলেন রাজ্যপাল। প্রসঙ্গত শনিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় রাজ্যপালকে কড়া ভাষায় চিঠি লিখেছিলেন।যদিও তার উত্তর দিতে দেরি করেননি রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। পরপর তিনটি ট্যুইট করে মুখ্যমন্ত্রীর চিঠির উত্তর দিয়েছিলেন রাজ্যপাল।

সোমরাজ বন্দ্যোপাধ্যায়

Published by: Debamoy Ghosh
First published: May 4, 2020, 12:52 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर