corona virus btn
corona virus btn
Loading

নিলামে আরও ৬ বিমানবন্দর, বিমান সংস্থাগুলিকে বাঁচাতে ঘুরপথেই সাহায্য সরকারের

নিলামে আরও ৬ বিমানবন্দর, বিমান সংস্থাগুলিকে বাঁচাতে ঘুরপথেই সাহায্য সরকারের
প্রতীকী চিত্র৷

কীভাবে দেশের আকাশসীমা অসামরিক বিমান চলাচলের জন্য আরও বেশি করে ব্যবহার করা যায়, মিলিটারি অ্যাফেয়ার্স দফতরের সঙ্গে কথা বলেই তা চূড়ান্ত করা হবে৷

  • Share this:

#নয়াদিল্লি: লকডাউনের জেরে কার্যত ধুঁকছে দেশের বিমান সংস্থাগুলি৷ বিমান সংস্থাগুলির জন্য সরাসরি কোনও আর্থিক প্যাকেজের ঘোষণা না করলেও তাঁদের খরচ কমাতে পদক্ষেপের ঘোষণা করল কেন্দ্রীয় সরকার৷ পাশাপাশি বিমান পরিষেবা ক্ষেত্র থেকে আয় বাড়াতে আরও ৬টি বিমানবন্দর বেসরকারি হাতে তুলে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার৷ পাশাপাশি দেশের ১২টি বিমানবন্দরে বেসরকারি অংশীদারিত্ব আরও বাড়ানোর ঘোষণা করেছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ৷

প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা করা কুড়ি লক্ষ কোটি টাকার আর্থিক প্যাকেজের ব্যাখ্যায় এ দিন ফের একবার সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী৷ অসামরিক বিমান পরিবহণ সহ মোট আটটি ক্ষেত্রের জন্য এ দিন প্যাকেজ ঘোষণা করা হয়৷ অনেকেই ভেবেছিলেন বিমান সংস্থাগুলিকে কিছুটা স্বস্তি দিতে হয়তো সরাসরি আর্থিক প্যাকেজের ঘোষণা হবে৷ তার বদলে এ দিন কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছে, দেশের আকাশসীমাকে অসামরিক বিমান পরিবহণের জন্য যত বেশি সম্ভব ব্যবহার করার অনুমতি দেওয়া হবে৷

অর্থমন্ত্রীর দাবি, এতদিন দেশের আকাশসীমার ৬০ শতাংশে এতদিন অসামরিক বিমান পরিবহণের অনুমতি দেওয়া হতো৷ দেশের নিরাপত্তা এবং প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত নিয়মাবলীর জন্যই এই শর্ত আরোপ করা হতো৷ এর ফলে অনেক বিমানকেই ঘুরপথে যাতায়াত করতে হতো৷ যার ফলে জ্বালানি বেশি পুড়ত, বিমান সংস্থাগুলির খরচা বাড়ত৷ পাশাপাশি গন্তব্যে পৌঁছতে সময়ও বেশি লাগত৷ কিন্তু এবার সেই বাধা সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে৷ দেশের নিরাপত্তার সঙ্গে কোনওরকম সমঝোতা না করেই দেশের আকাশসীমা আরও বেশি করে অসামরিক বিমান পরিবহণের জন্য ব্যবহার করা হবে৷ এর ফলে বিমানসংস্থাগুলির জ্বালানি বাবদ খরচ অনেকটাই বাঁচবে বলে দাবি কেন্দ্রীয় সরকারের৷

নির্মলা সীতারমণের দাবি, এর ফলে জ্বালানি বাবদ প্রায় ১ হাজার কোটি টাকা সাশ্রয় হবে বিমান সংস্থাগুলির৷ কীভাবে দেশের আকাশসীমা অসামরিক বিমান চলাচলের জন্য আরও বেশি করে ব্যবহার করা যায়, মিলিটারি অ্যাফেয়ার্স দফতরের সঙ্গে কথা বলেই তা চূড়ান্ত করা হবে৷

একই সঙ্গে দেশের আরও ৬টি বিমানবন্দর নিলামে তোলার সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার৷ পিপিপি মডেলে ওই বিমানবন্দরগুলি পরিচালনা করা হবে৷ এর ফলে সরকারের কোষাগারে কয়েক হাজার কোটি টাকা আসবে বলেই আশা অর্থমন্ত্রকের৷ পাশাপাশি বেসরকারি অংশীদারিত্ব বাড়লে এই বিমানবন্দরগুলিতে বিশ্বমানের পরিষেবা পাওয়া যাবে বলেও দাবি সরকারের৷ বেসরকারি অংশীদারিত্ব রয়েছে, এমন বারোটি বিমানবন্দরে সেই অংশীদারিত্ব আরও বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার৷

পাশাপাশি বিমান মেরামতির জন্য দেশেই যথাযথ পরিকাঠামো গড়ে তুলতে সাহায্য করবে সরকার৷ এর ফলে ইঞ্জিন মেরামতির মতো কাজের জন্য বিমানগুলিকে বিদেশে নিয়ে যেতে হবে না বেসরকারি সংস্থাগুলিকে৷ যার ফলে তাদের খরচ অনেকটাই বাঁচবে৷ এর জন্য আরও বেশি করে বিদেশি বিনিয়োগ টানার উপর জোর দিচ্ছে সরকার৷ এর ফলে মেক ইন ইন্ডিয়া প্রকল্পকে উৎসাহ দেওয়ার সঙ্গে দেশে কর্মসংস্থানও বাড়বে বলে সরকারের দাবি৷

 
Published by: Debamoy Ghosh
First published: May 16, 2020, 5:55 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर