corona virus btn
corona virus btn
Loading

উদ্বেগের মাঝে কিছুটা স্বস্তি, করোনা নেগেটিভ মৃতের সংস্পর্শে আসা ১১ চিকিৎসক

উদ্বেগের মাঝে কিছুটা স্বস্তি, করোনা নেগেটিভ মৃতের সংস্পর্শে আসা ১১ চিকিৎসক

গত ৭ জুলাই বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে Severe Accute Respiratory Infection Unit বা সংক্ষেপে সারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছিল।

  • Share this:

#বর্ধমান: লাফিয়ে লাফিয়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে চলায় উদ্বেগের মাঝেই কিছুটা স্বস্তির খবর বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে। এই হাসপাতালে আক্রান্ত হয়ে গত সপ্তাহে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছিল। ওই আক্রান্তের সংস্পর্শে এসেছিলেন বেশ কয়েকজন চিকিৎসক। উদ্বেগের মধ্যেই দিন কাটছিল সেই সব চিকিৎসক ও তাদের পরিবারের সদস্যদের। তবে তাদের লালা রসের নমুনায় করোনার সংক্রমণ মেলেনি। তাদের করোনা নেগেটিভ রিপোর্ট আশায় স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলেছে স্বাস্থ্য দফতর ও বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

গত ৭ জুলাই বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে Severe Accute Respiratory Infection Unit বা সংক্ষেপে সারি ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছিল। তার আগের দিন ওই বৃদ্ধ বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সারি বিভাগে ভর্তি হন। তাঁর লালারসের নমুনা সংগ্রহ করে তা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছিল। ৭ জুলাই তিনি করোনা পজিটিভ বলে রিপোর্ট আসে। তার কিছুক্ষণ পরেই ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়।

বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল সূত্রে জানা গিয়েছে, ওই রোগীর সংস্পর্শে আসার কারণে এক মহিলা চিকিৎসক-সহ মোট ১১ জন চিকিৎসককে চিহ্নিত করে ওই দিনই হোম কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছিল। গত শুক্রবার বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজে ওই ১১ জন চিকিৎসকের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়। সেই ১১ জন চিকিৎসকের রিপোর্ট করোনা নেগেটিভ এসেছে। একসঙ্গে এত জন চিকিৎসক কোয়ারেন্টাইনে চলে যাওয়ায় উৎকণ্ঠার মধ্যে দিন কাটাচ্ছিলেন হাসপাতালে বাকি চিকিৎসক নার্স স্বাস্থ্যকর্মীরা। সকলেরই নেগেটিভ রিপোর্ট আসায় স্বস্তির নিঃশ্বাস ফেলছেন সকলেই।

জেলা স্বাস্থ্য দফতরের এক আধিকারিক জানান, যেহেতু সরাসরি রোগীদের সংস্পর্শে এসে কাজ করতে হচ্ছে তাই চিকিৎসক-নার্স স্বাস্থ্যকর্মীদের আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। তাই তাঁদের যথেষ্ট সতর্কতার সঙ্গে যাবতীয় স্বাস্থ্যবিধি মেনে কাজ করতে বলা হচ্ছে। সেইসঙ্গে হাসপাতালে বিভিন্ন অংশ নিয়মিত জীবাণুমুক্ত করার কাজ চালানো হচ্ছে।

শরদিন্দু ঘোষ

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: July 14, 2020, 7:51 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर