পাবলিট টয়েলেটে ৫ ফুট উঁচুতে ভাসতে পারে করোনা ভাইরাস! ভয়ানক তথ্য প্রকাশ গবেষণায়

পাবলিট টয়েলেটে ৫ ফুট উঁচুতে ভাসতে পারে করোনা ভাইরাস! ভয়ানক তথ্য প্রকাশ গবেষণায়

সুলভ শৌচাগার থেকে ব্যাপক হারে ছড়াচ্ছে করোনা ভাইরাস ।

পাবলিক টয়লেট এবং রেস্টরুম গুলি, যেখানে অনেক মানুষ একই বাথরুম ব্যবহার করেন, সেখান থেকেই সবচেয়ে বেশি ছড়িয়েছে সংক্রমণ ।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: দেশে যেন মড়ক লেগেছে বললেও কম বলা হয় । করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে টালমাটাল ভারত । সেই ধাক্কা সামাল দিয়ে উঠতে না উঠতেই তৃতীয়, চতুর্থ ঢেউ আছড়ে পড়ার পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে দেশ জুড়ে । হাসপাতালে বেড নেই, অক্সিজেন নেই, স্বাস্থ্য পরিকাঠামো ভেঙে পড়েছে, যন্ত্রণায় কাতরাতে কাতরাতে একটু অক্সিজেনের অভাবে তিলে তিলে মরছেন সাধারণ মানুষ ।

    এই অবস্থায় বিজ্ঞানীদের চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে সংক্রমণের হার । গত বছরের কোভিড ভাইরাসের স্ট্রেনটির সংক্রমিত করার প্রবণতা কম ছিল । কিন্তু এ বারের নতুন ডবল মিউট্যান্ট বা ট্রিপল মিউট্যান্ট স্ট্রেনটি দ্রুত গতিতে ছড়িয়ে পড়ছে সকলের মধ্যে । গবেষকদের পরীক্ষা-নিরীক্ষায় উঠে আসছে একটি ভয় পাইয়ে দেওয়ার মতো তথ্য । জানা যাচ্ছে, টয়লেটে ফ্লাশ করলেও করোনার ভাইরাস ৫ ফুট উঁচুতে ভাসতে পারে।

    দেখা যাচ্ছে, এই পাবলিক টয়লেট এবং রেস্টরুম গুলি, যেখানে অনেক মানুষ একই বাথরুম ব্যবহার করেন, সেখান থেকেই সবচেয়ে বেশি ছড়িয়েছে সংক্রমণ । এই সমস্ত আবদ্ধ জায়গায় সংক্রমণ বেশি ছড়ায় । এ সমস্ত জায়গায় ভাল হাওয়া চলাচলের জায়গা থাকে না । গবেষণা বলছে, এই কারণেই পাবলিক টয়লেটগুলিতে ভাইরাস থিকথিক করতে থাকে । মল-মূত্র-বমি এবং জমা জল থেকে বিপুল পরিমাণে ভাইরাস ছড়ায় । ফ্লোরিডা আটলান্টিক বিশ্ববিদ্যালয়ের ওসিয়েন অ্যান্ড মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক সিদ্ধার্থ ভার্মা জানিয়েছেন, ফ্লাশের সঙ্গে সঙ্গে প্রচুর ড্রপলেট টয়লেটের মধ্যে ছড়িয়ে থাকে । এ গুলি ৫ ফুট উচ্চতা পর্যন্ত ২০ সেকন্ডের জন্য স্থায়ী হয় । ঘন ঘন ফ্লাশ হলে, ড্রপলেটের সংখ্যাও বাড়তে থাকে ।

    শুধু তাই নয়, গবেষণায় দেখা গিয়েছে যদি কমোডের ঢাকনা বন্ধ অবস্থায় ফ্লাশ করা হয়, তাতেও ড্রপলেট বাইরে আসতে পারে । কারণ বায়ু বাহিত হয়ে বাইরে বেরিয়ে আসে এরা । এই ড্রপলেটের মাধ্যমে প্রচুর সংখ্যক ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে পারে । তাই করোনা পরিস্থিতি অনেকের সঙ্গে টয়লেট শেয়ার না করাই ভাল, এমনটাই বলছেন বিজ্ঞানীরা ।

    Published by:Simli Raha
    First published:

    লেটেস্ট খবর