করোনা ভাইরাস

corona virus btn
corona virus btn
Loading

করোনার নতুন স্ট্রেইন নিয়ে আতঙ্ক! এই পাঁচ ভয়ঙ্কর উপসর্গ দেখলেই সতর্ক হোন

করোনার নতুন স্ট্রেইন নিয়ে আতঙ্ক! এই পাঁচ ভয়ঙ্কর উপসর্গ দেখলেই সতর্ক হোন
ভয় বাড়াচ্ছে করোনার নতুন স্ট্রেইন।

মূল কোভিড১৯ এর উপসর্গের সঙ্গে মিল থাকলেও পাঁচটি উপসর্গ সম্পর্কে সতর্ক করেছেন চিকিৎসকরা।

  • Share this:

কোভিডের ১৯ এর দাপট একটু হালকা হতেই চিন্তা বাড়িয়েছে ব্রিটেনে তৈরি হওয়া নতুন স্ট্রেইন। কোভিড১৯ এর এই নতুন স্ট্রেইনের পরিবর্তিত বা মিউটেশনের উৎস কী তা নিয়ে গবেষণা চালাচ্ছেন বিজ্ঞানীরা। এখনও কোনও সিদ্ধান্তে না পৌঁছলেও ব্রিটেনের রোগ নিয়ন্ত্রণ ও প্রতিরোধ কেন্দ্র কিছু বিষয় নিয়ে সতর্ক করেছে। বিশেষ কয়েকটি উপসর্গ দেখলেই সঙ্গে সঙ্গে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছে তারা।

কোভিড১৯ এর এই নতুন স্ট্রেইন-এর নাম VUI 202012/01। এখনও পর্যন্ত জানা যাচ্ছে, এই নতুন স্ট্রেইন ৭০ শতাংশ বেশি সংক্রমক। যদিও এর মারণ ক্ষমতা বৃদ্ধির প্রমাণ এখনও পর্যন্ত মেলেনি। ইংল্যান্ডের দক্ষিণ-পশ্চিম প্রান্তে এই নতুন প্রকার কোভিড ১৯ এর সন্ধান প্রথম পাওয়া গেলেও ইতিমধ্যেই সারা বিশ্বে নতুন করে উদ্বেগ তৈরি হয়েছে। তবে যেহেতু এই স্ট্রেইন তুলনামূলক ভাবে অনেক দ্রুত ছড়িয়ে পড়ে, তাই কিছু উপসর্গ নিলে শীঘ্র চিকিৎসকের পরামর্শ নিতে বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

মূল কোভিড১৯ এর উপসর্গের সঙ্গে মিল থাকলেও এই পাঁচটি উপসর্গ সম্পর্কে সতর্ক করেছেন চিকিৎসকরা। কী সেই পাঁচ উপসর্গ-

১) শ্বাসকষ্ট ২) অনবরত বুকে ব্যথা ৩) কনফিউশন বা বিভ্রান্তি ৪) অতিরিক্ত ক্লান্তির জন্য জেগে থাকতে না পারা ৫) ঠোঁট ও মুখ নীলচে হয়ে যাওয়া

কতটা ভয়ঙ্কর এই নতুন স্ট্রেন? লন্ডন স্কুল অফ হাইজিন অ্যান্ড ট্রপিকাল মেডিসিন একটি গবেষণার মাধ্যমে দাবি করেছে, ব্রিটেনে এই নতুন স্ট্রেন মৃত্যুর হার বাড়িয়ে দিতে পারে। এছাড়াও বেশি সংখ্যক মানুষকে হাসপাতালে ভর্তি হতে পারে। কোভিড ১৯ এর মূল স্ট্রেনটি শিশুদের জন্য সেভাবে বিপজ্জনক ছিল না। কিন্তু এই নতুন স্ট্রেনটি শিশুদের জন্য ঝুঁকি বাড়িয়ে দিয়েছে।

বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, এই নতুন স্ট্রেন সহজেই মানুষের কোষে প্রবেশ করতে পারে। তাই বয়স্কদের পাশাপাশি শিশু ও কমবয়সিদের জন্যও এটি একই রকম বিপজ্জনক। আর তাই যে কোনও উপসর্গ দেখলেই দ্রুত চিকিৎসার সাহায্য পরামর্শ দিচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। এছাড়াও নিয়মিত মাস্ক পরে থাকা ও স্যানিটাইজার ব্যবহার করা ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে বলছেন চিকিৎসকরা।

Published by: Arka Deb
First published: December 29, 2020, 2:45 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर