corona virus btn
corona virus btn
Loading

এই প্রথম! পূর্ব বর্ধমান জেলায় করোনা আক্রান্ত এক বৃদ্ধের মৃত্যু

এই প্রথম! পূর্ব বর্ধমান জেলায় করোনা আক্রান্ত এক বৃদ্ধের মৃত্যু

আতঙ্কিত হাসপাতালের রোগী ও তাঁদের আত্মীয় পরিজনরা। চিন্তিত হাসপাতালের আশপাশে এলাকার ব্যবসায়ী ও বাসিন্দারাও। জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত ব্যক্তি যাঁদের সংস্পর্শে এসেছিলেন তাঁদের চিহ্নিত করা হচ্ছে।

  • Share this:

#বর্ধমান: পূর্ব বর্ধমান জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়ে এক বৃদ্ধের মৃত্যু হল। মৃত ব্যক্তি পূর্ব বর্ধমান জেলার মেমারি এক নম্বর ব্লকের কেষ্টপুর এলাকার বাসিন্দা। তাঁর বয়স ৭০ বছর। তিনি বয়সজনিত নানা অসুখে ভুগছিলেন।

দীর্ঘদিনের শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যাও ছিল। সেই সব সমস্যা নিয়ে তিনি কয়েকদিন আগে মেমারি হাসপাতালে ভর্তি হন। সেখানে শারীরিক অবস্থার  অবনতি হলে গত সোমবার তাঁকে বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে  ভর্তি করা হয়। শ্বাসকষ্ট থাকায় বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের প্রি-কোভিড বিভাগে তাঁকে ভর্তি করা হয়।

সেখানে তাঁর লালারসের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছিল। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় তাঁর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এরপরই সেখানে ওই বৃদ্ধের মৃত্যু হয়। এই প্রথম এই জেলায় কোনও করোনা আক্রান্তের মৃত্যুর ঘটনা ঘটল।

করোনা আক্রান্তের মৃত্যুর খবরে বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল চত্বরে উদ্বেগ দেখা দিয়েছে।

আতঙ্কিত হাসপাতালের রোগী ও তাঁদের আত্মীয় পরিজনরা। চিন্তিত হাসপাতালের আশপাশ এলাকার ব্যবসায়ী ও বাসিন্দারাও। জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানা গিয়েছে, মৃত ব্যক্তি যাঁদের সংস্পর্শে এসেছিলেন তাঁদের চিহ্নিত করা হচ্ছে। কতজন চিকিৎসক নার্স, স্বাস্থ্য কর্মী, গাড়ি চালক তাঁর সংস্পর্শে এসেছিলেন তা দেখা হচ্ছে। প্রয়োজনে তাঁদের সবাইকে কোয়ারেন্টাইনে রেখে প্রত্যেকের লালারস সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে।

পূর্ব বর্ধমানের জেলাশাসক বিজয় ভারতী জানান, করোনা আক্রান্ত এক বয়স্ক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। স্বাস্থ্য দফতরের নির্দেশ মেনে সতর্কতার সঙ্গে মৃতের দেহ সৎকারের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। মঙ্গলকোটে ইতিমধ্যেই করোনা শ্মশান চিহ্নিত করা হয়েছে। সেখানেই মৃতদেহ নিয়ে গিয়ে সৎকারের প্রস্তুতি চলছে।

এদিন পর্যন্ত পূর্ব বর্ধমান জেলায় ১৯৫ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তাদের মধ্যে এখন ২৯ জন করোনা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। ১২৯ জন চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। জেলা স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রতিদিনই উপসর্গ রয়েছে এমন পুরুষ মহিলাদের লালারসের নমুনা সংগ্রহ করে তা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হচ্ছে।

গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে চারজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। তাঁরা কাটোয়া দু নম্বর ব্লক, মেমারি এক নম্বর ব্লক, গলসি এক নম্বর ব্লক ও বর্ধমান দু নম্বর ব্লক এলাকার বাসিন্দা।

SARADINDU GHOSH

Published by: Arindam Gupta
First published: July 8, 2020, 4:59 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर