corona virus btn
corona virus btn
Loading

বিদেশ থেকে ফিরেই নিরুদ্দেশ ১৫ জন ! করোনা নেই তো! হন্যে হয়ে তাদের খুঁজছে পুলিশ

বিদেশ থেকে ফিরেই নিরুদ্দেশ ১৫ জন ! করোনা নেই তো! হন্যে হয়ে তাদের খুঁজছে পুলিশ

এই ১৫ জন বাড়িতে না থেকে কেন নিরুদ্দেশ হয়ে গেলেন, তাঁরা কেন ফিরে এসে শারীরিক পরীক্ষা করালেন না, হোম কোয়ারেন্টাইনে না থেকে কোথায় রয়েছেন তাঁরা ?

  • Share this:

#বর্ধমান:  বিদেশ থেকে এসে নিরুদ্দেশ পনের জন। তাদের খোঁজ পেতে এখন হন্যে হয়ে ঘুরছে পুলিশ। বিদেশ থেকে এসে তারা কোথায় গেল তা বুঝতে না পেরে উদ্বিগ্ন পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন। তাদের দেহে করোনার উপসর্গ রয়েছে কিনা তাও জানা যাচ্ছে না। জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে এই পনের জনের দ্রুত হদিশ পাওয়া জরুরি। এই পনের জন বাড়িতে না থেকে কেন নিরুদ্দেশ হয়ে গেলেন, তারা কেন ফিরে এসে শারীরিক পরীক্ষা করালেন না, হোম কোয়ারেন্টাইনে না থেকে কোথায় রয়েছেন তাঁরা - এইসব প্রশ্নের উত্তর যত দ্রুত সম্ভব উত্তর পেতে চাইছে প্রশাসন।

পূর্ব বর্ধমানের জেলা শাসক বিজয় ভারতী বলেন, শনিবার সকাল পর্যন্ত জেলায় এগারশো পুরুষ মহিলা হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন। এর মধ্যে দেড়শ জন বিদেশ থেকে এসেছেন। বাকিরা এসেছেন দেশের বিভিন্ন রাজ্য থেকে। বিদেশ থেকে আসা পনের জনের হদিশ মিলছে না। তারা জেলায় আসার পরই নিরুদ্দেশ হয়ে গিয়েছেন। তারা কি অবস্থায় আছেন জানা জরুরি। আমরা বিষয়টি পুলিশকে জানিয়েছি। পুলিশ তাদের খুঁজে বের করার চেষ্টা চালাচ্ছে।

সম্প্রতি করোনা আক্রান্ত বিভিন্ন দেশ থেকে এসেছেন এমন বাসিন্দাদের তালিকা তৈরি করেছে জেলা প্রশাসন। তাদের হোম কোয়ারেন্টাইনে রেখে নিয়মিত নজরদারি চালানো হচ্ছে। জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, বিদেশ থেকে আসা বাসিন্দাদের পাশাপাশি  করোনা আক্রান্ত রাজ্য থেকে আসা ব্যক্তিদেরও হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হচ্ছে। কারণ তাদের মাধ্যমেও করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটতে পারে। তা ঠেকাতে তাদের আলাদা ঘরে থাকার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক প্রণব কুমার রায় জানান, আপাতত দুজন আইসোলেশন ওয়ার্ডে রয়েছেন। এরমধ্যে একজন রয়েছেন বর্ধমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে, অন্যজন রয়েছেন কালনা মহকুমা হাসপাতালে। বর্ধমান মেডিকেলে থাকা আউশগ্রামের বাসিন্দা পুনে থেকে এসেছিলেন। তাঁর গায়ে জ্বর ছিল। তবে তিনি করোনায় আক্রান্ত নন বলেই অনেকটা নিশ্চিত চিকিৎসকরা।

SARADINDU GHOSH 

First published: March 21, 2020, 7:37 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर