corona virus btn
corona virus btn
Loading

বাড়ির বাইরে বেরোলে মাস্কে মুখ ঢাকতেই হবে, শহরের রাস্তায় ব্যাপক পুলিশি অভিযান

বাড়ির বাইরে বেরোলে মাস্কে মুখ ঢাকতেই হবে, শহরের রাস্তায় ব্যাপক পুলিশি অভিযান

বৃহস্পতিবার বিকেল থেকে রাজ্যের অন্যান্য অংশের সঙ্গে পূর্ব বর্ধমান জেলাতেও কন্টেইনমেন্ট জোনে লকডাউন কড়াকড়ি করা হচ্ছে।

  • Share this:

#বর্ধমান: মাস্কে মুখ ঢাকা নিশ্চিত করতে বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বর্ধমানের রাস্তায় অভিযানে নামল পুলিশ। মুখে মাস্ক বা ফেস কভার ব্যবহার করছিলেন না অনেকেই। রাস্তায় তাঁদের আটক করে বাড়ি ফিরিয়ে দেওয়া হল। অনেকেই সঙ্গে মাস্ক  রেখেছিলেন। তবুও তা মুখ ঢাকেননি। পুলিশ ধরপাকড় শুরু করতেই পকেট থেকে, ব্যাগ থেকে ফেস কভার বের করে তা দিয়ে মুখ ঢেকে নেন। পুলিশি ধরপাকড়ের শুরু করার খবর রটে যেতেই অনেকেই মাস্কে মুখ ঢেকে পথে নামেন। মাস্ক বাঁধা অভ্যাসে পরিণত করাতে ধারাবাহিকভাবে এই অভিযান চালানো হবে বলে জানিয়েছে পূর্ব বর্ধমান জেলা প্রশাসন। জেলা পুলিশ সুপার ভাস্কর মুখোপাধ্যায় বলেন, ঘরের বাইরে বের হলেই মাস্ক ব্যবহার করা উচিত। এই সচেতনতা বাসিন্দাদের কাছ থেকে আশা করছি আমরা।

বৃহস্পতিবার থেকে রাজ্যের অন্যান্য অংশের সঙ্গে পূর্ব বর্ধমান জেলাতেও কন্টেইনমেন্ট  জোনে লকডাউন কড়াকড়ি করা হচ্ছে। জেলা প্রশাসন জানিয়েছে, কন্টেইনমেন্ট জোন ও  বাফার জোনে লকডাউন থাকছেই। তার বাইরে শহরের বাকি অংশেও সবাইকেই মাস্ক পরে রাস্তায় বেরোনো বাধ্যতামূলক করা হচ্ছে। তা নিশ্চিত করতে এদিন সকাল থেকেই রাস্তায় নামে পুলিশ। বর্ধমান শহরের কার্জন গেট, বীরহাটা, স্টেশন মোড়, গোলাপবাগ মোড়-সহ গুরুত্বপূর্ণ জনবহুল এলাকাগুলিতে অভিযান চালায় পুলিশ। সকাল থেকেই অনেকেই মুখে মাস্ক  না পরেই বাইরে বেরিয়েছিলেন অনেকেই। পুলিশের পক্ষ থেকে তাঁদের আটক করে বাড়ি ফিরে যাওয়ার অনুরোধ করা হয়।

অভিযানে অংশ নেওয়া পুলিশ কর্মীরা বলেন, কেন এখনও মাস্ক বা ফেস কভারে মুখ ঢাকা জরুরি পথচলতি বাসিন্দাদের তা বোঝানো হচ্ছে। পূর্ব বর্ধমানের জেলাশাসক বিজয় ভারতী বলেন, বর্ধমান শহরের গুরুত্বপূর্ণ এলাকাগুলোতে সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত ব্যাপক ভিড় থাকে। করোনার সংক্রমণ বাড়তে থাকায় সাবধানতা অবলম্বন জরুরি। তাই কন্টেইনমেন্ট জোন এলাকার বাইরের বাসিন্দারাও যাতে মাস্ক বা ফেস কভার ব্যবহার করেন তা নিশ্চিত করতে পুলিশকে নজরদারি বাড়ানোর নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে জনবহুল এলাকা, বাজার, শপিং মলে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখাতেও বাসিন্দাদের কাছে আবেদন জানানো হচ্ছে।

Saradindu Ghosh

Published by: Shubhagata Dey
First published: July 9, 2020, 4:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर