corona virus btn
corona virus btn
Loading

আপাতত হচ্ছে না ভোট, ৮ মে থেকে কলকাতা পুরসভায় বসছে প্রশাসক 

আপাতত হচ্ছে না ভোট, ৮ মে থেকে কলকাতা পুরসভায় বসছে প্রশাসক 
কলকাতা মিউনিসিপ্যাল কর্পোরেশন

রাজ্যের পুর আইনে পুরসভাগুলিতে প্রশাসক বসানোর বিকল্প রয়েছে। সেই প্রশাসন বসানোর ভাবনা এবার কলকাতা পৌরসভায় কার্যকর হতে চলেছে।

  • Share this:

#কলকাতা: রাজভবনকে এড়াতেই অর্ডিন্যান্স আনছে না রাজ্য। অন্য পুরসভার মত কলকাতা পুরসভাতেও প্রশাসক। বুধবারের মধ্যেই বিজ্ঞপ্তি জারি করতে পারে রাজ্য সরকার। পুরকমিশনার খলিল আহমেদের প্রশাসক হওয়ার সম্ভাবনা। পুরসভার কাজ পরিচালনা করার জন্য বিজ্ঞপ্তিতে থাকতে পারে প্রশাসনিক বোর্ডের বিকল্প। সেই বোর্ডে থাকতে পারেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম। করোনা পরিস্থিতিতে ভোট নিয়ে জটিলতা কাটাতে এই ভাবনা।

রাজ্যপালকে এড়াতেই অর্ডিন্যান্স নয় জরুরি বিজ্ঞপ্তি জারি করবে রাজ্য সরকার। কলকাতা পুর আইনের 634 নম্বর ধারায় বিশেষ পরিস্থিতিতে রাজ্য সরকারের হস্তক্ষেপের নিদান রয়েছে। 1980 সালের কলকাতা পুরআইনের এই ধারাতে বলা হয়েছে যদি কোনও সমস্যা আসে পুরপ্রশাসনে তাহলে রাজ্য সরকার সেই সমস্যার সমাধানে হস্তক্ষেপ করতে পারে। রাজ্যের পুর আইনে পুরসভাগুলিতে প্রশাসক বসানোর বিকল্প  রয়েছে। সেই প্রশাসন বসানোর ভাবনা এবার কলকাতা পৌরসভায় কার্যকর হতে চলেছে।

ভারতীয় সংবিধানের 234 ইউ ধারাতেও পুর প্রশাসনের কাজে জরুরি প্রয়োজনে রাজ্য সরকারের অধিকারের কথা বলা আছে। সেই অনুযায়ী জরুরি বিজ্ঞপ্তি জারি করতে পারে নবান্ন। এর ফলে একদিকে রাজভবনকে যেমন এড়ানো যাবে। তেমনি ভাবে অর্ডিন্যান্স জারির ছয় মাসের মধ্যে কলকাতা পুরসভার আইন সংশোধনের তাড়া থাকবে না। কারণ অর্ডিন্যান্স জারি করলে ছয় মাসের মধ্যে তা বিধানসভায় আইন সংশোধন করতে হবে। করোনার বর্তমান পরিস্থিতিতে যা চিন্তায় রাখত রাজ্য সরকারকে।

করোনা পরিস্থিতিতে কাউন্সিলরদের ভূমিকাও অনস্বীকার্য।  বর্তমানে পুরসভার মাইক্রো প্ল্যানিং বস্তিতে বস্তিতে করোনা যুদ্ধে কাউন্সিলরদের ভূমিকা উল্লেখযোগ্য।সেক্ষেত্রে প্রশাসনিক বোর্ড কাউন্সিলরদেরই ওয়ার্ডে কাজ দেখভালের জন্য মনোনীত করতে পারে বলে পুরসভা সূত্রে খবর।

Biswajit Saha

Published by: Elina Datta
First published: May 5, 2020, 5:43 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर