Domestic Air Travel: প্রথম দিনেই বাতিল প্রায় ৬৩০টি ফ্লাইট ! চরম হয়রানির শিকার যাত্রীরা

Representational Image

যাত্রীদের অভিযোগ, উড়ান বাতিল হলেও বিমান সংস্থার তরফে এ ব্যাপারে তাদের আগে কিছু জানানো হয়নি।

  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: করোনার জেরে দেশে চলছে লকডাউন ৷ তবে আস্তে আস্তে স্বাভাবিক ছন্দে ফেরার চেষ্টা করছে দেশবাসী ৷ আগের তুলনায় লকডাউন অনেকাংশেই শিথীল করা হয়েছে ৷ দেশের মেট্রো শহরগুলির মধ্যে অধিকাংশ রুটেই চালু হয়ে গিয়েছে  যাত্রীবাহী বিমান পরিষেবা ৷ কলকাতায় ২৮ মে থেকে শুরু হবে ফ্লাইট পরিষেবা ৷ কিন্তু সোমবার প্রথম দিনেই যথেষ্ট সমস্যায় পড়তে হয়েছে যাত্রীদের ৷

    প্রচুর উড়ান বাতিল হয় একেবারে শেষ মুহূর্তে ৷ ফলে যাত্রীদের কাছে কোনও আগাম খবর না থাকায় বিমানবন্দরে এসেই তাঁরা জানতে পারেন যে উড়ান বাতিল হয়েছে ৷ তাও আবার সমস্ত ধরণের স্ক্রিনিংয়ের পরই ৷ যাত্রীদের অভিযোগ,  উড়ান বাতিল হলেও বিমান সংস্থার তরফে এ ব্যাপারে তাদের আগে কিছু জানানো হয়নি। যদিও বিমান সংস্থার আধিকারিকদের যুক্তি, করোনা আবহে বিভিন্ন রাজ্যের বিধিনিষেধের কারণে উড়ান বাতিল করতে হয়েছে।

    দিল্লি থেকেই এদিন ১২৫টি বিমান চলার কথা থাকলেও সেটা শেষপর্যন্ত হয়নি ৷ পাশাপাশি দিল্লিতে নামার কথা ছিল ১১৮টি বিমানের ৷ সবমিলিয়ে ৮২টি বিমান বাতিল হয় শুধুমাত্র ৷ একের পর এক বিমান শেষ মুহূর্তে বাতিল হওয়ায় চরম হয়রানির সম্মুখীন হতে হয় যাত্রীদের ৷ বেঙ্গালুরু এবং উত্তর-পূর্ব ভারতের বেশ কিছু শহরেও এদিন বেশ কয়েকটি বিমান বাতিলের খবর পাওয়া যায় ৷ সংবাদসংস্থা পিটিআইয়ের খবর অনুযায়ী সব মিলিয়ে প্রথম দিনে প্রায় ৬৩০টি ফ্লাইট বাতিল হয় ৷

    Published by:Siddhartha Sarkar
    First published: